সর্বশেষ আপডেট : ৫৯ মিনিট ৩৯ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

রাতে নারিকেলগাছের মা’থায় গৃহবধূ, উ’দ্ধার করলো ফায়ার সার্ভিস

রাতে পরিবারের সদস্যদের চোখ ফাঁকি দিয়ে তাসলিমা খাতুন (২২) নামে এক গৃহবধূ নারকেলগাছের মা’থায় উঠেছেন। পরিবারের সদস্যরা শত চেষ্টা করেও তাসলিমাকে নারকেল গাছ থেকে নামাতে ব্যর্থ হলে মহেশপুর ফায়ার সার্ভিসের সদস্যদের খবর দেওয়া হয়। পরে ফায়ার সার্ভিসের লোকজন এসে তাকে উ’দ্ধার করেন।

বলা হচ্ছে, ‘জ্বিনের আছরে’ রাতে নিজের অজান্তে গাছে ওঠেন। গতকাল বৃহস্পতিবার (২৪ জুন) রাত সাড়ে ১০টার দিকে ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজে’লার বেগমপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। তাসলিমা একই গ্রামের মো. হাসানের স্ত্রী’। তাসলিমা-হাসান দম্পতির ৬ মাসের একটি কন্যাসন্তান রয়েছে।

নারকেল গাছ থেকে গৃহবধূকে উ’দ্ধারের ঘটনায় শত শত মানুষ জড়ো হয়।

ওই গৃহবধূর পরিবার জানায়, জ্বিনের সমস্যা আছে তাসলিমা’র। জ্বীন-ই তাকে রাতের অন্ধকারে ঘর থেকে বের করে নিয়ে নারিকেল গাছের মা’থায় উঠায়।

তাসলিমা’র স্বামী হাসান আলী বলেন, আগে থেকেই তাসলিমা’র ‘জ্বিনের সমস্যা’ রয়েছে। বাজার থেকে রাত ৮টার দিকে এসে তাসলিমাকে খুঁজে পান না। পরে সবাই খুঁজতে বের হয়। রাত সাড়ে ৮টার দিকে নারকেল গাছের মা’থায় থেকে তাসলিমা’র গলার ক’ষ্ট শোনা যাচ্ছে। বাড়ির পাশে থাকা একটি নারকেলগাছে টর্চলাইটের আলো মে’রে দেখতে পান, তাসলিমা গাছের ওপরে ঝুলে আছেন। তখন তাকে গাছ থেকে নামানোর চেষ্টা করা হলেও নামানো যায়নি। পরে মহেশপুর ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিলে তারা এসে তাসলিমাকে নামিয়ে দেয়।

বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) ঝিনাইদহের সাধারণ সম্পাদক ডা. রাশেদ আল মামুন বলেন, তাসলিমা মানসিক বিকারগ্রস্ত রোগী। তাকে মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দেখানো উচিত।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: