সর্বশেষ আপডেট : ২২ মিনিট ৫৪ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

৩০০ আসনে প্রার্থী দিতে চায় বিএনএম

ডেইলি সিলেট ডেস্ক ::
বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আন্দোলন (বিএনএম) আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৩০০ আসনে প্রার্থী দিতে চায়। ইতোমধ্যে প্রার্থী চূড়ান্ত করার কথাও জানিয়েছেন দলটির আহ্ববায়ক অধ্যাপক আব্দুর রহমান খোকন।

শনিবার মহাখালীতে দলের প্রধান কার্যালয়ে সংবাদমাধ্যমের সামনে আসেন বিএনএমের নেতারা। এসময় কথা বলেন দলটির আহ্ববায়ক অধ্যাপক খোকন।

সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বিএনএম এর আহ্ববায়ক বলেন, নির্বাচন কমিশনের সকল শর্ত মেনেই আমরা নিবন্ধন পেয়েছি। উপজেলা, জেলা পর্যায়ে অফিস ও কমিটি রয়েছে। সেই তালিকা আমাদের কাছে আছে, চাইলে আপনারাও দেখতে পারেন। যারা আমাদের সমালোচনা করছেন তাদের রুচি নেই। রুচিহীনরাই কথা বলছেন।

নির্বাচন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, জনগণের স্বার্থে নির্বাচন হলে বিএনএম আগামী নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে। সারা দেশে ৩০০ আসনেই আমরা প্রার্থী ঠিক করে ফেলেছি।

বর্তমানে আহ্বায়ক কমিটি দিয়ে পরিচালিত হয়ে আসা দলটি আগামী মাসেই কাউন্সিল করে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের পরিকল্পার কথাও জানিয়েছে।

একটি বিরোধী রাজনৈতিক দলের নামের সঙ্গে মিল রেখে দলের নামকরণ হয়েছে কি না এমন প্রশ্নে বিএনএম এর আহ্বায়ক খোকন বলেন, জাতীয়তাবাদের ভিত্তিতে দেশ স্বাধীন হলেও দেশে বেশির ভাগ জায়গায় জাতীয়তাবাদ প্রতিষ্ঠিত হয়নি। আমরা জাতীয়তাবাদে বিশ্বাস করি। তাই দলের নামে জাতীয়তাবাদ রাখা হয়েছে।

কোনো দলকে বা বিএনপিকে ভাঙা তাদের উদ্দেশ্য নয় বলে মন্তব্য করেন তিনি।

বিএনএম এর সদস্য সচিব অবসরপ্রাপ্ত মেজর মুহাম্মদ হানিফ বলেন, জাতীয়তাবাদ শুধু বিএনপির একার নয়। জাতীয়তাবাদ পরিচয় নিয়েই আমরা দল গঠন করেছি। বাংলাদেশ নাম দলের সঙ্গে রাখার সিদ্ধান্ত ছিল। তাই কিছুটা মিল থাকতে পারে বিএনপির সঙ্গে।

চলতি বছরের ডিসেম্বরের শেষে বা আগামী জানুয়ারিতে দ্বাদশ সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। নভেম্বরে যার তফসিল ঘোষণা হতে পারে বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন। দলীয় প্রতীকে নির্বাচনে অংশ নিতে রাজনৈতিক দল হিসেবে নিবন্ধন নেয়ার আইনি বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

এবার নিবন্ধন পেতে ৯০টির বেশি দল আবেদন করেছিল। দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে স্বল্প পরিচিত বিএনএমসহ দুটি দলকে নিবন্ধন দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। চলতি মাসের শেষ নাগাদ বড় পরিসরে জানান দিতে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে করবে বিএনএম।

জানা গেছে, বিএনএমের মূল নেতৃত্বে রয়েছেন বিএনপির সাবেক দুই নেতা। বিএনএমের আহ্বায়ক অধ্যাপক আবদুর রহমান বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য। দলের সদস্যসচিব মেজর (অব.) মো. হানিফ বিএনপির নির্বাহী কমিটির সাবেক সদস্য। ২০২১ সালে গঠিত হয় দলটি। তখন এই দল গঠনের পেছনে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঘিরে সরকারের কোনো ‘ষড়যন্ত্র’ থাকতে পারে, এমন অভিযোগ করেছিলেন বিএনপির নীতিনির্ধারকেরা। বিএনপি নেতাদের কাউকে কাউকে এই দল থেকে আগামী নির্বাচনে প্রার্থী করা হতে পারে, এমন আলোচনাও রাজনৈতিক অঙ্গনে আছে।

অন্যদিকে বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টির (বিএসপি) চেয়ারম্যান সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আওয়ামী লীগঘেঁষা একটি রাজনৈতিক জোটেরও চেয়ারম্যান।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার (১০ আগস্ট) নির্বাচন কমিশনের (ইসি) নিবন্ধন পায় বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আন্দোলন (বিএনএম) দল। দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে রাজনৈতিক দল হিসেবে বিএনএমের পাশাপাশি বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টিকেও (বিএসপি) নিবন্ধন দেয় ইসি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Comments are closed.

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: