সর্বশেষ আপডেট : ২২ ঘন্টা আগে
বুধবার, ১২ জুন ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

বিরোধীদল দমনে বিচার বিভাগকে অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করছে সরকার: ফখরুল

ডেইলি সিলেট ডেস্ক ::
বর্তমান ফ্যাসিস্ট সরকার বিরোধীদলকে দমনে বিচার বিভাগকে অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন। দেশের সাম্প্রতিক রাজনৈতিক অবস্থা জানাতে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে দলটি।

বিএনপি ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও ডাক্তার জুবাইদা রহমানের সাজার প্রতিবাদে আগামীকাল শুক্রবার বাদ জুমা রাজধানীসহ সারাদেশের জেলা-মহানগরে প্রতিবাদ সমাবেশ করবে বিএনপি।

মির্জা ফখরুল বলেন, এ ফ্যাসিবাদী সরকার দমন নিপীড়নে সব চেয়ে বেশি ব্যবহার করছে বিচার বিভাগকে। গণতন্ত্র, ভোটাধিকার আন্দোলনকে দমন করার জন্য এই সরকার বিচার বিভাগকে ব্যবহার করে যাচ্ছে। এমন দেখা যায় কোন মামলা জজকোর্ট থেকে সুপ্রিমকোর্ট গেলে আরও রায় বাড়ে, অথচ আওয়ামী লীগ সরকারের অনেক মন্ত্রী একইভাবে সাজা প্রাপ্ত হয়েও তারা মন্ত্রিত্বে বহাল আছেন।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, তারেক রহমান দেশের একজন জনপ্রিয় নেতা। তিনি এই আন্দোলনকে সঠিক খাতে নিয়ে যাচ্ছে ঐক্যবদ্ধ করে, সেই নেতাকে রাজনৈতিক হিংসা পরায়ণ হয়ে তার মামলার রায় দিয়েছে সরকার। এমনি তার স্ত্রীকে এই রায় দেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, জাতিকে চিরস্থায়ীভাবে সংঘাত দিকে ফেলে দিতে এই বিচার বিভাগকে ব্যাবহার করা হচ্ছে বর্তমান অবৈধ আওয়ামী সরকার। ফ্যাসিস্ট সরকার এইটাকেই অস্ত্র হিসেবে ব্যাবহার করছে।

তারেক রহমানের বিরুদ্ধে এই ফরমায়েশি রায় দেশের মানুষ প্রত্যাখ্যান করেছে। সারাদেশের মানুষ এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বলে জানান বিএনপি মহাসচিব।

তিনি বলেন, আমাদের বর্তমান আন্দোলন চলমান আন্দোলন। এ আন্দোলন তারেক রহমানের রায় দিয়ে ও হয়রানি করে স্তব্ধ করা যাবে না। এ দেশের মানুষ বিজয় ছাড়া এবার ঘরে ফিরবে না।

ডিবি প্রধান হারুন অর রশিদ এর এক কথা প্রসঙ্গে গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, আমার পুলিশের ছুঁড়ে মারা ইটের আঘাতে মাথা ফেটে যায়। তারপর আমাকেসহ কয়েকজন নেতাকর্মীকে পুলিশ লাঠি দিয়ে পিটিয়েছে এটা সবাই দেখেছেন।

ডিবি কার্যালয়ে ঘটনা তুলে ধরে তিনি বলেন, সরকার একটা অপরাধ করার পর হাজারো নাটক করে থাকে সেটাকে ঢাকার চেষ্টা করার জন্য।। কিন্তু সত্যকে কখনো মিথ্যা দিয়ে ঢাকা যায় না। এটাই সত্য।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, মঈন খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী প্রমুখ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: