সর্বশেষ আপডেট : ৯ ঘন্টা আগে
শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

ইরানের প্রেসিডেন্ট,পররাষ্ট্রমন্ত্রীর নিহত হওয়ার ঘটনায় বিশ্বনেতাদের প্রতিক্রিয়া

ডেইলি সিলেট ডেস্ক :: 

ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি ও দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির আব্দুল্লাহিয়ান হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন।

আজ সোমবার বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে এমনটিই দাবি করা হয়েছে।

রবিবার সন্ধ্যায় রাইসি ও আমির আব্দুল্লাহিয়ানকে বহনকারী হেলিকপ্টারটি দুর্ঘটনার শিকার হয়।
ইরানি প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসিকে বহনকারী হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের ঘটনায় মধ্যপ্রাচ্যসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নেতারা সহমর্মিতা ও উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

দুর্ঘটনার আগে আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভ ইরান-আজারবাইজান সীমান্তের দুটি বাঁধ উদ্বোধনের জন্য রাইসির সঙ্গে ছিলেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এক্স হ্যান্ডেলে তিনি লিখেছেন, ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসিকে বন্ধুত্বপূর্ণ বিদায় জানানোর পর ইরানের শীর্ষ প্রতিনিধিদলকে বহনকারী একটি হেলিকপ্টারের ক্র্যাশ-ল্যান্ডিংয়ের খবরে আমরা গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। ইব্রাহিম রাইসি ও তার সঙ্গীদের জন্য প্রার্থনা করছি। আজারবাইজান এ ঘটনায় যেকোনও সহায়তা দিতে প্রস্তুত।

আর্মেনীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক্স অ্যাকাউন্টে একটি পোস্টে শোক প্রকাশ করে জানায়, রাষ্ট্রপতি রাইসি এবং মন্ত্রী আমির আব্দুল্লাহিয়ানের জন্য আমরা প্রার্থনা করছি। উদ্ধার অভিযান চলাকালীন সময় ইরানের ঘনিষ্ঠ ও বন্ধুত্বপূর্ণ প্রতিবেশী হিসেবে আর্মেনিয়া প্রয়োজনীয় সব ধরনের সহায়তা দিতে প্রস্তুত।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন বলেছে, তারা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছে এবং ইরানের প্রেসিডেন্টের পাশাপাশি পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং তাদের দলের অন্যান্য সদস্যদের জড়িত বিমানের ঘটনার রিপোর্টগুলো অনুসরণ করছে।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ান এ ঘটনায় সহানুভূতি প্রকাশ করেছেন এবং বলেছেন, তিনি ঘটনার বিষয়ে সব রকমের অগ্রগতি অনুসরণ করছেন। প্রেসিডেন্ট রাইসি এবং তার কর্মীদের জন্য অনুসন্ধান ও উদ্ধার অভিযানে সহায়তার জন্য ইরানে একটি দল প্রেরণের ঘোষণা দেয় তুরস্কের দুর্যোগ ও জরুরি ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরীফ, রাষ্ট্রপতি আসিফ আলি জারদারি এবং সংসদের স্পিকার সরদার আয়াজ সাদিক পৃথক বার্তায় প্রেসিডেন্ট রাইসি এবং তার সফরসঙ্গীদের সঙ্গে হওয়া দুর্ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। তারা রাইসির জন্য প্রার্থনা করেছেন এবং এ কঠিন সময়ে ইরানি জাতির সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করেছেন।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এক্স হ্যান্ডেলে এক বার্তায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, আমরা এ দুঃসময়ে ইরানি জনগণের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করছি।

এ ঘটনায় আফগানিস্তানও প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে। আফগানিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় টেলিগ্রাম চ্যানেলে জানায়, তারা ইরানের প্রেসিডেন্ট এবং তার সহগামী দল সম্পর্কে প্রতিবেদনগুলো অনুসরণ করছে।

ইরাকের প্রেসিডেন্ট আবদুল লতিফ রশিদ উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, তিনি বাগদাদে ইরানের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে ঘটনাটি নিয়ে আলোচনা করেছেন। ইরানের ভাইস প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মোখবারের সঙ্গে টেলিফোনে কথোপকথনও করেছেন এবং ইরাকি সরকার ও জনগণের পক্ষ থেকে প্রেসিডেন্ট রাইসি ও তার সঙ্গে থাকা প্রতিনিধিদলের জন্য সহমর্মিতা জানিয়েছেন।

পৃথকভাবে ইরাকের প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ শিয়া’ আল সুদানী ইরাকের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির পাশাপাশি অন্যান্য সংশ্লিষ্ট সংস্থাকে প্রেসিডেন্ট রাইসির নিখোঁজ হেলিকপ্টার খুঁজে পেতে সহায়তার জন্য প্রয়োজনীয় পরিষেবা সরবরাহের নির্দেশ দেন।

ইরাকের কুর্দিস্তান অঞ্চলের শীর্ষ কর্মকর্তারাও এ দুর্ঘটনার প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। প্রেসিডেন্ট নেচিরভান বারজানি এবং প্রধানমন্ত্রী মাসরুর বারজানি পৃথক বার্তা জারি করে বলেন, তারা ইরানি জনগণের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করছেন।

সৌদি আরবও গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।

মিশরের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে ইরানের প্রেসিডেন্টের হেলিকপ্টারের দুর্ঘটনার বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে এবং তেহরানের সঙ্গে কায়রোর সংহতির ওপর জোর দিয়েছে।

লেবাননের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে এ বিয়োগান্তক ঘটনায় ইরানের সরকার ও জনগণের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেছে।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে ঘোষণা করেছে- ইরানের প্রেসিডেন্ট ও তার প্রতিনিধিদলকে বহনকারী একটি কপ্টার বিধ্বস্ত হওয়ার খবরটি তারা অত্যন্ত উদ্বেগের সঙ্গে অনুসরণ করছে।

ওমানের সরকারি বার্তা সংস্থা এক বিবৃতিতে ইরানের প্রেসিডেন্টকে বহনকারী হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে এবং বলেছে যে তেহরানকে যেকোনও সাহায্য দিতে তারা প্রস্তুত রয়েছে।

জর্ডান, কাতার, কুয়েত, ইয়েমেন, রাশিয়া এবং ভেনিজুয়েলা সবাই তাদের উদ্বেগ প্রকাশ করেছে এবং বলেছে যে তারা ইরানি জাতির পাশে আছে।

ইতালির পররাষ্ট্রমন্ত্রী আন্তোনিও তাজানি এক বার্তায় বলেন, আমি তেহরানের ক্রাইসিস ইউনিট ও দূতাবাসের মাধ্যমে ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসির হেলিকপ্টার এবং তার সঙ্গে আসা প্রতিনিধি দলের খবর অনুসরণ করছি। তাজানি আরও বলেন, তিনি প্রধানমন্ত্রী জর্জিয়া ম্যালোনিকে ইরানের রাষ্ট্রপতি ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং তাদের সহকারী প্রতিনিধিদলকে বহনকারী হেলিকপ্টারটির হার্ড ল্যান্ডিং ঘটনার অগ্রগতি অনুসরণ করছেন।

ফিলিস্তিনের প্রতিরোধ আন্দোলন, ইসলামিক জিহাদ এবং হামাস ইরানের প্রেসিডেন্টের কপ্টার বিধ্বস্তের খবরে উদ্বেগ প্রকাশ করে পৃথক বিবৃতি জারি করেছে। হামাস ইসলামী বিপ্লবের সর্বোচ্চ নেতার পাশাপাশি ইরানের জনগণ ও সরকারের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে জানায়, তারা উদ্বেগের সঙ্গে এ ঘটনার বিষয়ে অগ্রগতি অনুসরণ করছে।

ইসলামিক জিহাদও ইরানি জাতির সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে এবং ইরানের প্রেসিডেন্ট ও তার সঙ্গীদের নিরাপত্তার জন্য প্রতিরোধ আন্দোলনের কথা বলে।

পপুলার ফ্রন্ট ফর দ্য লিবারেশন অব ফিলিস্তিন এক বার্তায় জানিয়েছে, ইরানের প্রেসিডেন্টের হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হওয়ার খবরকে অত্যন্ত উদ্বেগের সঙ্গে অনুসরণ করছে আন্দোলনটি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: