সর্বশেষ আপডেট : ১১ ঘন্টা আগে
বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

শাহজালাল সার কারখানার প্রায় ৩৯ কোটি টাকা আত্মসাত

ভূয়া বিল ভাউচার দিয়ে সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্চে নির্মিত শাহ’জালাল ফার্টিলাইজার ফ্যাক্টরি লিমিডেটের ৩৮ কোটি ৭১ লাখ ২৪ হাজার টাকা আত্মসাতের অ’ভিযোগ পাওয়া গেছে। এমন অ’ভিযোগের প্রাথমিক সত্যতাও পেয়েছে দু’র্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

ত’দন্তে প্রাথমিক সত্যতা পেয়ে দুদকের পক্ষ থেকে ১০ জনের বি’রুদ্ধে মা’মলা দায়ের করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুদকের সিলেট জে’লা সমান্বত কার্যালয়ে এই মা’মলা দায়ের করা হয়। বুধবার সিলেট জে’লা ও দায়রা জজ আ’দালতে এই মা’মলার এজাহার জমা দেওয়া হয়েছে।

মা’মলায় শাহ’জালাল সার কারখানার দুই কর্মক’র্তা (বহিস্কৃত) ও ৮ জন ঠিকাদারকে আ’সামি করা হয়েছে।
আ’সামিরা হলেন শাহ’জালাল ফার্টিলাইজার ফ্যাক্টরির সহকারী প্রধান হিসাব রক্ষক (বহিস্কৃত) খন্দকার মুহাম্ম’দ ইকবাল, রসায়নবিদ (বহিস্কৃত) নেছার উদ্দিন আহম’দ, ঠিকাদার মোছাম্মৎ হালিমা আক্তার, মো. নূরুল হোসেন, এএসএম ইসমাইল খান, সাইফুল হক, নাজির আহম’দ (বচন), মো. হেলাল উদ্দিন, মো. জামশেদুর রহমান খন্দকার ও মো, আহসান উল্লাহ চৌধুরী।

মা’মলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করে দুদকের সিলেট জে’লা সমন্বিত কার্যালয়ের উপ পরিচালক নুমেরী আলম বলেন, অর্থ আত্মসাতের অ’ভিযোগ ওঠার পর থেকে আম’রা ত’দন্ত শুরু করি। ছয় মাস দীর্ঘ ত’দন্ত করে প্রায় ৩৯ কোটি টাকা আত্মসাতের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া যায়। এরপর মঙ্গলবার রাতে অ’ভিযু’ক্তদের বি’রুদ্ধে একাধিক মা’মলা করা হয়। বুধবার সিলেট জে’লা ও দায়রা জজ আ’দালতে এজাহগার জমা দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, মা’মলা দায়েরের পর এখন অধিকতর ত’দন্ত চলবে। ত’দন্তে অর্থ আত্মসাতের সাথে আরও কারো সমম্পৃক্ততা পাওয়া গেলে তাকেও আ’সামি করা হবে।

মা’মলার এজাহারে বলা হয়, সার কারখানার বহিস্কৃত দুই কর্মক’র্তা ৮ ঠিকাদারদের যোগসাজশে প্রতারণা এবং জালিয়াতির মাধ্যমে ভূয়া বিল-ভাউচার তৈরী করে ৩৮ কোটি ৭১ লাখ ২৪ হাজার ৯০২ টাকা আত্মসাত করেন।

এ ব্যাপারে শাহ’জালাল ফার্টিলাইজার ফ্যাক্টরির কারও বক্তব্য জানা যায়নি। তবে ফ্যাক্টরির একটি সূত্র জানিয়েছে, অর্থ আত্মসাতের অ’ভিযোগ ওঠার পরই দুই কর্মক’র্তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জে জরাজীর্ন হয়ে পড়া প্রাকৃতিক গ্যাস সারকারখানা (এনজিএলএফ) দীর্ঘদিন ধরে লোকসান গোণায় এই কারখানার পাশেই প্রায় সাড়ে ৫ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে শাহ’জালাল সার কারখানা নির্মান করা হয়। ২০১৭ সালে প্রথম বাণিজ্যিক উৎপাদন শুরু করে শাহ’জালাল সারকারখানা লিমিটেড। তবে নানা কারণেই উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা পুরণে ব্যর্থ হচ্ছে এই কারখানা।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: