সর্বশেষ আপডেট : ১৭ ঘন্টা আগে
বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

সিলেটে চিরকুটসহ স্বামী-স্ত্রী’র ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার :

সিলেটের পাঠানটুলা এলাকার একটি ভাড়া বাসা থেকে স্বামী-স্ত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তারা হচ্ছেন সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলার রাজাবাজ গ্রামের রুকুনি তালুকদারের ছেলে রিপন তালুকদার ও তার স্ত্রী শিপা দাস।

এসময় পুলিশ একটি চিরকুটও উদ্ধার করে । চিরকুটে লেখা ছিল—আমার পাপের প্রায়শ্চিত্ত করেছি, তোমরা আমার সন্তানকে খেয়াল রেখো। তবে চিরকুটটি কার লেখা এখনো নিশ্চিত হতে পারেনি পুলিশ।

জানা গেছে, রোববার (৬ অক্টোবর) দুপুরে নগরীর পাঠানটুলা পল্লবী আ/এসি-২৫ নম্বর বীরেন্দ্র দেবের ভাড়া বাসার শয়নকক্ষ থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। রিপন একটি বেসরকারি কোম্পানিতে চাকরি করতেন। এই দম্পতির দুই বছরের একটি শিশু সন্তান রয়েছে। তার নাম ঋত্বিক তালুকদার।

জালালাবাদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাজমুল হুদা খান বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

প্রতিবেশিরা জানান, প্রায় সাত মাস ধরে এক সন্তান নিয়ে এই দম্পতি এই বাসায় ভাড়া থাকতেন। আজ সকাল ৯টার দিকে বন্ধ ঘরে শিশুটির কান্না শুনতে পান তারা। বাহির থেকে অনেক ডাকাডাকি করার পর ভেতর থেকে কোনো সাড়াশব্দ না পাওয়ায় ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে জানানো হয়। এরপর পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে।

শিপা দাসের ভাই নিবারণ দাস বলেন, ‘ধারণা করছি, আমার বোনকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে এরপর ভগ্নিপতি রিপন আত্মহত্যা করেছে। কিন্তু কেন এমন করলো বিষয়টি জানি না।

ওসি নাজমুল হুদা খান জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। কেন তারা আত্মহত্যা করেছেন, সে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। উদ্ধার হওয়া চিরকুটটি নিয়েও তদন্ত চলছে। এর সঙ্গে অন্য কোনো বিষয় জড়িত আছে কি না তাও দেখা হচ্ছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Comments are closed.

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: