সর্বশেষ আপডেট : ১১ ঘন্টা আগে
রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

সিলেটসহ সারাদেশে নভেম্বরে ৪৬৩ দুর্ঘটনায় নিহত ৫৫৪ জন

সিলেটসহ সারাদেশে গত নভেম্বর মাসে ৪৬৩টি সড়ক দুর্ঘ’টনা ৫৫৪ জন নি’হত হয়েছেন। এছাড়া একই সময়ে আ’হত হয়েছেন ৭৪৭ জন। গতমাসে সিলেট বিভাগে সবচেয়ে কম ১৯টি দুর্ঘ’টনায় ২০ জন নি’হত হয়েছেন।

এ তথ্য জানিয়েছে রোড সেফটি ফাউন্ডেশন।রোববার সকালে সংগঠনটি থেকে পাঠানো এক গবেষণা প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

রোড সেফটি ফাউন্ডেশনের তথ্য মতে, দুর্ঘ’টনা নি’হত ৫৫৪ জনের মধ্যে নারী ৭৮জন ও শি’শু ৭১। মোট ১৯৪টি দুর্ঘ’টনার মধ্যে মোটরসাইকেল দুর্ঘ’টনায় নি’হত ২২৯ জন, যা মোট নি’হতের ৪১ দশমিক ৩৩ শতাংশ। মোটরসাইকেল দুর্ঘ’টনার হার ৪১ দশমিক ৯০ শতাংশ।

এছাড়া এসব দুর্ঘ’টনায় ১২৩ জন পথচারী নি’হত হয়েছেন। যা মোট নি’হতের ২২ দশমিক ২০ শতাংশ। যানবাহনের চালক ও সহকারী নি’হত হয়েছেন ৭৯ জন, অর্থাৎ ১৪ দশমিক ২৫ শতাংশ। একই সময়ে ৩টি নৌ-দুর্ঘ’টনায় ৫ জন নি’হত, ৭ জন আ’হত ও ২ জন নি’খোঁজ রয়েছে। ৮টি রেলপথ দুর্ঘ’টনায় ১১ জন নি’হত এবং ৪ জন আ’হত হয়েছেন।

দুর্ঘ’টনায় যানবাহন ভিত্তিক নি’হতের চিত্র: দুর্ঘ’টনায় যানবাহনভিত্তিক নি’হতের পরিসংখ্যানে দেখা যায়, মোটরসাইকেল চালক ও আরোহী ২২৯ জন (৪১ দশমিক ৩৩ শতাংশ), বাস যাত্রী ২৮ জন (৫ দশমিক ০৫ শতাংশ), ট্রাক-কাভা’র্ডভ্যান-পিকআপ-ট্রাক্টর-ট্রলি-ড্রামট্রাক-মিক্সার মেশিন গাড়ি আরোহী ৩৪ জন (৬ দশমিক ১৩ শতাংশ), মাইক্রোবাস-প্রাইভেট’কার যাত্রী ৫ জন (০ দশমিক ৯ শতাংশ), থ্রি-হুইলার যাত্রী (ইজিবাইক-সিএনজি-অটোরিকশা-অটোভ্যান-লেগুনা) ৯৩ জন (১৬ দশমিক ৭৮ শতাংশ), স্থানীয়ভাবে তৈরি যানবাহনের যাত্রী (নসিমন-ভটভটি-পাখিভ্যান-মাহিন্দ্র-ঘাসকা’টা মেশিন গাড়ি) ৩১ জন (৫ দশমিক ৫৯ শতাংশ) এবং বাইসাইকেল-প্যাডেল রিকশা-প্যাডেল ভ্যান আরোহী ১১ জন (১ দশমিক ৯৮ শতাংশ) নি’হত হয়েছে।

দুর্ঘ’টনা সংঘটিত সড়কের ধরন: রোড সেফটি ফাউন্ডেশনের পর্যবেক্ষণ ও বিশ্লেষণ বলছে, দুর্ঘ’টনাগুলোর মধ্যে ১৯২টি (৪১.৪৬ শতাংশ) জাতীয় মহাসড়কে, ১৪৮টি (৩১ দশমিক ৯৬ শতাংশ) আঞ্চলিক সড়কে, ৭৪টি (১৫ দশমিক ৯৮ শতাংশ) গ্রামীণ সড়কে, ৪৩টি (৯ দশমিক ২৮ শতাংশ) শহরের সড়কে এবং অন্যান্য স্থানে ৬টি ১ দশমিক ২৯ শতাংশ সংঘটিত হয়েছে।

দুর্ঘ’টনার ধরন: দুর্ঘ’টনাসমূহের ৮১টি (১৭ দশমিক ৪৯শতাংশ) মুখোমুখি সং’ঘর্ষ, ২০৬টি (৪৪ দশমিক ৪৯শতাংশ) নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে, ১২৬টি (২৭ দশমিক ২১শতাংশ) পথচারীকে চাপা/ধাক্কা দেয়া, ৩৮টি (৮দশমিক ২০শতাংশ) যানবাহনের পেছনে আ’ঘাত করা এবং ১২টি (২ দশমিক ৫৯শতাংশ) অন্যান্য কারণে ঘটেছে।

দুর্ঘ’টনায় সম্পৃক্ত যানবাহনসমূহ: দুর্ঘ’টনায় সম্পৃক্ত যানবাহনের মধ্যে- ট্রাক-কাভা’র্ডভ্যান-পিকআপ-পু’লিশভ্যান ২২ দশমিক ৯৮শতাংশ, ট্রাক্টর-ট্রলি-লরি-ড্রাম ট্রাক-ডাম্পার ট্রাক-ট্যাঙ্ক লরি-মিক্সার মেশিন গাড়ি ৫ দশমিক ৮১ শতাংশ, মাইক্রোবাস-প্রাইভেট’কার-অ্যাম্বুলেন্স ৩ দশমিক ৩০ শতাংশ, যাত্রীবাহী বাস ১২ দশমিক ৫৪ শতাংশ, মোটরসাইকেল ২৮ দশমিক ৬৬শতাংশ, থ্রি-হুইলার (ইজিবাইক-সিএনজি-অটোরিকশা-অটোভ্যান-লেগুনা) ১৬ দশমিক ১১শতাংশ, স্থানীয়ভাবে তৈরি যানবাহন-(নসিমন-ভটভটি-আলমসাধু-পাখিভ্যান-টমটম-মাহিন্দ্র-পাওয়ারটিলার-ধান মাড়াইয়ের মেশিন গাড়ি-ঘাস কা’টার মেশিন গাড়ি) ৭শতাংশ, এবং বাই-সাইকেল-প্যাডেল রিকশা-প্যাডেল ভ্যান ৩ দশমিক ৫৬শতাংশ।

দুর্ঘ’টনায় সম্পৃক্ত যানবাহনের সংখ্যা: দুর্ঘ’টনায় সম্পৃক্ত যানবাহনের সংখ্যা ৭৫৭ টি। (ট্রাক ১২৫, বাস ৯৫, কাভা’র্ডভ্যান ১৮, পিকআপ ৩০, পু’লিশভ্যান ১, ট্রলি ১৫, লরি ৬, ট্রাক্টর ৮, ড্রাম ট্রাক ৭, ডাম্পার ট্রাক ৩, ট্যাঙ্কলরি ৩, মিক্সার মেশিন গাড়ি ২, মাইক্রোবাস ১০, প্রাইভেট’কার ১২, অ্যাম্বুলেন্স ৩, মোটরসাইকেল ২১৭, থ্রি-হুইলার ১২২ (ইজিবাইক-সিএনজি-অটোরিকশা-অটোভ্যান-লেগুনা), স্থানীয়ভাবে তৈরি যানবাহন ৫৩ (নসিমন-ভটভটি-আলমসাধু-পাখিভ্যান-টমটম-মাহিন্দ্র-পাওয়ারটিলার-ধান মাড়াইয়ের মেশিন গাড়ি-ঘাস কা’টার মেশিন গাড়ি) বাই-সাইকেল ৭, প্যাডেল রিকশা ১৪ এবং প্যাডেল ভ্যান ৬টি।

দুর্ঘ’টনার বিভাগওয়ারী পরিসংখ্যান: দুর্ঘ’টনার বিভাগওয়ারী পরিসংখ্যান বলছে, ঢাকা বিভাগে দুর্ঘ’টনা ৩০ দশমিক ৬৬ শতাংশ, প্রা’ণহানি ৩১ দশমিক ৪০শতাংশ, রাজশাহী বিভাগে দুর্ঘ’টনা ১৮ দশমিক ৭৯ শতাংশ, প্রা’ণহানি ১৮ দশমিক ৫৯ শতাংশ, চট্টগ্রাম বিভাগে দুর্ঘ’টনা ১৪ দশমিক ৯০ শতাংশ, প্রা’ণহানি ১৪ দশমিক ২৫ শতাংশ, খুলনা বিভাগে দুর্ঘ’টনা ৯ দশমিক ৫০শতাংশ, প্রা’ণহানি ৯ দশমিক ৩৮ শতাংশ, বরিশাল বিভাগে দুর্ঘ’টনা ৭ দশমিক ১২ শতাংশ, প্রা’ণহানি ৬ দশমিক ৩১ শতাংশ, সিলেট বিভাগে দুর্ঘ’টনা ৪ দশমিক ১০ শতাংশ, প্রা’ণহানি ৩ দশমিক ৬১শতাংশ, রংপুর বিভাগে দুর্ঘ’টনা ৮ দশমিক ২০ শতাংশ, প্রা’ণহানি ৯ দশমিক ২০ শতাংশ এবং ময়মনসিংহ বিভাগে দুর্ঘ’টনা ৬ দশমিক ৬৯শতাংশ, প্রা’ণহানি ৭ দশমিক ২২শতাংশ ঘটেছে।

ঢাকা বিভাগে সবচেয়ে বেশি দুর্ঘ’টনা ও প্রা’ণহানি ঘটেছে। ১৪২টি দুর্ঘ’টনায় ১৭৪ জন নি’হত।সিলেট বিভাগে সবচেয়ে কম ১৯টি দুর্ঘ’টনায় ২০ জন নি’হত। একক জে’লা হিসেবে চট্টগ্রামে সবচেয়ে বেশি ২৭টি দুর্ঘ’টনা ঘটেছে এবং ময়মনসিংহ জে’লায় সবচেয়ে বেশি ২৫ জনের প্রা’ণহানি ঘটেছে। সবচেয়ে কম দুর্ঘ’টনা ঘটেছে মানিকগঞ্জ, নড়াইল, ঝালকাঠি, লালমনিরহাট ও রাঙ্গামাটি জে’লায়। এই ৫টি জে’লায় ১১টি দুর্ঘ’টনা ঘটলেও কোনো প্রা’ণহানি ঘটেনি। রাজধানী ঢাকায় ১৮ টি দুর্ঘ’টনায় ১৩ জন নি’হত ও ২২ জন আ’হত হয়েছে।

দুর্ঘ’টনা পর্যালোচনা দেখা গেছে, গত অক্টোবর মাসে ৪২৭ টি সড়ক দুর্ঘ’টনায় ৪৮২ জন নি’হত হয়েছিল। এই হিসাবে নভেম্বর মাসে দুর্ঘ’টনা বেড়েছে ৮.৪৩ শতাংশ এবং প্রা’ণহানি বেড়েছে ১৪.৯৩ শতাংশ। নভেম্বর মাসে প্রতিদিন গড়ে নি’হত হয়েছে ১৮.৪৬ জন, অর্থাৎ ১৯ জন। দুর্ঘ’টনায় ১৮ থেকে ৬৫ বছর বয়সী কর্মক্ষম মানুষ নি’হত হয়েছেন ৪৪৬ জন, অর্থাৎ ৮০.৫০ শতাংশ।

সড়ক দুর্ঘ’টনা নিয়ন্ত্রণে “সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮” বাস্তবায়নে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে আন্তরিকভাবে উদ্যোগী হতে হবে। সড়ক দুর্ঘ’টনা ঘটছে মূলত সড়ক পরিবহন খাতের নৈরাজ্য ও অব্যস্থাপনার কারণে। এই অবস্থার উন্নয়নে টেকসই গণপরিবহন কৌশল প্রণয়ন করতে হবে। এ জন্য প্রয়োজন সরকারের রাজনৈতিক সদিচ্ছা।

রোড সেফটি ফাউন্ডেশন ৯টি জাতীয় দৈনিক, ৭টি অনলাইন নিউজ পোর্টাল এবং ইলেক্ট্রনিক গণমাধ্যমের তথ্যের ভিত্তিতে প্রতিবেদনটি তৈরি করেছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: