সর্বশেষ আপডেট : ৫ মিনিট ৩৬ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

মাদানীকে ওয়াজ করতে বাঁধা, বিক্ষোভ মিছিল, পুলিশের ফাকাঁ গুলি: আটক ৫

ডেইলি সিলেট ডেস্ক ::

মাওলানা রফিকুল ইসলাম মাদানিকে সুনামগঞ্জের তাহিরপুরের বাদাঘাটে একটি ওয়াজ মাহফিলে পুলিশ ওয়াজ করতে না দেয়ায় উত্তেজিত জনতা পুলিশ ফাঁড়িতে গিয়ে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে ও বাঁশের তৈরি সীমানা প্রাচীর এবং সাইনবোর্ড ভাংচুর করা হয়।

এই ঘটনার পর থেকে এলাকা থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। পুলিশ কঠোর অবস্থা রয়েছে।

সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) দিন গত রাত ১২টা পর উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের বাদাঘাট পুলিশ ফাঁড়িতে ঘটনাটি ঘটে।

এসময় পুলিশ ২ রাউন্ড টিআরসেল, ২৭ রাউন্ড ফাঁকা গুলি করে। এঘটনায় দুই পুলিশ সদস্যসহ ২০ জন আহত হয়েছে। এ ঘটনার পর পর পুলিশ জিজ্ঞেসাবাদের জন্য ৫ জনকে আটক করেছে।

এঘটনায় আহতরা হল,কনেষ্টবল সালাহ উদ্দিন,মোহাম্মদ ওসমানসহ ২০জন। অন্যান্য আহতদের নাম পাওয়া যায়নি।

আটকৃতরা হল,উপজেলার উত্তর বড়দল ইউনিয়ন মাহারাম গ্রামের ফজলুল হকের ছেলে মোজাম্মিল হক(৩৩),কাশতাল গ্রামের মৃত তবারক ইসলামের ছেলে রায়হান মিয়া (৩০),পইলানপুর গ্রামের মতৃ সিরাজুল ইসলামের ছেলে বশির আহমেদ(৩৮),নাসির আহমেদ(৩১),বাদাঘাট গ্রামের মোশাররফ হোসেন(২০)।

প্রতক্ষদর্শী ও স্থানীয় এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে ও খোঁজ নিয়ে জানাযায়,বাদাঘাট বাজার জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে হিলফুল ফুযুল নামে সংঘটনের আয়োজনে ওয়াজ মাহফিলে মাওলানা রফিকুল ইসলাম মাদানিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়। আর তিনি ওয়াজ করতে আসবেন শুনে তাকে একপলক দেখতে ও তার মুখ থেকে ওয়াজ শুনতে বিভিন্ন এলাকার হাজার হাজার মানুষ জড়ো হয়। রাত ১২টায় বিশ্বম্বরপুর উপজেলায় মিয়ারচরঘাট পার হয়ে তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের পাঠানপাড়ায় চলেও আসে মাওলানা রফিকুল ইসলাম মাদানী। পরে সেখান থেকে তাকে ফিরিয়ে দেয় পুলিশ। পরে রাত ১২ টার পর মাইকে জানানো হয় তিনি আসতে পারবেন না ও ওয়াজ করতে পারবেন না এতে করে উত্তেজনা সৃষ্টি। এক প্রযায়ে মাইকে ঘোষণা করা হয় তিনি আসতে পারবেন না আইনি জঠিলতার কারনে। আজকের মত মাহফিলও শেষ। আপনারা নিজ নিজ বাড়িতে চলে যান। এসময় উত্তেজনা সৃষ্টি হলে সবাইকে শান্ত থাকার জন্য আহবান জানায় সংশ্লিষ্টরা। কিন্তু উত্তেজিত জনতাকে সামাল দিতে পারেনি,অনেকেই নিজ নিজ বাড়িতে চলে গেলেও উত্তেজিত জনতা নানান শ্লোগানে মিছিল বের করে। পুলিশ ফাঁড়ির দিকে অগ্রসর হয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় বাসিন্দারা জানান,যখন আগতরা জানতে পারল যে পুলিশ মাওলানা রফিকুল ইসলাম মাদানীকে ওয়াজ মাহফিলেও আসতে দিচ্ছে না। তাকে মাহফিলে আসার পথ থেকে ফিরিয়ে দেয়। এমনি খবর জানতে পেরেই আগতদের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। এরপর পরেই সংশ্লিষ্টরা ওয়াজ মাহফিলেও শেষ ঘোষণা করে ও আগামী কাল আবারও শুরু হবে বলে জানায়। এরপর পরেই উত্তেজিতরা মিছিল করে ও পুলিশ ফাঁড়ির দিকে যায়।

পুলিশ জানায়, উত্তেজিত জনতা পুলিশের বিরুদ্ধে নানান শ্লোগান তুলে বিক্ষোভ মিছিল করে। এক প্রযায়ে মিছিলটি বাদাঘাট পুলিশ ফাঁড়িতে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করলে এসময় পুলিশ ৩০রাউন্ড ফাঁকা গুলি করে। এঘটনায় দুই পুলিশ সদস্য সহ ২০জন আহত হয়েছে। এঘটনায় জড়িত থাকার সন্দেহে জিজ্ঞেসাবাদের জন্য ৫ যুবককে আটক করেছে পুলিশ। ঘটনার পর থেকে অতিরিক্ত পুলিশ ফাঁড়িতে মোতায়েন করা হয়েছে। এই ঘটনার পর থেকে ঘা ডাকা দিয়েছে আয়োজক কমিটির দায়িত্বশীলরা।

সচেতন মহল দাবী করছেন এই ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হউক তবে সাধারন মানুষ যেন হয়রানি না করা হয়।

বাদাঘাট পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ নাজমুল ইসলাম জানান,এই ঘটনায় আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

খবর পেয়ে তাহিরপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ওসি বলেন,পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে ২ রাউন্ড টিআরসেল ও ২৭ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়া হয়। ৫ জনকে জিজ্ঞেসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। এঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে মামলা দায়ের প্রস্তুতি চলছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Comments are closed.

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: