সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
শনিবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

৭৪০টি মাদ্রাসা বন্ধের সিদ্ধান্ত আসাম সরকারের

ভারতের আসাম রাজ্যে সরকার পরিচালিত সব মাদ্রাসা ও টোল (সংস্কৃত স্কুল) বন্ধ করার প্রস্তাব অনুমোদন করেছে রাজ্য সরকার। মাদ্রাসা বোর্ডকে বিলুপ্ত করে রাজ্যের ৭৪০টি মাদ্রাসাকে সাধারণ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরিত করা হবে। এছাড়া, রাজ্যের ৯৮টি সংস্কৃত টোলকে শিক্ষাকেন্দ্র, গবেষণাকেন্দ্র এবং গবেষণা ইনস্টিটিউটে রূপান্তরিত করা হবে।

গতকাল মঙ্গলবার আসাম রাজ্যের একজন মন্ত্রীর বরাত দিয়ে এ খবর প্রকাশ করেছে সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

আসামে ১৯৮টি উচ্চ মাদ্রাসা রয়েছে যা আসামের মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের (এসইবিএ) অধীনে পরিচালিত হয়। এছাড়াও ৫৫২টি মাদ্রাসা আছে যেগুলো রাজ্য মাদ্রাসা বোর্ডের অধীনে পরিচালিত হয়।

আসামের শিক্ষামন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শার্মা গত সোমবার বলেন, ‘মাদ্রাসাগুলোর নাম পরিবর্তন করা হবে এবং মাদ্রাসা শব্দটি ফেলে দেওয়া হবে। যাতে উচ্চতর শিক্ষাকেন্দ্র হিসেবে আত্মপ্রকাশ করতে পারে প্রতিষ্ঠানগুলো এবং এ নিয়ে কোনো বিভ্রান্তি না ছড়ায়।’

হিমন্ত বিশ্ব শার্মা আরও বলেন, ‘গত রোববার আসাম মন্ত্রিসভা শিক্ষা ব্যবস্থায় সংস্কারের সিদ্ধান্ত নেয়। শিক্ষা ব্যবস্থা ধর্মনিরপেক্ষ করার জন্য এই সমস্ত উচ্চ মাদ্রাসা এবং মাদ্রাসাগুলোর কাজ বন্ধ করা হবে। এবং এই ধরনের প্রতিটি প্রতিষ্ঠানকে সাধারণ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে রূপান্তর করা হবে।’

এর আগে গত অক্টোবরে রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা জানান, আসামে রাজ্য সরকার পরিচালিত মোট ৬১০টি মাদ্রাসা রয়েছে। আর এগুলোর জন্য রাজ্য সরকারের বার্ষিক ব্যয় ২৬০ কোটি রুপি।

আসাম রাজ্য সরকারের মুখপাত্র চন্দ্র মোহন পাটোয়ারি জানান, আগামী ২৮ ডিসেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া রাজ্য পার্লামেন্টের শীতকালীন অধিবেশনে এ সংক্রান্ত বিল আনা হবে বলেও জানান তিনি।

১৯৩৪ সালে আসামের শিক্ষা কার্যক্রমের সঙ্গে মাদ্রাসা চালু হয়েছিল এবং তখন রাজ্য মাদ্রাসা বোর্ডও তৈরি হয়। ২০১৭ সালে মাদ্রাসার পাশাপাশি সংস্কৃত কেন্দ্র বোর্ডকে মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের সঙ্গে একীভূত করে আসাম সরকার। এবারে সেগুলো পুরোপুরি বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। দীর্ঘদিন ধরে চলা ধর্মীয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ করে দেওয়ার সমালোচনা করছেন অনেকেই।সুত্র : আমাদের সময়

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: