সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

বাংলাদেশী দাবাড়ু মেয়েদের ভিসা দেয়নি ইতালী দূতাবাস

বিশ্ব জুনিয়র দাবা চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নিতে বেশ কিছু দিন অনুশীলন করে আসছিলেন নোশিন আনজুম-সুব্রত বিশ্বা’সরা। গ্র্যান্ডমাস্টার এনামুল হোসেন রাজীব তাদের দিক-নির্দেশনা দিয়ে আসছিলেন। কিন্তু আগামী ১১ থেকে ২৩ অক্টোবর ইতালির সার্দিনিয়া শহরে শুরু হতে যাওয়া টুর্নামেন্টে আর অংশ নেওয়া অংশ হচ্ছে না ওই দাবাড়ুদের। পালিয়ে যাওয়ার শ’ঙ্কায় বাংলাদেশ দলের কাউকে ভিসা দেয়নি ইতালির দূতাবাস। এমন খবর জানতে পেরে যারপরনাই হতাশ দলের সবাই।

এই টুর্নামেন্ট’কে ঘিরে সুব্রত বিশ্বা’স, ওয়ালিজা আহমেদ, ওয়াদিফা আহমেদ, নিলাভো চৌধুরী, জান্নাতুল ফেরদৌস, শাহদাত কিবরিয়া ও নোশিন আনজুমের অনেক প্রত্যাশা ছিল। আশায় ছিলেন ওপেন ও গার্লস বিভাগে খেলে নিজেদের আরও ঋদ্ধ করতে পারবেন। কিন্তু সব পরিশ্রমই বৃথা গেলো শেষ পর্যন্ত।

৭জন দাবাড়ুর অন্যতম নোশিন আনজুম তো হতাশা প্রকাশ করেছেন বাংলা ট্রিবিউনের কাছে, ‘না যেতে পেরে অনেক খা’রাপ লাগছে। এক মাস ধরে ভিসার জন্য চেষ্টা করেছি। কোর্টের কাগজপত্রও দিয়েছি। এছাড়া অন্য কাগজ পত্রও দিতে হয়েছে। সাড়ে ১২ হাজার টাকা ফি ছিল। টিকিটও কা’টা হয়েছে। এখন রিফান্ডের টাকাও পাওয়া যাবে না। আসলে এমনটি হবে আম’রা কেউ আশা করিনি। ইতালি যে আমাদের ভিসা দেবে না, চিন্তাতেও ছিল না।’

ইতালিতে বিশ্বের প্রায় সব দেশের দাবাড়ু অংশ নেবে। তাই সুব্রত-নোশিনরা চাইছিলেন সেখানে ইতিবাচক ফল করে যদি নর্ম অর্জন করা যায়। নোশিন বলছিলেন, ‘বিশ্বের সব দল খেলবে, বড় ইভেন্ট। অনেক অ’ভিজ্ঞতাও হতো। নর্ম অর্জনের বড় সুযোগ হাতছাড়া হলো। হয়তো ইউরোপে খেলা হওয়াতে সমস্যা হলো। সবারই এখন মন খা’রাপ।’

গত বুধবার ঢাকার ইতালির দূতাবাসে গিয়েছিলেন নোশিনরাও। কিন্তু দেখা করার সুযোগ পাননি। ঘটনার বিস্তারিত বর্ণনায় বলেছেন, ‘‘আম’রা চেষ্টা করেও রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে দেখা করতে পারিনি। মলি আন্টি(মাহমুদা আক্তার, হেড অব ডেলিগেশন) ছাড়া কেউই কথা বলতে পারেনি। পরে শুনেছি ওদের একটাই কথা, আমাদের দেবে না। শুনেছি এমনও বলেছে, ‘তোম’রা বাঙালিরা গিয়ে থেকে যাও কেন।’ এরপর মলি আন্টি রাগ করে বেরিয়ে আসেন। আসলে এমন তিক্ত অ’ভিজ্ঞতা আগে কখনও হয়নি। অনেক দেশে খেলতে গিয়েছি। কিন্তু ভিসা প্রত্যাখাত হয়নি।’’

বিশ্ব জুনিয়র দাবায় বাংলাদেশের হেড অব ডেলিগেশন মাহমুদা হক মলি দুঃখভা’রাক্রান্ত মনে জানিয়েছেন, ‘আম’রা শুনেছি শুধু বাংলাদেশ নয়, শ্রীলঙ্কার দাবাড়ুদেরও নাকি ভিসা দেওয়া হয়নি। ওই দিন ঢাকায় ইতালির রাষ্ট্রদূতকে বোঝানোর চেষ্টা করেও আম’রা সফল হইনি। আসলে দুর্ভাগ্য। ওরা ভালো একটি টুর্নামেন্টে খেলা থেকে বঞ্চিত হলো।’

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: