সর্বশেষ আপডেট : ৩ ঘন্টা আগে
শনিবার, ২৫ জুন ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন সিলেটে চলবে চার দিনব্যাপী

প্রতি বছর ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন একদিন থাকলেও করোনাভাইরাস বিবেচনায় এবার সিলেট জেলায় ৪ দিনব্যাপী এ ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত হবে।

বিষয়টি বৃহস্পতিবার (৯ জুন) সিলেট সিভিল সার্জন কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় জানান সিলেটের ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডা. জন্মেজয় দত্ত।

তিনি জানান, আগামী ১২-১৫ জুন দেশব্যাপী ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন উদযাপিত হতে যাচ্ছে। এবার কোভিড-১৯ মহামারীর প্রেক্ষাপটে ভিন্ন ভাবে এ ক্যাম্পেইন আয়োজিত হতে যাচ্ছে। অন্যান্য বার ১ দিনেই এ ক্যাম্পেইন শেষ হলে ও এ বার ৪ দিনব্যাপী ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। সিলেটেও সেভাবে প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে।

এ বছর কোভিত-১৯ পরিস্থিতিতে আসন্ন ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন সুষ্ঠু ভাবে বাস্তবায়ন, প্রস্তুতি ও ক্যাম্পেইন সংক্রান্ত অন্যান্য কার্যক্রম যথাযথভাবে স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিধি মেনে সম্পন্ন করার নিমিত্তে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। সংশ্লিষ্ট সকলকে স্বাস্থ্যকর্মীদের হাতের ও ব্যবহৃত সরঞ্জামের পরিচ্ছন্নতা নিশ্চিত করা, শারীরিক দূরত্ব নিশ্চিত করা, পর্যাপ্ত মাস্ক সরবরাহ করা সহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হয়েছে।

মতবিনিময় সভায় বল হয়- শিশুর সুস্থভাবে বেঁচে থাকা, স্বাভাবিক বৃদ্ধি, দৃষ্টিশক্তি ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য ভিটামিন ‘এ’ অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অনুপুষ্টি। ভিটামিন এ এর অভাবে রাতকানা থেকে শুরু করে জেরোপথ্যালমিয়ার মত রোগ হতে পারে যাতে চোখের দৃষ্টিশক্তি সম্পূর্ণ লোপ পেতে পারে। এছাড়া ভিটামিন এ এর অভাবে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়, ডায়রিয়ার ব্যাপ্তিকাল বৃদ্ধি পায়, রক্তাল্পতা দেখা দেয় ও ত্বকের শুষ্কতা বৃদ্ধি পায়।

যেহেতু ভিটামিন ‘এ’র অভাব একটি জনস্বাস্থ্য বিষয়ক সমস্যা তাই সম্পূরক খাদ্য হিসেবে বছরে দুইবার জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হয়। কোভিড ১৯ প্রেক্ষাপটে ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন এর পুরুত্ব আরো বৃদ্ধি পেয়েছে কারন ভিটামিন এ প্লাস ক্যাপসুল খেলে কোভিড ১৯ এ আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা কমে যায়। এ লক্ষ্যে ৬-১১ মাস বয়সী শিশু দের জন্য নীল ক্যাপসুল (১ লক্ষ ইউনিট) ও ১২-৫৯ মাস বয়সী শিশু দের জন্য লাল ক্যাপসুল। (২ লক্ষ ইউনিট) খাওয়ানো হবে।

এছাড়া জন্মের পর পর ই নবজাতক কে শাল দুধ খাওয়ানো, জন্মের পর প্রথম ৬ মাস। শিশু কে শুধুমাত্র মায়ের দুধ খাওয়ানো শিশুর ৬ মাস পূর্ণ হলে বুকের দুধের পাশাপাশি ঘরে তৈরি অন্যান্য সুষম খাবার খাওয়ানো, গর্ভবর্তী ও প্রসূতি মায়েদের স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি ভিটামিন এ সমৃদ্ধ সবুজ শাক সবজি ও হলুদ ফল মূল খাওয়ানো এবং রান্নায় ভিটামিন এ সমৃদ্ধ ভোজ্য তেল ব্যবহার করা- এ সকল পুষ্টি বার্তা ও প্রদান করা হবে।

এ লক্ষ্যে বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় সিলেট সিভিল সার্ভিন অফিসের ইপিআই ভবনে সিভিল সার্জনের সভাপতিত্বে জেলার অন্যান্য বিভাগের কর্মকর্তাদের নিয়ে এক অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। ইতিমধ্যে সিলেট জেলার সকল উপজেলার তদারককারি মাঠকর্মী ও স্বেচ্ছাসবীগণকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: