সর্বশেষ আপডেট : ৪৫ মিনিট ৯ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

লন্ডনে লেবার পার্টি থেকে বাংলাদেশী বংশদ্ভোত ব্রিটিশ এমপি রূপা হককে বহিস্কার

ডেইলি সিলেট ডেস্ক :

বর্ণবাদী মন্তব্যের কারণে বাংলাদেশী বংশোদ্ভোত লেবার দলীয় ব্রিটিশ এমপি রূপা হককে লেবার পার্টি থেকে সাময়িক বহিস্কার করা হয়েছে। লেবার পার্টির কনফারেন্স ফ্রীঞ্জ ইভেন্টে চ্যান্সেলর কোয়াসি কোয়ার্টেং সম্পর্কে এক মন্তব্যের কারনে তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয় তার নিজ দল লেবার পার্টি। কনফারেন্স ফ্রিঞ্জ ইভেন্টে রূপা হক চ্যান্সেলর “সুপারফিশিয়ালি” কালো বলে মন্তব্য করলে তীব্র সমালোচনার সম্মুখীন হন। এই প্রেক্ষাপটে তাঁর দল লেবার পার্টি বিষয়টি তদন্ত এবং তদন্তকালীন সময়ে তাঁকে দল থেকে সাময়িক বহিস্কার ও দলীয় হুইপের পদ থেকে প্রত্যাহার করে নিয়েছে।

পার্টি কনফারেন্স ফ্রীঞ্জ ইভেন্টে কোয়াসি কোয়ার্টেং সম্পর্কে কথা বলতে গিয়ে, মিসেস রূপা হক বলেছিলেন: “আপনি যদি আজকের প্রোগ্রামে তার কথা শুনতে পান, তবে আপনি জানতে পারবেন না যে তিনি কালো।”ক্ষমতাসীন করজারবেটিভ পার্টির চেয়ার জেক বেরি তার এই মন্তব্যকে বর্ণবাদী এবং ঘৃণ্য বলে অভিহিত করেছেন। ডেপুটি লেবার নেত্রী অ্যাঞ্জেলা রেনার বলেছেন, এই মন্তব্য “অগ্রহণযোগ্য”। বিবিসির পলিটিক্স লাইভ প্রোগ্রামের সাথে কথা বলার সময়, তিনি বলেন, ‘মিসেস হকের ক্ষমা চাওয়া উচিত, যখন পার্টির পররাষ্ট্র বিষয়ক মুখপাত্র ডেভিড ল্যামি মন্তব্যটিকে “দুর্ভাগ্যজনক” বলে বর্ণনা করেছেন’। অ্যাঞ্জেলা বলেন, “আমি নিজে এমন মন্তব্য করতাম না।” সাবেক চ্যান্সেলর এবং টোরি এমপি সাজিদ জাভিদ বলেছেন যে তিনি ক্লিপটি দেখে “আতঙ্কিত এবং দুঃখিত”। বলেছেন, “বর্ণবাদী এবং যারা আমাদের বিভক্ত করতে চায় তাদের উৎসাহিত করা উচিত নয়।”

সংসদীয় দল সদস্য পদ স্থগিত হওয়ায় রূপা হক এখন একজন স্বতন্ত্র সাংসদ হিসেবে পার্লামেন্টে বসবেন। গ্রেটার লন্ডনের ইলিং সেন্ট্রাল ও একটনের এমপি রূপা হক সোমবার সন্ধ্যায় ‘হোয়াটস নেক্সট ফর লেবারস এজেন্ডা অন রেস’ শিরোনামের একটি প্রান্তিক ইভেন্টে মন্তব্য করার পর এটি রেকর্ড করা হয়।অডিও ক্লিপটি Guido Fawkes ওয়েবসাইটে প্রকাশ হয় লিভারপুলে লেবার পার্টি সম্মেলনে স্যার কেয়ার স্টারমারের বক্তব্য শুরুর কয়েক মিনিট আগে।

প্রশ্নোত্তর অধিবেশন চলাকালীন রূপা বলেছিলেন, “তিনি অতিমাত্রায় একজন কালো মানুষ, কিন্তু তার মধ্যে আবার কমন অনেক মিল রয়েছে। ব্যায়বহুল প্রিপ স্কুল ইটনে গিয়েছেন তিনি, অধ্যায়ন করেছেন দেশের শীর্ষ বিদ্যালয়গুলিতে। আপনি যদি আজকের প্রোগ্রামে তার কথা শুনতে পান তবে বুঝতেই পারবেন না যে তিনি কালো।” ঘানার বংশদ্বোত মিঃ কোয়ার্টেং এই মাসের শুরুতে লিজ ট্রাষ্টের মন্ত্রী সভায় চ্যান্সেলর হয়েছেন। তার জন্ম পূর্ব লন্ডনে।

বাংলাদেশী বংশদ্বোত লেবার দলীয় ব্রিটিশ এমপি হকের মন্তব্য নিয়ে সমগ্র ব্রিটেনে চলছে আলোচনা সমালোচনা। রুপা হক নিজেও একজন অভিবাসী সম্প্রদায়ের যাকে নিয়ে মন্তব্য করেছেন তিনিও অভিবাসী সম্প্রদায়ের । ব্রিটেনের বহুজাতিক সমাজ থেকে বর্ণবাদ বর্ণবাদ দূর করতে যখন সকল দল মতের মানুষ এককত্রে কাজ করছে ঠিক এই সময় একজন এমপির কাছ থেকে এমন মন্তব্য সত্যিই দুঃখজনক।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: