সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

মৃত্যুর আগে কোলের সন্তানকে বাঁচিয়ে গেলেন মা

সন্তানের জন্য মায়ের ভালোবাসা ও আত্মত্যাগের নজির বারবার সামনে এসেছে। চীনের হেনান প্রদেশে ভয়াবহ বন্যার কবল থেকে সন্তানকে বাঁচাতে পারলেও নিজেকে রক্ষা করতে পারেননি মা। এমন হৃদয় বিদারক ঘটনা ছড়িয়ে পড়েছে সবর্ত্র।

গত কয়েদিন ধরে চীনের বেশ কয়েকটি অঞ্চল বন্যার পানিতে ভাসছে। প্রবল বর্ষণে হেনান প্রদেশেরও একই অবস্থা। বানের পানিতে তলিয়ে গেছে বহু ঘর-বাড়ি। আশ্রয়হীন বহু বাসিন্দা।

গত বুধবার হেনানের ওয়াংজংডিয়ান গ্রামে বন্যা-ভূমিধসে ক্ষতিগ্রস্ত একটি বাড়ির ভেতর থেকে এক শিশুকে উদ্ধার করা হয়েছে। প্রায় ২৪ ঘণ্টা ধ্বংসস্তূপ আর কাঁদামাটির নিচে আটকা থেকেও অলৌকিকভাবে উদ্ধার হয় তিন থেকে চার মাস বয়সী শিশুটিকে। আর বৃহস্পতিবার মৃত অবস্থায় তার মাকে খুঁজে পাওয়া যায়।

খবরে বলা হয়েছে, ধ্বংসস্তূপে চাপা পড়ে শিশু সন্তানসহ মা। কিন্তু সন্তানকে সুক্ষিত জায়গায় রেখে দেন তিনি। আর মায়ের দুই হাত উঁচু করা ছিল, ঠিক যেদিকে তার সন্তান সুরক্ষিত অবস্থায় বেঁচে রয়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দা ঝৌহু স্থানীয় এক সংবদামাধ্যমকে বলেন, আমি শিশুটির কান্নার আওয়াজ শুনি। পরে উদ্ধারকর্মীরা ওই বাড়িতে এসে পৌঁছায় এবং শিশুটিকে বাঁচাতে সক্ষম হয়। তার মা তাকে সুরক্ষিত জায়গায় রেখে দিয়েছিলেন। কিন্তু তিনি আর বেঁচে নেই। শিশুটিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

চীনে বন্যায় এখন পর্যন্ত ৫১ জনের মৃত্যু হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত কয়েক লাখ বাসিন্দাকে উদ্ধার করে নিরাপদ আশ্রয় নেওয়া হয়েছে। ভারী বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকায় বন্যা পরিস্থিতি সামনে আরও অবনিত আশঙ্কা করছে কর্তৃপক্ষ। সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 174
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    174
    Shares
নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: