সর্বশেষ আপডেট : ৫ ঘন্টা আগে
শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

তাহিরপুরের যাদুকাটা ও পাটলাই নদীতে টোল আদায়ের নামে চলছে চাঁদাবাজি

জামালগঞ্জ প্রতিনিধি:

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার যাদুকাটা নদীতে ইজারাদার ও চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে ধর্মঘট ও মানববন্ধন করেছে নৌ-মালিক, শ্রমিক, সর্দার, হাজী নোয়াজ আলী ট্রাষ্ট ফাউন্ডেশন সমিতির নেতৃবৃন্দ। মঙ্গলবার শেষ বিকেলে সোহালা নতুন বাজারের নদীর পাড়ে ঘন্টাব্যাপী এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এসময় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল ছাত্তার, আব্দুর রহিম, সিদ্দিক মিয়া, হোসেন আহমদ রাজা, বাছির মিয়া, ছালাম মিয়া, হারুন মিয়াসহ নৌ-মালিক, শ্রমিক, সর্দার ও হাজী নোয়াজ আলী ট্রাষ্ট ফাউন্ডেশন সমিতির নেতৃবৃন্দ।
বক্তারা বলেন, এই নদীপথে হাজার হাজার নৌকা প্রতিদিন বালু ও পাথর বোঝাই করে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে যাতায়াত করে আর এই নৌকা থেকে ঘাটের নাম করে দুটি (আনোয়ারপুর লোহাছড়া ও ফাজিরপুর) পয়েন্টে স্থানীয় সংঘবন্ধ চাঁদাবাজরা দীর্ঘ দিন ধরেই চাঁদাবাজি করছে। প্রতি নৌকা থেকে জোর করে ১ হাজার থেকে শুরু করে ৩-৪ হাজার টাকার বেশী নিচ্ছে। প্রতিবাদ করলে ঐসব চাঁদাবাজদের লাঠিয়াল বাহিনী দিয়ে মারপিট করে। সম্প্রতি ফাজিরপুর টোল আদায়ের নামে নৌকার মালিক ও শ্রমিকদের মারপিট করেছে চাঁদাবাজরা। ঐসব চাদাঁবাজ ও ঘাট ইজারাদারদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা না নেওয়ায় নৌ পরিবহন শ্রমিকরা ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে। এর সুষ্ঠু সমাধান না হলে কঠোর আন্দোলনের মাধ্যমে ঐসব চাঁদাবাজদের প্রতিহত করা হবে বলে জানান তারা। মানববন্ধনে সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন, তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান করুনা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল। এসময় তিনি বলেন, সরকারী নিয়মের বাইরে অতিরিক্ত টোল আদায় যারা করছে তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থ গ্রহন করা হবে।
অপর দিকে তাহিরপুর উপজেলার পাটলাই নদীতে নিয়মিত টোল আদায়ের সাথে অতিরিক্ত চাঁদা আদায়ের লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার দুপুরে সুনামগঞ্জ মালবাহি নৌযান শ্রমিক সমবায় সমিতি’র সাধারণ সম্পাদক ও জামালগঞ্জ উপজেলা শ্রমিকলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোহাম্মদ আলী তালুকদার জেলা প্রশাসক বরাবরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।
এতে উল্লেখ করা হয়, তাহিরপুর উপজেলার পাটলাই নদীতে বড়ছড়া, ছাড়াগাও, বাগলী ছড়া থেকে বালি-পাথর, কয়লা, চুনাপাথর মালামাল নিয়ে বহনকারী নৌশ্রমিকদের কাছ থেকে টোল আদায়ের নামে প্রতিনৌকা থেকে এক হাজার টাকার টোল ট্যাক্স নামে চাঁদা আদায় করা হচ্ছে। স্থানীয় প্রভাবশালী কয়েকজনের ছত্রচ্ছায়ায় থেকে তাহিরপুরের উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের শীবরামপুর গ্রামের মৃত তোতা মিয়ার ছেলে মতিউর রহমান তার বাহিনী নিয়ে এম অপকর্ম করে যাচ্ছে। কেউ বাধা দিলে তারা আরো মারমুখি হয়ে উঠে। টাকা না দিলে অনেক সময় নৌ শ্রমিকদের মারধর করে জোর করেই টাকা নিয়ে যায়। টাকা না দিলে এই নদী পথে নৌযান চলাচল করতে নৌকা আটকিয়ে রাখে। এমন গুরুতর পরিস্থিতিতে নৌকার মাঝিরা রয়েছেন চরম শংকিত ও নিরাপত্তাহীনতায়।
নৌ শ্রমিকরা জানান, চাঁদাবাজি বন্ধ না হলে তারা নদী পথে মালামাল পরিবহন বন্ধ করে দেবেন। এতে এলাকার হাজারো শ্রমিক পরিবার পরিজন নিয়ে বিপাকে পড়বেন। এভাবে গায়ের জোরে চাঁদা আদায় করলে ব্যবসা বন্ধ হবে, এতে সরকারের লাখ-লাখ টাকা রাজস্ব হারানো সহ শ্রমিকদের মানবেতর জীবন যাপন করতে হবে। দ্রুত চাঁদাবাজি বন্ধ করে নৌশ্রমিকদের কাজের সুবিধা ও ব্যবসায়ীদের ব্যবসা পরিচালনা করতে সরকারের উর্ধতন কর্তৃপক্ষের নিকট জোর দাবী জানান তারা।
অভিযুক্ত মতিউর রহমানকে ফোন দিলে তিনি বলেন, আমি পাটলাই নদীতে অবৈধভাবে টাকা নেই না, শ্রীপুর বজার নদীঘাট ইউএও অফিস থেকে ইজারা নিয়েছি, প্রতি নৌকা প্রতি নয়শত টাকা হারে টুল নেয়ার রেট আছে, চার্ট টাঙ্গানো আছে আমরা নয়শত টাকা করেই নেই। এ ব্যাপারে জানতে চেয়ে তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিজেন বেনার্জীর সরকারী মোবাই ফোন নাম্বারে পর পর কয়েক রার ফোন দিলেও তিনি রিসিভ করেননি।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: