সর্বশেষ আপডেট : ৪ ঘন্টা আগে
বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

নিউইয়র্কে অভিবাসীর ঢল, জরুরি অবস্থা ঘোষণা

ডেইলি সিলেট ডেস্ক ::

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক শহরে অভিবাসন প্রত্যাশীদের ঢল নেমেছে। দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় সীমান্ত থেকে এ নগরীতে গত ছয় মাসে ১৭ হাজারেরও বেশি অভিবাসন প্রত্যাশী এসে হাজির হয়েছেন। টেক্সাস, আরিজোনা ও ফ্লোরিডার মতো রিপাবলিকান শাসিত অঙ্গরাজ্যগুলো থেকে নিউইয়র্কে অভিবাসন আবেদন পাঠানো হচ্ছে। এই পরিস্থিতিকে সংকটজনক অভিহিত করে নিউইয়র্কের মেয়র এরিক অ্যাডামস সেখানে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছেন।

খবরে বলা হয়, টেক্সাস, আরিজোনা ও ফ্লোরিডার মতো রিপাবলিকান অঙ্গরাজ্যগুলো সাম্প্রতিক মাসগুলোতে ডেমোক্র্যাট নিয়ন্ত্রিত এলাকায় অভিবাসন প্রত্যাশীদের পাঠানো শুরু করে। বিবিসি জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্তে রেকর্ড সংখ্যক অভিবাসন প্রত্যাশী হাজির হওয়ার পর হোয়াইট হাউসের সঙ্গে রিপাবলিকান অঙ্গরাজ্যগুলোর মতভেদের জের ধরে এ ঘটনা ঘটছে। খবর বিবিসির।

নিউইয়র্কের মেয়র অ্যাডামস শুক্রবার (৭ অক্টোবর) এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, সেপ্টেম্বর থেকে প্রতিদিন পাঁচ থেকে ছয়টি বাস অভিবাসন প্রত্যাশীদের নিয়ে নগরীতে এসে হাজির হচ্ছে। এখন নগরীর আশ্রয় কেন্দ্রগুলোর প্রতি পাঁচ জন বাসিন্দার একজন অভিবাসন প্রত্যাশী। যারা আসছেন তাদের মধ্যে অনেক পরিবারে স্কুলে যাওয়ার বয়সী শিশু আছে আর তাদের অনেকেরই জরুরি চিকিৎসা সেবা দরকার।

অভিবাসন প্রত্যাশীরা এই হারে আসতে থাকায় চলতি অর্থবছরে নিউ ইয়র্ক কর্তৃপক্ষকে অতিরিক্ত এক বিলিয়ন ডলার ব্যয় করতে হবে জানিয়ে মেয়র বলেন, এই ব্যয় বহনের জন্য কেন্দ্রীয় ও রাজ্য সরকারকে এগিয়ে আসতে হবে।

মেয়র অ্যাডামস আরও বলেন, নিউইয়র্কবাসী ক্ষুব্ধ। আমিও ক্ষুব্ধ। আমরা এটা চাইনি। নিউ ইয়র্ক তার সামর্থ্যরে শেষ পর্যায়ে পৌঁছে গেছে। ‘অন্যরা রাজনৈতিক স্বার্থ হাসিল করার উদ্দেশ্যে’ নিউইয়র্ক নগরীর সামাজিক বিভাগকে চাপে ফেলছে। এই চাপ থেকে উদ্ধার এবং অর্থিক বিষয়টির দিকে নজর রেখে এ বিষয়ে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেওয়ার জন্য তিনি কেন্দ্রীয় সরকার ও অঙ্গরাজ্যের সরকারগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

টেক্সাস, আরিজোনা ও ফ্লোরিডা- এই তিনটি অঙ্গরাজ্য অভিবাসন প্রত্যাশীদের ডেমোক্র্যাট নেতৃত্বাধীন এলাকায় পাঠিয়ে দিচ্ছে। অভিবাসন প্রত্যাশীদের চাপ কমাতে এ কৌশল নেওয়া হয়েছে বলে সীমান্তবর্তী মার্কিন অঙ্গরাজ্যগুলোর কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। তারা বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণাঞ্চলীয় সীমান্তগুলো অতিক্রম করে প্রবেশ করতে থাকা অভিবাসন প্রত্যাশীদের সংখ্যা কমাতে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসন যেন আরও কিছু করে সে বিষয়ে চাপ বাড়াতেই তারা এ পদক্ষেপ নিয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: