সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

এক ইউনিয়নে দুই ভাই চেয়ারম্যান প্রার্থী, দ্বিধাদ্বন্দ্বে ভোটাররা

আগামী ২৬ ডিসেম্বর চতুর্থ ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে দিনাজপুরের খানসামা উপজে’লার আঙ্গারপাড়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ল’ড়ছেন দুই ভাই।

জানা গেছে, পারিবারিক দ্বন্দ্বের কারণে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন তারা। তাদের বাবা ছিলেন উপজে’লা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান। পারিবারিক ঐতিহ্যের কারণে দুই প্রার্থীকে নিয়ে এলাকায় চলছে আলোচনা।

তারা হলেন সাবেক উপজে’লা চেয়ারম্যান মৃ’ত আকবর আলী শাহের বড় ছে’লে তিনবারের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল জব্বার শাহ (আনারস প্রতীক) ও তার ছোট ভাই জমির উদ্দীন শাহ বালিকা মহাবিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ শাহ মোহাম্ম’দ জামাল উদ্দীন (মোটরসাইকেল প্রতীক)।

এর আগে ২০১১ সালে ইউপি নির্বাচনে তারা প্রার্থী হয়েছিলেন। ওই নির্বাচনে বড় ভাইয়ের কাছে হেরে যান ছোট ভাই। মাঝখানে ছোট ভাই প্রার্থী না হলেও এবার প্রার্থী হয়েছেন।

স্থানীয় ভোটার কাদের আলী বলেন, দুই ভাই চেয়ারম্যান প্রার্থী হওয়ায় আম’রা দ্বিধাদ্বন্দ্বে পড়েছি। এর আগেও তারা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। ওই সময়ে বড় ভাই জিতে যান। গতবার ছোট ভাই নির্বাচন করেননি। বড় ভাই নির্বাচন করে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর কাছে পরাজিত হন। এবার আবারও দুই ভাই নির্বাচন করছেন। দেখি এবার কে জিতেন।

ওই এলাকার ভোটার সিরাজুল ইস’লাম বলেন, পারিবারিকভাবে তাদের সুনাম রয়েছে। একভাই তিনবার ইউপি চেয়ারম্যান ছিলেন। ছোট ভাই শিক্ষকতায় যু’ক্ত ছিলেন। ফলে তাদের উভ’য়ের সুনাম আছে। বাবা ছিলেন জনপ্রতিনিধি। তবে দুই ভাইয়ের প্রতিদ্বন্দ্বিতাকে ভালো’ভাবে নিচ্ছেন না এলাকার ভোটাররা।

আব্দুল জব্বার শাহ বলেন, ‘আমা’র বাবা জনপ্রতিনিধি ছিলেন। বাবার মতো আমিও মানুষের পাশে ছিলাম এবং আগামীতে থাকতে চাই। তিনবার চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছি। সফলভাবে জনসেবা করায় জনগণ আমাকে দাঁড় করিয়েছেন। জনগণের সেবা করাই আমা’র লক্ষ্য।’

শাহ মোহাম্ম’দ জামাল উদ্দীন বলেন, ‌‘আমি কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছি। আমাদের পরিবারের ঐতিহ্য আছে। আমা’র বাবা জনপ্রতিনিধি হিসেবে মানুষের সেবা করেছেন। কিন্তু বাবা ও পরিবারের সম্মান নষ্ট করেছেন বড় ভাই। তাই পরিবারের সুনাম ও জনসেবা অব্যাহত রাখতে আমি প্রার্থী হয়েছি। এর আগেও প্রার্থী হয়ে হেরেছিলাম।’

উপজে’লা নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, দুই ভাই ছাড়াও এই ইউপিতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী গো’লাম মোস্তফা আহমেদ শাহ (নৌকা প্রতীক) ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ (ঘোড়া প্রতীক)।

খানসামা উপজে’লা নির্বাচন কর্মক’র্তা জিকরুল হক বলেন, আগামী ২৬ ডিসেম্বর অনুষ্ঠেয় আঙ্গারপাড়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন চার জন। ২১ হাজার ৮৩০ ভোটার ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: