সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

‘‘১০০০ টাকা মূল্যমানের লাল নোট অচল হচ্ছে’’ তথ্যটি গুজব

স্টাফ রিপোর্টার :

‘‘বিশেষ দৃষ্টি আকর্ষণ’’ শিরোনামে ১০০০ টাকার লাল নোট অচল হচ্ছে এমন একটি সংবাদ সম্প্রতি ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপসহ অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে ছড়িয়ে পড়েছে। যা নিয়ে সরব নেটপাড়া। অনেকেই আবার বিষয়টিকে সত্য ভেবে নিকটজনের মাঝে শেয়ার করছেন। সংবাদটিকে বাংলাদেশ ব্যাংক গুজব/বিভ্রান্তিকর বলে অবিহিত করেছে।

‘‘বিশেষ দৃষ্টি আকর্ষণ’’ শিরোনামের ভূয়া সংবাদটিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশক্রমে ১০০০ টাকা মূল্যমানের লাল নোট লেনদেনের সর্বশেষ সময়সীমা ৩০/০৫/২০২২ ইং তারিখ পর্যন্ত। এরপর আর কোনো ১০০০ টাকা মূল্যমানের লাল নোট ব্যাংকে জমা নেয়া হবে না। সুতরাং ৩০/০৫/২০২২ ইং তারিখ দুপুর ১২.০০ টার মধ্যে ১০০০ টাকা মূল্যমানের লাল নোট ব্যাংকে জমাদানের জন্য নির্দেশ প্রদান করা হলো।

পরবর্তী দিন হতে ১০০০ টাকা মূল্যমানের লাল নোট অচল বলে গণ্য হবে।

লেখার শেষ দিকে অস্পষ্ট সীলমোহর থেকে ‘মো: একাব্বর আলী’ ‌‌’বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক’ এবং ‘জামালপুর’ শব্দগুলো ছাড়া অন্য শব্দগুলোর পাঠোদ্ধার সম্ভব হয়নি।

এদিকে বাংলাদেশ ব্যাংক বিষয়টিকে আমলে নিয়ে বুধবার (১১মে) গণমাধ্যমে একটি বিজ্ঞপ্তি প্রেরণ করে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রধান কার্যালয় মতিঝিল ঢাকার ডিপার্টমেন্ট অব কমিউনিকেশন্স এন্ড পাবলিকেশন্স-এর মহাব্যবস্থাপক (সহকারী মুখপাত্র, বাংলাদেশ ব্যাংক) জী. এম. আবুল কালাম আজাদ স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে ১০০০ টাকার লাল নোট সম্পর্কে ছড়িয়ে যাওয়া তথ্যকে গুজব এবং বিভ্রান্তিকর হিসেবে অবিহিত করা হয়েছে।

সূত্রনং : ডিসিপি(পিআর)০৫/২০২২-১৩১-এর বিজ্ঞপ্তিতে ”১০০০ টাকা মূল্যমানের লাল নোট প্রসঙ্গে” শিরোনামের লেখাটি পাঠকের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো:

বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক ১০০০ টাকা মূল্যমানের লাল নোট আগামী ৩০-০৫-২০২২ তারিখের পর অচল হিসেবে গণ্য হবে মর্মে সম্প্রতি বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এবং লনলাইন প্ল্যাটফর্মে গুজব/বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রচারিত হচ্ছে যা বাংলাদেশ ব্যাংকের দৃষ্টিগোচর হয়েছে।

এক্ষণে, জনসাধারণের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক ১০০০ টাকা মূল্যমানের লাল নোট বা অন্য কোনো নোট অচল হিসেবে ঘোষণা করা হয়নি। তদপ্রেক্ষিতে, জনসাধারণকে উক্ত গুজব/বিভ্রান্তিকর তথ্য আমলে না নেওয়ার জন্য অনুরোধ করা যাচ্ছে।

বিষয়টি নিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক সিলেটের উপমহাব্যবস্থাপক ও তথ্য প্রদানকারী কর্মকর্তা খালেদ আহমদ বলেন, এটি আসলে মিথ্য সংবাদ। সম্পূর্ণ ভূয়া, গুজব এবং বিভ্রান্তিকর এমন তথ্য প্রচারণা থেকে সকলকে বিরত থাকার আহবান জানান এই কর্মকর্তা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: