সর্বশেষ আপডেট : ২১ ঘন্টা আগে
বুধবার, ১২ জুন ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

জঙ্গিবাদ থেকে ফেরা মায়ের আকুতিতে ছেলের আত্মসমর্পণ

ডেইলি সিলেট ডেস্ক ::
স্বেচ্ছায় র‌্যাবের কাছে ধরা দিয়েছে নতুন জঙ্গি সংগঠন জামাতুল আনসার ফিল হিন্দাল শারক্বীয়ার চার সদস্য। তাদের মধ্যে একজন আবু বক্কর। যে মায়ের আকুতিতে সাড়া দিয়ে আত্মসমর্পণ করেছে। মঙ্গলবার আবু বক্করসহ চারজন স্বেচ্ছায় নারায়ণগঞ্জে র‌্যাব-১১ ব্যাটায়িলয়নের কার্যালয়ে গিয়ে হাজির হলে তাদের আটক করে র‌্যাব।

জানা গেছে, গৃহশিক্ষকের মাধ্যমে উদ্বুদ্ধ হয়ে জঙ্গিবাদে জড়িয়ে পড়েছিলো ক্রেবিন ক্রু আম্বিয়া সুলতানা ওরফে এমিলি ও তার ছেলে আবু বক্কর। পরে মা র‌্যাবের মাধ্যমে স্বাভাবিক জীবনে ফিরলেও ছেলে ছিলো অধরা। সেই ছেলেকে জঙ্গিবাদ থেকে ফেরাতে আকুতি জানিয়ে মা বলে, আব্বু… যদি তুমি আমার ম্যাসেজ পেয়ে থাকো, বলতে চাই, তুমি চরম একটা ভুল পথে আছো। তুমি তোমার এই মা’কে বিশ্বাস করতে পারো। তোমার কাছে আমার অনুরোধ, তুমি যদি কখনো তোমার এই মা’কে ভালোবেসে থাকো, তাহলে তুমি দেশের জন্য কোনো ধরনের হুমকির কাজ করবে না। কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা, নৃসংশতা, অন্যায় কাজে শামিল হবে না। আমি অনুরোধ করছি, তুমি আত্মসমর্পণ করো। প্রশাসন সদয় হবেন।

মায়ের এমন আকুতিতে মন গলেছে ছেলে আবু বক্করের। পরে তিনিসহ জঙ্গিবাদে জড়িয়ে পড়া চারজন র‌্যাবের কাছে আত্মসমর্পণ করে। মঙ্গলবার রাতে র‌্যাব থেকে তাদের আত্মসমর্পণের বিষয়টি জানানো হয়েছে।

জানা গেছে, আবু বক্করের সঙ্গে আত্মসমর্পণ করা নতুন জঙ্গি সংগঠন জামাতুল আনসার ফিল হিন্দাল শারক্বীয়ার আরও তিন সদস্য হলো, মো. হাসান সাইদ, শেখ আহমেদ মামুন ও মোহাম্মদ ইয়াসিন।

মঙ্গলবার এই চারজন র‌্যাব-১১ ব্যাটালিয়নে হাজির হয়ে আত্মসমর্পণ করেছে বলে জানিয়েছে র‌্যাব। এ বিষয়ে বুধবার সকালে রাজধানীর কারওয়ানবাজারে র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত জানানো হবে বলেও জানানো হয়েছে র‌্যাব সদর দপ্তর পাঠানো ক্ষুদে বার্তায়।

জানা গেছে, আত্মসমর্পণ করা আবু বক্করের বয়স ১৬ বছর। নারায়ণগঞ্জের একটি স্কুলে অষ্টম শ্রেণির শিক্ষর্থী ছিলেন। গৃহশিক্ষকের মাধ্যমে আবু বক্কর ও তার মা এমিলি জঙ্গিবাদে জড়িয়ে পড়েন।

আত্মসমর্পণ করা তিন জঙ্গির মধ্যে একজন হাসান সাইদ। তিনি একটি মাদরাসায় দাওরা হাদিস শেষ করেছেন। আর শেখ আহমেদ মামুন বেসরকারি একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করছিলেন। সাইদ তাকে জঙ্গিবাদে উদ্বুদ্ধ করে। আর ইয়ামিন একটি ঘড়ির দোকানে মেকানিক হিসেবে কাজ করতেন। ২০২১ সালে সশস্ত্র প্রশিক্ষণ অংশ নিতে গিয়ে ভুল বুঝতে পারেন।

গত বছরের ৫ নভেম্বর মা আম্বিয়া সুলতানা ওরফে এমিলিকে উদ্ধার করে র‌্যাব। পরে ৪ দিন পরিবারের সান্নিধ্যে রেখে ডি-রেডিক্যালাইজেশনের মাধ্যমে স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া শুরু হয়। ৯ নভেম্বর রাজধানীর কারওয়ান বাজার র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন বলেন, জঙ্গিবাদে উদ্বুদ্ধ হওয়ার পর ছেলে আবু বক্কর রিয়াসাদ রাইয়ানকে একই পথে ঠেলে দেন মা আম্বিয়া সুলতানা এমিলি। তিনি আট মাস পর স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসেন এবং ছেলেকেও ফিরে পাওয়ার আকুতি জানান। এরপরই মঙ্গলবার আবু বক্কর র‌্যাব-১১ ব্যাটালিয়নে আমাদের সঙ্গে যোগযোগ করে। আমরা তার সবধরনের আইনি সহায়তা দেব।

মঈন বলেন, নতুন জঙ্গি সংগঠনের বিরুদ্ধে শুরু হওয়া অভিযানে এখন পর্যন্ত ৭৮ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। যাদের মধ্যে সংগঠনের আমির আনিসুর রহমান মাহমুদ, সামরিক শাখার প্রধান রনবীর ও উপ প্রধান মানিক, অর্থ ও গণমাধ্যমে শাখার প্রধান রাকিব রয়েছেন। এছাড়া পাহাড়ি বিচ্ছিন্নবাদী সংগঠন কেএনএফের ১৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। জঙ্গি সংগঠনটিকে অর্থের বিনিময়ে পাহাড়ে সামরিক প্রশিক্ষণ দিচ্ছিল কেএনএফ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Comments are closed.

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: