সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

সিলেটে ধ’র্ষণ, অশ্লীল ভিডিও রেকর্ড কবুল করলো লন্ডনি মুমিন

ওয়েছ খছরু: অবশেষে কবুল করলেন লন্ডন প্রবাসী আব্দুল মুমিন। বাসার কেয়ারটেকারের স্ত্রী’র সঙ্গে অ’বৈধ মেলামেশা করতেন তিনি আর সেগুলোর ভিডিও করতেন। লন্ডন থেকে অশ্লীল চ্যাট করেছেন।

পু’লিশ মোবাইল ফোনে পেয়েছে এসবের প্রমাণ। তিন দিনের রি’মান্ডে ছিলেন আব্দুল মুমিন। গতকাল রি’মান্ড শেষ হয়েছে। তাকে আ’দালতের মাধ্যমে পাঠানো হয়েছে কারাগারে। আব্দুল মুমিন। স্ত্রী’, সন্তানসহ বসবাস করেন লন্ডনে। সিলেটের মীরবক্সটুলায় আজাদী আবাসিক এলাকায় তার বাসা।

স্ত্রী’, সন্তানদের লন্ডনে রেখে দেশে আসতেন তিনি। নজর পড়েছিল বাসার কেয়ারটেকার আব্দুল মালেকের স্ত্রী’র উপর। অ’সুস্থতার ভান করে এক সময় কেয়ারটেকারের স্ত্রী’কে দিয়ে শরীর ম্যাসেজ করাতেন। এরপর এই ম্যাসেজের ভিডিও মোবাইল ফোনে ধারণ করেন। পরে আশ্রয় নেন ব্ল্যাকমেইলের। ভিডিও ভাই’রালের ভ’য় দেখিয়ে ধ’র্ষণ করেন।

দিনের পর দিন এভাবেই তিনি কেয়ারটেকারের স্ত্রী’র সঙ্গে অ’বৈধ মেলামেশা করেন। বিষয়টি নজর এড়ায়নি কেয়ারটেকার আব্দুল মালেকের। রাগে, ক্ষোভে স্ত্রী’কে ডিভোর্স দিয়ে বাসা ছেড়ে চলে যান। এরপর বিয়ের দাবি তোলেন ধ’র্ষিতা।

তাড়িয়ে দেয়া হয় তাকে। অবশেষে সিলেটের কোতোয়ালি থা’নায় মা’মলা করেন। আর এই মা’মলায় গত রোববার পু’লিশ তাকে গ্রে’প্তার করেছে। প্রবাসী আব্দুল মুমিনের মূল বাড়ি সিলেটের জকিগঞ্জ উপজে’লার পইলগ্রামে।

মা’মলায় ধ’র্ষিত নারী উল্লেখ করেছেন, লন্ডন প্রবাসী আব্দুল মুমিন প্রায় ১০ বছর আগে তার স্বামী আব্দুল মালেককে তার বাসার কেয়ারটেকার নিযু’ক্ত করেন। কেয়ারটেকার আব্দুল মালেক স্ত্রী’সহ ওই বাসায় থাকতেন। বাসায় অবস্থানকালে কেয়ারটেকার দম্পতির এক মে’য়ে সন্তানও জন্মগ্রহণ করে। আব্দুল মালেককে বাসার কেয়ারটেকার নিয়োগ দিলেও স্ত্রী’ ও সন্তানদের লন্ডনে রেখে প্রায়ই দেশে আসতেন আব্দুল মুমিন।

কেয়ারটেকার মালেকের পরিবারের সঙ্গে বসবাস করতেন। একপর্যায়ে অ’সুস্থতার ভান করে তিনি কেয়ারটেকারের স্ত্রী’কে দিয়ে তার শরীর ম্যাসেজ করাতেন। গো’পনে আব্দুল মুমিন ম্যাসেজের ভিডিও তুলে রাখেন। ওই ভিডিও ইন্টারনেটে ছাড়িয়ে দেয়ার ভ’য় দেখাতেন মালেকের স্ত্রী’কে। একপর্যায়ে করেন ধ’র্ষণও। প্রবাসী আব্দুল মুনিম দিনের পর দিন ধ’র্ষণ করতে থাকেন। কেয়ারটেকার আব্দুল মালেক বিষয়টি টের পেয়ে যান।

এ নিয়ে তাদের পরিবারের মধ্যে অশান্তি নেমে আসে। রাগে, ক্ষোভে স্ত্রী’কে তালাক দিয়ে বাসা ছেড়ে চলে যান। আব্দুল মালেক চলে যাওয়ার পর বিয়ের প্রলো’ভন দেখিয়ে কেয়ারটেকারের তালাকপ্রাপ্তা ওই নারীকে ধ’র্ষণ করতে থাকেন প্রবাসী আব্দুল মুনিম। সম্প্রতি আব্দুল মুমিন সস্ত্রী’ক দেশে আসলে তালাকপ্রাপ্তা ওই মহিলা তার বাসায় গিয়ে বিয়ের জন্য চাপ দেয়।

এতে ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন লন্ডনি আব্দুল মুমিন ও তার স্ত্রী’ মু’সলেহা খান। তারা ধ’র্ষিতা নারীকে ভ’য়ভীতি প্রদর্শন ও হু’মকি ধমকি দিয়ে তাড়িয়ে দেন। এ ঘটনায় তালাকপ্রাপ্তা গত ২২শে মে সিলেট কোতোয়ালি মডেল থা’নায় আব্দুল মুনিম ও তার স্ত্রী’ মু’সলেহা খানমকে আ’সামি করে ধ’র্ষণ মা’মলা করেন।

মা’মলা দায়েরের পর সিলেটের কোতোয়ালি থা’না পু’লিশ লন্ডন মুনিমকে গ্রে’প্তার করে। পরে তিনদিনের রি’মান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে।

এদিকে স্বামী গ্রে’প্তার হওয়ার পর মা’মলার অ’পর আ’সামি মু’সলেহা খানম এখনো পলাতক রয়েছেন। কোতোয়ালি থা’নার ওসি মোহাম্ম’দ আলী মাহমুদ গতকাল বিকালে মানবজমিনকে জানিয়েছেন, মিরবক্সটুলা এলাকার ওই নারী থা’নায় মা’মলা দায়েরের পর পু’লিশ আব্দুল মুমিনকে গ্রে’প্তার করেছে।

পরে তাকে ৩ দিনের রি’মান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। এ সময় মুমিন ধ’র্ষণের ঘটনা স্বীকার করেছেন। পাশাপাশি তার কাছ থেকে ভিডিও উ’দ্ধার করা হয়েছে। তিনি জানান, জিজ্ঞাসাবাদ শেষে গতকাল মুমিনকে আ’দালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। সৌজন্যঃ মানবজমিন

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: