সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

চাকরি হারালেন আকিজ জুট মিলের ৬৩০০ শ্রমিক

ডেইলি সিলেট ডেস্ক :

যশোরের অভয়নগরের আকিজ জুট মিলের ৬ হাজার ৩০০ শ্রমিককে কাজে আসতে নিষেধ করেছে মিল কর্তৃপক্ষ। বৈদেশিক অর্ডার না থাকায় এবং দেশের বাজারে পাটের মূল্যবৃদ্ধির কারণে কারখানা সচল রাখা সম্ভব হচ্ছে না জানিয়ে এসব কর্মীকে চাকুরিচ্যুত করা হয়েছে। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে কর্মীদের আনা-নেওয়ার কাজে নিয়োজিত ২৩টি বাসের সার্ভিস।

মঙ্গলবার (১৫ নভেম্বর) থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মিলের নির্বাহী পরিচালক শেখ আব্দুল হাকিম।

জানা গেছে, আকিজ জুট মিলস্ দেশে বেসরকারি খাতে পরিচালিত বৃহৎ জুট মিল। এ জুট মিলে তিন শিফটে যশোর, খুলনা ও নড়াইল জেলার বিভিন্ন উপজেলার সাত হাজার শ্রমিক নিয়মিত কাজ করে। প্রতিদিন ২৩টি বাসের মাধ্যমে শ্রমিকদের কারখানায় আনা-নেওয়া করা হয়। মঙ্গলবার থেকে আকস্মিক বন্ধ করা হয়েছে বাস সার্ভিস। স্থায়ী ৭০০ শ্রমিক বাদে বাকিদের কাজে আসতে নিষেধ করেছে মিল কর্তৃপক্ষ।

মিলের সিবিএ সভাপতি আব্দুস সালাম বলেন, অভ্যন্তরীণ বাজারে গুণগত পাট পাওয়া যাচ্ছে না এবং পাটের মূল্য অনেক বেশি হওয়ায় উৎপাদন সীমিত করেছে কর্তৃপক্ষ। মিলে ৬ হাজার ৩০০ বদলি শ্রমিক রয়েছে এবং তাদেরই কাজে আসতে নিষেধ করা হয়েছে। বাকি ৭০০ স্থায়ী কর্মী দিয়ে মিলের কার্যক্রম চলমান রয়েছে। তা ছাড়া বৈদেশিক অর্ডারও কমে গেছে।

এ বিষয়ে আকিজ জুট মিলের নির্বাহী পরিচালক শেখ আব্দুল হাকিম বলেন, আমাদের পণ্য মূলত তুরস্কে যায়। রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে উৎপাদিত পণ্য পাঠানো যাচ্ছে না। পাঠাতে গেলে খরচও বেশি হচ্ছে। সেই সঙ্গে নতুন অর্ডারও কমে গেছে। পাশাপাশি দেশের বাজারে গুণগত মানের পাট পাওয়া যাচ্ছে না। যে পাট পাওয়া যাচ্ছে তার দাম অনেক বেশি। সবমিলিয়ে তিন শিফটে উৎপাদন সচল রাখা সম্ভব হচ্ছে না। লোকসান এড়াতে স্থায়ী শ্রমিকদের দিয়ে এখন দুটি শিফটে কাজ চলছে।

তিনি বলেন, বদলি শ্রমিকদের কাজে আসতে নিষেধ করা হয়েছে। এ কারণে বাস সার্ভিসও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। মিলের শ্রমিকদের প্রতি সপ্তাহের বৃহস্পতিবার পাওনা পরিশোধ করে দেওয়া হয়। বদলি শ্রমিকদের পাওনা বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে। এরপরও যদি কেউ তাদের মজুরি না পান তাহলে মিলে যোগাযোগ করলে পরিশোধ করা হবে।

শেখ আব্দুল হাকিম বলেন, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে মিলের কার্যক্রম আবারও পূর্ণ উদ্যমে শুরু করা হবে। তখন বদলি শ্রমিকরা আবারও কাজে যোগ দিতে পারবেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: