সর্বশেষ আপডেট : ২১ ঘন্টা আগে
বুধবার, ১২ জুন ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

সিলেটের উপজেলা,পৌরসভা ও ইউপিতে বিজয়ী হলেন যারা

বিশেষ প্রতিবেদক :

সিলেটের বিশ্বনাথ পৌরসভা, ওসমানীনগর ও জগন্নাথপুর উপজেলা, গোয়াইনঘাটের চারটি ইউনিয়নে ভোটগ্রহন শান্তিপূর্ণভাবে শেষ হয়। উপজেলা দুটিতে আওয়ামী লীগের মনোনিত প্রার্থী বিজয়ী হলেও পৌরসভা ও ইউনিয়নে বিদ্রোহী প্রার্থীরা বিজয়ী হয়েছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, ওসমানীনগর উপজেলা চেয়ারম্যান পদে প্রায় ১৫ হাজারের বেশী ভোটের ব্যবধানে জয় পেয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী জেলা যুবলীগের সভাপতি শামীম আহমদ ভিপি। অ্যাজেন্টদের পাওয়া তথ্য অনুযায়ী শামীম নৌকা প্রতীকে ভোট পড়েছে ২৮ হাজারের কিছু বেশী। আর তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির বহিস্কৃত প্রার্থী কামরুল ইসলাম ঘোড়া প্রতীকে ১৩ হাজারের কিছু বেশি ভোট পেয়েছেন। এছাড়া ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আনা মিয়া (টিয়া পাখি) বেসরকারী ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৪ হাজার ৩৭০ ভোট বেশী পেয়ে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আকমল হোসেন বিজয়ী হয়েছেন। তিনি নৌকা প্রতীকে ২৪ হাজার ১২০ ভোট পেয়ে কেন্দ্রভিত্তিক ফলাফলে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জমিয়তের খেজুর গাছ প্রতীকের প্রার্থী সৈয়দ তালহা আলম পেয়েছেন ১৯ হাজার ৭৫০ ভোট।

বিশ্বনাথ পৌরসভার প্রথম নির্বাচনে বেসরকারি ভাবে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী সাবেক উপজেলার চেয়ারম্যান মুহিবুর রহমান। তিনি জগ প্রতীকে ৮ হাজার ৪৭৪ ভোট পেয়েছেন।

তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী আওয়ামী লীগ মনোনিত মেয়র প্রার্থী ফারুক আহমদ নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ৩ হাজার ২৬৩ ভোট। এছাড়া, স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী যুক্তরাজ্য বিএনপি নেতা (বহিস্কৃত) মুমিন খান মুন্না মোবাইল ফোন প্রতীকে পেয়েছেন ৩ হাজার ৭০ ভোট এবং অপর স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী উপজেলা বিএনপি নেতা (বহিস্কৃত) জালাল উদ্দিন পেয়েছেন ৩ হাজার ১৭ ভোট।

এদিকে গোয়াইনঘাট উপজেলার ৪টি ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন হয়েছে। এ নির্বাচনে আ’লীগের প্রার্থীরা দলীয় বিদ্রোহীদের কাছে ধরাশায়ী হয়েছেন। এখানে আওয়ামী লীগের ৩ বিদ্রোহী প্রার্থী ও নৌকা প্রতীকের ১ প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন।

বিজয়ী প্রার্থীদের মধ্যে, গোয়াইনঘাট সদর ইউনিয়ন পরিষদে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী গোলাম রব্বানী সুমন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সুভাস চন্দ্র পাল ছানা।

পশ্চিম জাফলং ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মামুন পারভেজ বেসরকারী ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী মুন্সি আব্দুল মুমিন।

পূর্ব জাফলং ইউনিয়নে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মো. রফিকুল ইসলাম নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন হামিদুল হক ভূঁইয়া বাবুল। মধ্য জাফলং ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মো. লোকমান হোসেন নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. শাইদুর রহমান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: