সর্বশেষ আপডেট : ১০ ঘন্টা আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

৬৫ বছর বয়সে সাড়ে ২২ কিলোমিটার সাঁতার শহীদুলের

নরসিংদীর রায়পুরায় ৬৫ বছর বয়সী এক বৃদ্ধ সাঁতরে সাড়ে ২২ কিলোমিটার পাড়ি দিয়েছেন। অবশ্য এটি তার জন্য কোনো নতুন ঘটনা নয়। এর আগেও মেঘনায় ১৫ কিলোমিটার সাঁতার কে’টে এলাকায় রীতিমতো হইচই ফেলেন তিনি।

সাঁতারু শহীদুল ইস’লাম পেশায় একজন কৃষক। তিনি উপজে’লার আমিরগঞ্জ ইউনিয়নের হাজি দানিছ মিয়ার ছে’লে।

শনিবার সকাল পৌনে ৯টায় উপজে’লার আদিয়াবাদ ইস’লামিয়া স্কুল ও কলেজ ঘাট থেকে সাঁতার শুরু করেন শহীদুল। আড়িয়াল খাঁ নদ ও মেঘনা নদীর সাড়ে ২২ কিলোমিটার সাঁতরে দুপুর ২টা ১৫ মিনিটে পৌঁছান নাগরিয়াকান্দি সেতু ঘাটে। এতে তিনি সময় নেন প্রায় সাড়ে ৫ ঘণ্টা।

এ সময় স্পিবোড, ইঞ্জিলচালিত নৌকায় করে এবং নদীর দুপাড়ে উৎসুক জনতা শহীদুলের সাঁতার দেখতে ভিড় জমান।

জানা গেছে, একটি ম’সজিদ নির্মাণের জন্য একখণ্ড জমি দান করেন শহীদুল। পরে নির্মাণসামগ্রী কেনার টাকা সংগ্রহের জন্য একক সাঁতার প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়ার ঘোষণা দেন তিনি। যদিও ওই সময় তার এ ঘোষণাকে কেউ আমলে নেয়নি। ২০২১ সালে ১৩ সেপ্টেম্বর উপজে’লার মনিপুরা মেঘনা ঘাট থেকে সাঁতরে ১৫ কিলোমিটার পাড়ি দিয়ে পৌঁছে যান নরসিংদী সদর ঘাটে।

এতে তিনি সময় নেন চার ঘণ্টা। ওই সময় স্থানীয় কয়েকজন ব্যক্তি তাকে দেড় লাখ টাকা পুরস্কার ঘোষণা করেন। পরে সেই টাকা ম’সজিদ নির্মাণে দান করার ঘোষণা দিয়ে সংবাদপত্রে শিরোনাম হন শহীদুল ইস’লাম; কিন্তু পরে পুরস্কারের অর্থ পাননি তিনি।

অদম্য শহীদুল ইস’লাম হাল ছাড়ার পাত্র নন। বয়সের ভা’রে একটুও নুয়ে পড়েননি। ৬৫ বছর বয়সী শহীদুল আবারো ঘোষণা দেন সাঁতরে উপজে’লা আদিয়াবাদ ঘাট থেকে নরসিংদীর নাগরিয়াকান্দি ব্রিজে পৌঁছবেন। যদি কেউ তাকে পুরস্কৃত করেন তা দিয়ে ম’সজিদ নির্মাণসামগ্রী কিনবেন। শনিবার সকাল পৌনে ৯টায় উপজে’লার আদিয়াবাদ ঘাট থেকে সাঁতার শুরু হয়। সাড়ে পাঁচ ঘণ্টায় সাড়ে ২২ কিলোমিটার সাঁতরে নাগরিয়াকান্দি ঘাটে পৌঁছার পর তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান রায়পুরা উপজে’লা ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল মোমেনসহ উৎসুক জনতা।

স্থানীয় এমআর মামুন বলেন, একটি স্পিডবোটে করে পুরো সময় সাঁতারু শহীদুল ইস’লামের সঙ্গে ছিলাম। একটু পরপর হাত নেড়ে জানান দিচ্ছিলেন সুস্থ আছেন তিনি। তার মাঝে কোন ক্লান্তি লক্ষ্য করিনি। অনেক যুবক তার সঙ্গে সাঁতার কে’টে অল্পতেই হাঁপিয়ে যেতে দেখেছি। কিন্ত শহীদুল বিরামহীনভাবে সাঁতরে লক্ষ্য পৌঁছান।

সোহেল, রবিন, রাসেল নামে তিন যুবক জানান, আগেও তিনি সাঁতরে ১৫ কিলোমিটার পাড়ি দিয়েছেন। এবার সাড়ে ২২ কিলোমিটার। বৃদ্ধ শহীদুল ইস’লাম রায়পুরার গর্ব। শহীদুলের সাঁতার দেখতে সকাল থেকেই নৌকা নিয়ে অ’পেক্ষায় ছিলেন বলে জানান তাঁরা।

অনুভূতি জানতে চাইলে কেঁদে ফেলেন সাঁতারু শহীদুল ইস’লাম। তিনি জানান, এর আগে সাঁতরে নরসিংদী গিয়েছিলেন। এ সময় দেড় লাখ টাকার পুরস্কার ঘোষণা দেন স্থানীয় কয়েকজন। পরে তাদের কেউ যোগাযোগ করেনি। যদি কেউ তাকে পুরস্কৃত করেন তাহলে প্রাপ্ত অর্থ ম’সজিদ নির্মাণে ব্যয় করা হবে বলে জানান তিনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: