সর্বশেষ আপডেট : ৫ ঘন্টা আগে
রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

৮ বছরের ক’ষ্টের টাকা বাবাকে পাঠাতেন ছে’লে, হিসাব চাওয়ায় বানালেন লা’শ

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে বাবা-মা ও ভাইয়ের মা’রধরে প্রবাসী শারফুল ঢালীর মৃ’ত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় মা হোসনে আরাকে আ’ট’ক করেছে পু’লিশ। তবে এখনো বাবা ও ভাই পলাতক রয়েছেন।বৃহস্পতিবার সকালে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতা’লে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শারফুলের মৃ’ত্যু হয়। এর আগে, বুধবার সকালে পাগলা থা’নার চাকুয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। শারফুল একই গ্রামের ইসহাক ঢালীর ছে’লে।

জানা গেছে, দীর্ঘ আট বছর লেবাননে ছিলেন শারফুল। সেখানে ভালো বেতনে চাকরি করতেন। নিজের আয়-রোজগারের সব টাকা বাবা ইসহাক ঢালীর নামে পাঠাতেন তিনি। ছয় মাস আগে শারফুল দেশে ফেরেন। এরপর বাবার কাছে টাকার হিসাব চান তিনি। কিন্তু কোনো হিসাব না দিয়ে টাকা দেবেন না বলে জানিয়ে দেন বাবা। এ নিয়ে প্রায়ই ঝগড়া হতো।

ঘটনার দিন বুধবার সকালে ফের ঝগড়া হয়। একপর্যায়ে শারফুলকে লোহার রড ও শাবল দিয়ে পি’টিয়ে হাত-পা ভেঙে দেন বাবা-মা এবং ছোট ভাই আশরাফুল ঢালী। পরে তাকে ঘরের একটি কক্ষে তালাবদ্ধ করে রাখেন তারা।

একপর্যায়ে শারফুলের চি’ৎকারে এগিয়ে এলে স্থানীয়দেরও রড, শাবল ও রাম’দা দিয়ে তাড়া দেন বাবা-মা এবং ভাই। পরে বিষয়টি পু’লিশকে জানান প্রতিবেশীরা। এরপর শারফুলকে উ’দ্ধার করে উপজে’লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেন পু’লিশ ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান। অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতা’লে স্থা’নান্তর করেন চিকিৎসকরা। সেখানেই বৃহস্পতিবার সকালে তিনি মা’রা যান।

পাগলা থা’নার ওসি মো. রাশেদুজ্জামান বলেন, ম’রদেহ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ম’র্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নি’হতের মা হোসনে আরাকে আ’ট’ক করা হয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 68
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    68
    Shares
নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: