সর্বশেষ আপডেট : ৪৬ মিনিট ৫২ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ২৯ মার্চ ২০২৩ খ্রীষ্টাব্দ | ১৫ চৈত্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

ওসমানীতে আজ চালু হচ্ছে শিশু হৃদরোগ ইউনিট

স্টাফ রিপোর্টার :

সিলেট বিভাগের মধ্যে সর্বপ্রথম সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চালু হতে যাচ্ছে হার্ট ফেইলিওর কর্ণার ও শিশু হৃদরোগ ইউনিট।হাসপাতালের পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল মাহবুবুর রহমান ভূঁইয়া ও হৃদরোগ বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডাঃ মোঃ মোখলেছুর রহমানের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় শিশুদের জন্য উপকারী ইউনিটটি চালু হচ্ছে। এক্ষেত্রে বেশি উপকৃত হবে গরীব ও অসহায় রোগীরা।

আজ ১ ফেব্রুয়ারী স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোঃ জাহিদ মালিক (এমপি) ইউনিটের উদ্বোধনের সম্ভাবনা রয়েছে।

সংশ্লিষ্ট চিকিৎসক জানান, হার্ট ফেইলিওর বা হার্ট ফেল একটি জটিল সমস্যা যেখানে হার্টের পাম্পিং ক্ষমতা ব্যাপকভাবে কমে যায়। যার ফলে হার্ট শরীরের বাকি অংশে যথেষ্ট পরিমানে রক্ত সরবরাহ করতে পারেনা। অবিলম্বে চিকিৎসা না হলে যার কারণেু মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে। বিশ্বে হার্ট ফেইলিওর এর রোগী বেড়েই চলছে। সারাবিশ্বে সাড়ে ৬ কোটি মানুষ হার্ট ফেইলিওর এ আক্রান্ত। বাংলাদেশেও এই রোগীর সংখ্যা অনেক বেশী। হার্ট ফেইলিওর এর চিকিৎসা অনেক ব্যয়বহুল। ঘনঘন হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার কারনে চিকিৎসা ব্যয় অনেক বেড়ে যায়।

সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের হৃদরোগ বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডাঃ মোঃ মোখলেছুর রহমান জানান, হার্ট ফেইলিওর কর্ণার হচ্ছে বহির্বিভাগে হার্ট ফেইলিওর রোগীদের ফলো-আপ করা এবং যেসব রোগীদের হার্ট ফেইলিওর এর ঝুঁকি রয়েছে তাদের চিহ্নিত করে হার্ট ফেইলিওর নিয়ন্ত্রণ করতে সহায়তা করা এবং অন্তঃবিভাগে কর্নার করে আলাদাভাবে হার্ট ফেইলিওর চিকিৎসা প্রদান। এতে হার্ট ফেইলিওর রোগীদের নিয়মিত ফলো-আপ করে তাদের ঔষধের মাত্রা ঠিক করা হবে। এছাড়া যেসব কারণে হাসপাতালে ভর্তির ঝুঁকি বাড়ে যেমন- রক্তশুন্যতা, রক্তে লবন কমে যাওয়া, ইনফেকশন ইত্যাদি নির্ণয় করে চিকিৎসা দেওয়া হবে।

তিনি জানান, হার্টের সার্জারীসহ চিকিৎসা সিলেটে সম্ভব নয়। এখানে হার্টের বাইপাস সার্জারী, ভাল্ব বদলানো, জন্মগত হৃদরোগের সার্জারী ইত্যাদি বিষয়ে সঠিক এবং সময়মতো পরামর্শ দেওয়া হবে। এতে ঘনঘন হাসপাতালে ভর্তি হওয়া কমানো সম্ভব। এছাড়া আন্তঃবিভাগে হার্ট ফেইলিওর চালুর কারণে আলাদাভাবে গুরুত্ব সহকারে হার্ট ফেইলিওর রোগীদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করা যাবে। হার্ট ফেইলিওর কর্নার এর কারণে ব্যক্তিগত চিকিৎসা ব্যয়ের পাশাপাশি রাষ্ট্রের চিকিৎসা ব্যয়ও বহুলাংশে কমে যাবে। সিলেটে হৃদরোগে আক্রান্ত শিশু রোগী সবসময় পাওয়া যাচ্ছে এবং প্রতিবছর এর সংখ্যা বাড়ছে। শিশু হৃদরোগ যেমন জটিল তেমনি তার চিকিৎসা ও রোগ ব্যবস্থাপনাও ব্যয়বহুল। গরীব রোগীদের পক্ষে এই চিকিৎসা ব্যয় বহন করা কঠিন। হাসপাতালে শিশু হৃদরোগীদের জন্য আলাদা কোন ওয়ার্ড না থাকায় রোগীরা বিচ্ছিন্নভাবে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এই প্রথম ওসমানী হাসপাতালের ১৬নং ওয়ার্ডে ১০ শয্যাবিশিষ্ট শিশু হৃদরোগ ইউনিট চালু হতে যাচ্ছে, যেখানে হৃদরোগে আক্রান্ত শিশুরা একটি নির্দিষ্ট স্থানে এসে চিকিৎসা নিতে পারবে। এখানে রোগ নির্ণয়ের পাশাপাশি চিকিৎসা প্রদান করা হবে।

ছাড়া জটিল রোগী হলে ঢাকায় চিকিৎসার ব্যাপারে সঠিক পরামর্শ দেয়া যাবে। এছাড়া দেশের মধ্যে অনেক সংস্থা আছে যারা বিনা খরচে শিশু রোগীদের অপারেশনের ব্যবস্থা করে থাকে। কিন্তু জানার অভাবে সেই সুযোগ থেকে রোগীরা বঞ্চিত হন। শিশু হৃদরোগ ইউনিট সেই সংস্থাগুলোর সাথে সমন্বয় করে শিশু হৃদরোগীদের বিনা খরচে অপারেশনের ব্যবস্থা করবে। এছাড়া গর্ভকালীন সময়ে অপুষ্টি, রক্তশূন্যতা, ডায়াবেটিস, অপ্রয়োজনীয় ঔষধ খাওয়া, রুবেলা টিকা গ্রহনসহ গর্ভকালীন সঠিকভাবে নিজের যত্ন নেয়ার ব্যপারে পরামর্শ দিয়ে শিশু হৃদরোগ প্রতিরোধে সাহায্য করবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: