সর্বশেষ আপডেট : ৪৭ মিনিট ৫৬ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

শ্রীমঙ্গলে কমিউনিটি ভিত্তিক শিশু সুরক্ষা কমিটির ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠিত

ইনস্টিটিউট অব ডেভেলপমেন্ট এফেয়ার্স আইডিয়া’র উদ্যেগে এডুকো বাংলাদেশ ও চাইল্ড ফান্ড কোরিয়া-এর আর্থিক সহযোগিতায় শ্রীমঙ্গল উপজেলার বর্মাছড়া চা-বাগানে আলোয়-আলো প্রকল্পের কার্যক্রমের অংশ হিসেবে কমিউনিটি ভিত্তিক শিশু সুরক্ষা কমিটির ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠিত হয়।

মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত ওরিয়েন্টেশনে শিশু সুরক্ষা কমিটি গঠণের উদ্দেশ্য, গঠন প্রক্রিয়া ও কমিটির সদস্যবৃন্দের দায়িত্ব ও কর্তব্য বিষয় বিস্তারিত আলোচনার পাশাপাশি কমিউনিটির বিভিন্ন পর্যায়ে শিশুর প্রতি দূব্যবহার, নির্যাতন ও শাস্তির ধরণ, জাতিসংঘ শিশু অধিকার সনদের মূলনীতি, শিশুর প্রতি দূর্ব্যবহার, শাস্তি ও নির্যাতনের প্রভাব নিয়ে আলোচনা করা হয়।

প্রকল্প কর্মকর্তা জাহিদুল ইসলাম ভূঁইয়া তার আলোচনায় উল্লেখ করেন শিশু নির্যাতন পরিহার করে যোগ্য পিতামাতা হওয়ার ক্ষেত্রে আমাদের যেসকল বিষয় নজর দিতে হবে তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে; শিশুকে যতটা সম্ভব ততটা ভালবাসা আর আদর করতে হবে, শিশুর আচরণ কেমন হবে তা শেখানোর জন্য অভিভাবককে সেই আচরণ করে দেখাতে হবে এবং কারন ব্যাখ্যা করতে হবে, শিশুর ভাল ব্যবহারের জন্য প্রশংসা করতে হবে, কোন কোন সময় শিশুদের পছন্দ করার স্বাধীনতা দিতে হবে এবং বড়দের সাথে সিদ্ধান্তের সমন্বয় করার জন্য উৎসাহিত করতে হবে।

অন্যমনস্ক শিশুদের জটিল পরিস্থিতিতে শাস্তির পরিবর্তে রসবোধের দ্বারা বিষয়টিকে সরলভাবে উপস্থাপন করতে হবে। শিশু সুরক্ষায় শিশুর করণীয় বিষয় আলোচনা করতে গিয়ে উল্লেখ করা হয় যে, সুরক্ষামূলক আচরণ সম্পর্কে জানার পাশাপাশি চর্চা করার পাশাপাশি নির্যাতনকারী এবং নির্যাতিত হবার পরিস্থিতি এড়িয়ে চলতে হবে। নিজে বা অন্য কোন শিশু নির্যাতনের শিকার হলে; এবং যে কোন বিষয়েই মাতাপিতা বা প্রিয় শিক্ষক বা শিশু সুরক্ষা কমিটির যেকোন সদস্যকে বিনা সংকোচে জানানোর পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।

সবশেষে শিশু নির্যাতন ঘটলে কোথায় এবং কার কাছে জানাতে হবে সে বিষয় আলোচনা করতে গিয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ হেল্পলাইন ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ হেল্পলাইন এর বিষয় উল্লেখ করা হয়।

কমিউনিটি ভিত্তিক শিশু সুরক্ষা কমিটির সদ্যবৃন্দের কার্যক্রম কি হবে এমন এক প্রশ্নের উত্তরে বলা হয়, কমিটির সদ্যবৃন্দ উল্লেখযোগ্য কাজগুলো হবে: শিশুর শিক্ষা নিশ্চিতকরণে সহায়তা করা; ঝুঁকিপূর্ণ কাজ থেকে শিশুকে সুরক্ষা করা; শিশু যাতে বিপদাপন্ন অবস্থায় না পড়ে তার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা; উপযুক্ত শিশুদের বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণের সুযোগ করে দেয়া এবং পরিবারকে আয়বৃদ্ধিমূলক কর্মকান্ডে অংশগ্রহণে সহায়তা করা; সামাজিক কর্মকান্ড, বিনোদন ইত্যাদিতে শিশুর অংশগ্রহণে বৃদ্ধিতে পদক্ষেপ গ্রহণ করা; শিশুর শারীরিক, মানসিক, যৌন নির্যাতন, হয়রানী ও শোষণ, পাচার থেকে শিশুকে সুরক্ষা করার ক্ষেত্রে কমিউনিটি ভিত্তিক কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করা; বাল্যবিবাহ থেকে শিশুর সুরক্ষা প্রদান এর ক্ষেত্রে সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করা; উপজেলা চাইল্ড প্রটেকশন নেটওয়ার্ক কমিটির সাথে যোগাযোগ বজায় রাখা।

উক্ত কার্যক্রমটি আলোয়-আলো প্রকল্প মৌলভীবাজার ও শ্রীমঙ্গল উপজেলার ৩০টি চা-বাগান ও ০২টি হাওর এলাকায় সহযোগী সংস্থার মাধ্যমে বাস্তবায়ন করিতেছে। প্রশিক্ষণে আরও উপস্থিত ছিলেন হিলু কান্তি রায়, উত্তম নায়েক, কিরণ গোয়ালা, অঞ্জনা চক্রবর্তী, পঞ্চায়েত সভাপতি মিষ্ঠু বাগতি, কমিউনিটি প্রমোটার প্লাবন তাঁতী, ফ্যাসিলিটেটর কাকলী চন্দ প্রমূখ। বিজ্ঞপ্তি

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: