সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
বুধবার, ১২ জুন ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

জনগণ চাইলে নির্বাচন করতেও পারি: জাহাঙ্গীর

ডেইলি সিলেট ডেস্ক ::

গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন না পেয়ে হতাশ হয়েছেন সাময়িক বরখাস্ত হওয়া মেয়র জাহাঙ্গীর আলম। তবে তিনি নাগরিকদের নিরাশ করতে চান না। মনোনয়ন না পাওয়ার পর প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেছেন, আমি জনগণের জন্য রাজনীতি করি। জনগণকে নিয়েই আমার সব কর্মকাণ্ড। ফলে জনগণ চাইলে নির্বাচন করতেও পারি।

আসন্ন গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আজমত উল্লা খান। এখানে মেয়র পদে আজমত উল্লা, জাহাঙ্গীর আলমসহ আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের ১৭ নেতা মনোনয়নপ্রত্যাশী ছিলেন।

শনিবার দলীয় মনোনয়ন ঘোষণার পর দুপুরে গাজীপুরের ছয়দানা এলাকায় জাহাঙ্গীর আলমের বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, তেমন কোনো নেতাকর্মী নেই। অল্প কয়েকজন তার সঙ্গে কথা বলার জন্য অপেক্ষা করছেন। তারা সবাই একরকম স্তব্ধ হয়ে বসে আছেন। অনেকেই বলছেন, এমনটা তারা আশা করেননি।

দলীয় মনোনয়নের বিষয়ে জানতে চাইলে জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আমি যেহেতু রাজনীতি করি, তাই জনগণ যা চায়, তাই করব। এলাকার নাগরিক ও ভোটার যদি চায়, তবে আমি তাদের নিরাশ করব না। তারা চাইলে আমি নির্বাচন করব।

জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আমি সারা জীবন রাজনীতি করেছি। তাদের (ভোটার) আমি ভোট নিয়েছি তাদের শহর করে দেয়ার জন্য। তাই তারা চাইলে আমি জীবন দিতেও প্রস্তুত। আমার নাগরিকদের আমি কষ্ট দেব না। এতে আমি ফাঁসিতেও যেতে পারি, জেল হতে পারে, মৃত্যুবরণও করতে পারি। আমার নাগরিকেরা যেহেতু আমাকে ভালোবেসেছে, তাদের চোখের পানি আমি দেখেছি। সে হিসেবে আমি তাদের নিরাশ করব না।

২০২১ সালের ২৫ নভেম্বর জাহাঙ্গীরকে মেয়র পদ থেকে বরখাস্ত করে প্রজ্ঞাপন জারি করে স্থানীয় সরকার বিভাগ। প্রজ্ঞাপনে জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে ভুয়া দরপত্র, নির্দিষ্ট কোম্পানিকে দর দেয়ার অনুরোধসংক্রান্ত (আরএফকিউ) দরপত্রে অনিয়ম, বিভিন্ন পদে অযৌক্তিক লোকবল নিয়োগ, বিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে ভুয়া বিলভাউচারের মাধ্যমে ও একই কাজ বিভিন্ন প্রকল্পে দেখিয়ে অর্থ আত্মসাৎ, প্রতিবছর হাটবাজার ইজারার টাকা যথাযথভাবে নির্ধারিত খাতে জমা না রাখাসহ নানাবিধ অভিযোগ উত্থাপিত হয়েছে।

এর আগে ১৯ নভেম্বর আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠকে জাহাঙ্গীর আলমকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়। জাহাঙ্গীর আলম গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। তার বিরুদ্ধে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ আনা হয়। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে জাহাঙ্গীর আলমের কিছু বিতর্কিত মন্তব্যসংবলিত ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পরই গত ৩ অক্টোবর জাহাঙ্গীর আলমকে শোকজ করা হয়। পরে তিনি ক্ষমা চাইলে দলীয় পদ ফিরে পান।

জেলা নির্বাচন কার্যালয়ের তথ্যানুযায়ী, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ৫৭টি ওয়ার্ডে মোট ভোটার ১১ লাখ ৮৪ হাজার ৩৬৩ জন। মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ২৭ এপ্রিল। মনোনয়নপত্র বাছাই ৩০ এপ্রিল, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ৮ মে। আগামী ২৫ মে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Comments are closed.

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: