সর্বশেষ আপডেট : ১৭ মিনিট ৫৪ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

নকল ভেবে সাড়ে ২৩ কোটি টাকার ডায়মন্ড ফেলে দিচ্ছিলেন তিনি

ইংল্যান্ডের নর্দামবারল্যান্ডের এক নারী ঘর পরিষ্কারের সময় নকল ভেবে ‍দুই মিলিয়ন পাউন্ড (২৩৪২৭৩৫৯১ টাকা) মূল্যের একটি ডায়মন্ড ফেলে দিচ্ছিলেন। পরে পরীক্ষা করে দেখা যায় ডায়মন্ডটি মূল্যবান ৩৪ কেরেটের। এক পাউন্ড কয়েনের চেয়ে বড় এই ডায়মন্ডটি এই নভেম্বরে নিলামে তোলার কথা।

৭০ বছর বয়সী ওই নারী ঘর থেকে অ’প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ফেলে দিচ্ছিলেন। সে সময় অনেক বছর ধরে পড়ে থাকা কিছু জুয়েলারি বিক্রি করতে কার বোটে (গৃহস্থালি ও বাগানের জিনিসপত্র বিক্রির জায়গা) যাচ্ছিলেন তিনি। খবর বিবিসি অনলাইনের।

নর্থ শেইল্ডের নিলাম প্রতিষ্ঠান ফিয়েটনবির মা’র্ক ল্যান বলেন, ওই নারী এক ব্যাগ জুয়েলারি নিয়ে এমনভাবে এসেছিলেন যে তিনি এই দিক দিয়ে অন্য কারও সঙ্গে দেখা করতে যাচ্ছেন। তাই সঙ্গে করে এইগুলো নিয়ে আসছেন। যাওয়ার পথে ফিয়েটনবিতে সেগুলো দিয়ে যাবেন।

তিনি বলেন, আমি ওই ব্যাগে তার বিয়ের আংটিসহ কম’দামি কিছু জুয়েলারি পাই। সেই সময় আম’রা এক পাউন্ড কয়েনের চেয়ে কিছু বড় একটি ডায়মন্ডের পাথর পাই। তবে আমাদের মনে হয়েছিল এটা কিউবিক জিরকুনিয়ার তৈরি যা দেখতে অনেকটা ডায়মন্ডের মতো। ডায়মন্ড পরীক্ষার মেশিনে এটা পরীক্ষার আগে দুই-তিন দিন ফেলে রাখি। আসল ডায়মন্ড হিসেবে বেলজিয়ামের এন্টওয়ার্প থেকে বিশেষজ্ঞদের সার্টিফিকেট পাওয়ার আগে আম’রা এটা লন্ডনে আমাদের ব্যবসায়িক অংশীদারের কাছে পাঠাই পরীক্ষার জন্য। পরে এন্টওয়ার্পের বিশেষজ্ঞরা নিশ্চিত করেন এটা ৩৪ কেরেটের ডায়মন্ড।

ডায়মন্ডের ওজনের ওপর তার কেরেটের পরিমাণ নির্ভর করে। ভা’রি ডায়মন্ড উচ্চ কেরেটের হয় এবং এর দামও বেশি। ল্যান বলেন, নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ডায়মন্ডটির মালিক মনে করতে পারছেন না কখন এবং কী’ভাবে তিনি এটা পেয়েছিলেন। তিনি সব সময় আমাদের এখানে বিভিন্ন পুরোনো জুয়েলারি বিক্রি করতে আসেন। কিন্তু কখনো ভাবেননি এটা আসল ডায়মন্ড। তিনি আমাদের বলেছেন, তিনি অ’প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ফেলে দিচ্ছিলেন। এটাও প্রায় ময়লার ঝুড়িতে ফেলে দিচ্ছিলেন। কিন্তু তার এক প্রতিবেশী এটা আমাদের এখানে দেখানোর কথা বলায় তিনি তা ফেলেননি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Comments are closed.

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: