সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

ভুয়া ব্যাংক সলভেন্সি দিয়ে জলমহাল টেন্ডারে অংশগ্রহণের অভিযোগ

ডেইলি সিলেট ডেস্ক ::

সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জে ভয়াবহ ব্যাংক জালিয়াতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভূয়া ব্যাংক সলভেন্সি দিয়ে জলমহাল টেন্ডারে অংশগ্রহণের অভিযোগ উঠেছে এক মৎস্যজীবি সমবায় সমিতির বিরুদ্ধে।

গতকাল বিকেলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও জলমহাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি মো মাসুদ রানা বরাবর অভিযোগটি দায়ের করেন সাচনা বাজার ইউনিয়নের “রামনগর ও শরিফপুর মিতালী সমবায় সমিতি লিমিটেডের সাধারণ সম্পাদক মো. আক্তার হোসেন।

অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, সম্প্রতি সাচনা বাজার ইউনিয়নের ২০ একরের নিচে বনুয়া বিল ১৪৩১ বাংলা সন থেকে ১৪৩৩ সন পর্যন্ত ইজারা দেয়ার লক্ষে উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক ইজারা বিজ্ঞপ্তিতে ২৩ জানুয়ারী ২০২৪ ইং হইতে ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ইং তারিখ পর্যন্ত আগ্রহী মৎস্যজীবি সমবায় সমিতিকে অনলাইনে আবেদনের আহ্বান করা হয়।

এতে বিজ্ঞপ্তির পর পরই নিয়ম বহির্ভূত জালিয়াতির মাধ্যমে ব্যাংক এশিয়ার নামে সলভেন্সি তৈরি করে পুরো টেন্ডার প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণ করেন রামনগর মিলন মৎসজীবি সমবায় সমিতি লিমিটেড নামের একটি প্রতিষ্ঠান।

জানাযায়, টেন্ডারে অনলাইনে দাখিলকৃত ব্যাংক এশিয়ার উক্ত সঞ্চয়ী হিসাব (১০৮৩৪৯০২১২৪২২) নম্বরে সাচনা বাজারের রামনগর এজেন্ট শাখা থেকে প্রদানকৃত সলভেন্সিটি গত ১৫ ফেব্রুয়ারী ইস্যু করা হয়। অথচ বাস্তবে ওই এজেন্ট শাখাতে “রামনগর মিলন মৎসজীবি সমবায় সমিতি লিমিটেড” নামে কোনো সমিতির একাউন্টই নেই। পরবর্তীতে প্রশাসন তাদের জালিয়াতির কথা টের পেয়ে যাবে বুঝতে পেরে তড়িঘড়ি করে পরদিন ১৬ই ফেব্রুয়ারী উক্ত সমিতির নামে একটি “সঞ্চয়ী একাউন্ট” খোলার জন্য আবেদন করেন। কিন্তু নিয়ম অনুযায়ী একটি প্রতিষ্ঠানের জন্য তপশীলি ব্যাংকে “চলতি একাউন্টের” জন্য আবেদন করতে হয়। যার ফলে ১৮ ফেব্রুয়ারী সমিতির পক্ষে করা সঞ্চয়ী একাউন্ট আবেদনটি বাতিল করে দেয় ব্যাংক এশিয়া কর্তৃপক্ষ। এতে টেন্ডার আবেদনে দাখিলকৃত ব্যাংক একাউন্টসহ সলভেন্সিটি রামনগর এজেন্ট শাখা হতে নিয়মবহির্ভূত নেয়া হয়েছে। যার সকল প্রমানাদির কাগজপত্র সংরক্ষণ আছে এই প্রতিবেদকের কাছে।

তাছাড়া এজেন্ট শাখা থেকে সলভেন্সি দেওয়ার বিধান আছে কি-না তা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের কাছে।

এব্যাপারে অভিযুক্ত রামনগর মিলন মৎসজীবি সমবায় সমিতি লিমিটেডের সভাপতি আঃ বাসিতের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, রামনগর ব্যাংক এশিয়ার এজেন্ট শাখা থেকে আমাকে একটি ব্যাংক সলভেন্সি দিয়েছে। যা দিয়ে আমাদের মৎস্য সমিতি বনুয়া জলমহালের টেডারে অংশগ্রহণ করেছি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও বিল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি মো মাসুদ রানা বলেন, বিষয়টি আমি অবগত হয়েছি। তদন্ত করার জন্য উপজেলা সার্ভেয়ারকে দেয়া হয়েছে। তদন্ত রিপোর্টে এধরণের স্পর্শকাতর জালিয়াতির প্রমান পেলে উক্ত সমিতি বাতিলসহ তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Comments are closed.

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: