সর্বশেষ আপডেট : ১৩ ঘন্টা আগে
বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

আসামি ছিনিয়ে নিতে থানায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার হামলা

ডেইলি সিলেট ডেস্ক ::

হত্যা মামলার আসামি ছিনিয়ে নিতে থানায় সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছে বগুড়ার শাহাজানপুর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক এবং মাঝিড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান। বগুড়ার শাজাহানপুর থানায় শনিবার রাত সাড়ে ১০ টার দিকে এ হামলা চালানো হয়। এতে ৫ থেকে ৬ জন পুলিশ সদস্য গুরুতর আহত হন। এর মধ্যে দুই জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় নুরুজ্জামানসহ ৮জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

থানা পুলিশ সূত্র জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এসআই অরুপ আনিছুর রহমানের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল শনিবার রাত ৯টায় আড়িয়া বাজারে এলাকায় অভিযানে ২টি বার্মিজ চাকু ও দেশীয় অস্ত্রসহ মিঠুনকে গ্রেফতার করে। মিঠুন আড়িয়া ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক। তার নামে হত্যা মামলাসহ বেশ কয়েকটি মামলা চলমান। এ ঘটনায় পর রাত ১০ টার দিকে মাঝিড়া ইউপি চেয়ারম্যান নুরুজ্জামানসহ ৪০ জনের একটা দল আসামি ছিনতাই করতে শাজাহানপুর থানার প্রবেশ করে তাণ্ডব চালাতে থাকে। ডিউটিরত অবস্থায় খবর পেয়ে অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শহিদুল ইসলাম তাৎক্ষণিক থানায় প্রবেশ করলে নুরুজ্জামানসহ তার সঙ্গীরা সিঁড়িতে বসে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে। ওসি শহিদুল ইসলাম সড়ে দাঁড়াতে বললে নুরুজ্জামান থানার ভিতরে ওসিকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়।

এরপর নুরুজ্জামানসহ তার দলবল নিয়ে পুলিশের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় থানা পুলিশের ৫ থেকে ৬ জন সদস্য আহত হয়। এরপর সন্ত্রাসীরা সেখান থেকে পালিয়ে যায়।

পরে নুরুজ্জামান আরও লোকজন নিয়ে সংঘবদ্ধ হয়ে আবারও আক্রমণ করতে ঢাকা-বগুড়া মহাসড়ক মাঝিড়াস্থ মাটির কাছে অবস্থান নেয়। এসময় জেলা পুলিশ, র‌্যাব ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাবাহিনীর সদস্যরা নুরুজ্জামানসহ তার সহযোগী ৪ থেকে ৫ জনকে তাৎক্ষণিক আটক করেন। পরে আরও কয়েকজনকে আটক করে পুলিশ।

নুরুজ্জামানের বিরুদ্ধে হত্যা, অস্ত্র, জমি দখল, সরকারি কাজে বাঁধা, মাদক আইনে অন্তত ৮-১০টি মামলা রয়েছে বলে পুলিশের দায়িত্বশীল একটি সূত্র জানিয়েছে। এর আগে সরকারি দরপত্র চুরির ঘটনায় নুরুজ্জামান বরখাস্ত হয়েছিলেন।

শাজাহানপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শহিদুল ইসলাম বলেন, মিঠুন নামের ওই যুবককে ২টি বার্মিজ চাকুসহ থানায় ধরে নিয়ে আসলে নুরুজ্জামান এবং তার লোকজন তাকে থানা থেকে ছিনিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে তারা পুলিশের উপর হামলা চালায়। গতকালকের ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৮জনকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় ২৫ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত কয়েকজনের বিরুদ্ধের মামলা দায়ের হয়েছে। হামলায় ৭-৮ জন পুলিশ সদস্য আহত হন। তাদের মধ্যে ২ জন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: