সর্বশেষ আপডেট : ১৪ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

হাসপাতাল ক্লিনিককে মানতে হবে ১০ নির্দেশনা, সিলেটে ৫ স্বাস্থ্যপ্রতিষ্ঠান বন্ধ

বেসরকারি হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার পরিচালনায় ১০ নির্দেশনা জারি করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। বেসরকারি স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠানগুলোকে এখন থেকে এসব নির্দেশনা অবশ্যই পালন করতে হবে বলে গণমাধ্যমে বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পাঠানো আদেশপত্রে উল্লিখিত নির্দেশগুলো হচ্ছে-
১) বেসরকারি ক্লিনিক/হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টি সেন্টারের লাইসেন্সের কপি উক্ত প্রতিষ্ঠানের মূল প্রবেশপথের সামনে দৃশ্যমান স্থানে অবশ্যই স্থায়ীভাবে প্রদর্শন করতে হবে।

২) সকল বেসরকারি স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে উক্ত প্রতিষ্ঠানের যাবতীয় তথ্যাদি সংরক্ষণ ও সরবরাহের জন্য ১ জন নির্ধারিত দায়িত্বপ্রাপ্ত তথ্য কর্মকর্তা/কর্মচারী থাকতে হবে এবং তার ছবি ও মোবাইল নম্বর দৃশ্যমান স্থানে প্রদর্শন করতে হবে।

৩) যে সকল প্রতিষ্ঠানের নাম ডায়াগনস্টিক ও হাসপাতাল হিসেবে আছে কিন্তু শুধুমাত্র ডায়াগনস্টিক অথবা হাসপাতালের লাইসেন্স রয়েছে তারা লাইসেন্সপ্রাপ্ত ব্যতিরেকে কোনোভাবেই নামে উল্লেখিত সেবা প্রদান করতে পারবে না।

৪) ডায়াগনস্টিক সেন্টার/প্যাথলজিক্যাল ল্যাবরেটরিরর ক্ষেত্রে যে ক্যাটারগরিতে লাইসেন্সপ্রাপ্ত শুধুমাত্র সে ক্যাটাগরিতে নির্ধারিত পরীক্ষা-নিরীক্ষা ব্যতীত কোনোভাবেই অন্যান্য পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা যাবে না এবং ক্যাটারগরি অনুযায়ী প্যাথলজি/মাইক্রোবায়োলজি, বায়োকেমিস্টি ও রেডিওলজি বিশেষজ্ঞ নিয়োগ করতে হবে।

৫) বেসরকারি ক্লিনিক/হাসপাতালের ক্ষেত্রে লাইসেন্স-এর প্রকারভেদ ও শয্যা সংখ্যা অনুযায়ী সকল শর্ত বাধ্যতামূলকভাবে বাস্তবায়ন করতে হবে।

৬) হাসপাতাল/ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিয়োজিত সকল চিকিৎসকের পেশাগত ডিগ্রির সনদসমূহ, বিএমডিসি’র হালনাগাদ নিবন্ধন ও নিয়োগপত্রের কপি অবশ্যই সংরক্ষণ করতে হবে।

৭) হাসপাতাল/ক্লিনিকের ক্ষেত্রে যে কোনো ধরনের অপারেশন/সার্জারি/প্রসিডিউর-এর জন্য অবশ্যই রেজিস্টার্ড চিকিৎসককে সার্জনের সহকারী হিসেবে রাখতে হবে।

৮) কোনো অবস্থাতেই লাইসেন্সপ্রাপ্ত/নিবন্ধিত হাসপাতাল ও ক্লিনিক ব্যতীত চেম্বারে অথবা ডায়াগনস্টিক সেন্টারে এ্যানেসথেশিয়া প্রদান করা যাবে না। বিএমডিসি স্বীকৃত বিশেষজ্ঞ অবেদনবিদ (Anesthetist) ছাড়া যে কোনো ধরনের অপারেশন/সার্জারি/Interventional Procedure করা যাবে না।

৯) সকল বেসরকারি নিবন্ধিত/লাইসেন্সপ্রাপ্ত হাসপাতাল/ক্লিনিকে Labor Room Protocol অবশ্যই মেনে চলতে হবে।

১০) নিবন্ধিত/লাইসেন্সপ্রাপ্ত হাসপাতাল/ক্লিনিকে অপারেশন থিয়েটারে অবশ্যই Operation Theatre Etiquette মেনে চলতে হবে।

এদিকে, সিলেটে লাইসেন্সবিহীন অথবা মেয়াদোত্তীর্ণ লাইসেন্সধারী ক্লিনিক, হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টি সেন্টারে নিয়মিত অভিযান চালানো হচ্ছে। সম্প্রতি সিলেটের বিভিন্ন উপজেলায় এমন ৫টি স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। কিছু প্রতিষ্ঠানকে নির্দিষ্ট সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে লাইসেন্স নবায়ন না করলে প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ করে দেওয়া হবে। সিলেট মহানগরের এমন ৬টি প্রতিষ্ঠান সিভিল সার্জন কার্যালয়ের তালিকায় রয়েছে। এছাড়া দুটি টিম নিয়মিত মহানগর ও জেলার বিভিন্ন উপজেলার ক্লিনিক, হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টি সেন্টার পরিদর্শনের মাধ্যমে তদারকি করছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: