সর্বশেষ আপডেট : ৪ ঘন্টা আগে
বৃহস্পতিবার, ৬ অক্টোবর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২১ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

শিগগিরই তিস্তা চুক্তি সই হবে, আশা প্রধানমন্ত্রীর

ভা’রত বাংলাদেশের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এবং ঘনিষ্ঠতম প্রতিবেশি উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশ দু’টির দ্বিপাক্ষিক স’ম্পর্ককে প্রতিবেশি কূটনীতির রোল মডেল বলে অ’ভিহিত করেছেন। সেইসঙ্গে তিনি আশা প্রকাশ করে বলেছেন, বন্ধুত্ব ও সহযোগিতার মনোভাব নিয়ে সমাধান করা অন্যান্য অনেক সমস্যার মতোই তিস্তা পানিবণ্টন চুক্তিসহ সব অমীমাংসিত সমস্যা শিগগিরই সমাধান হবে।

মঙ্গলবার (৬ সেপ্টেম্বর) ভা’রতের হায়দারাবাদ হাউজে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ও তার প্রতিনিধি দল এবং ভা’রতের প্রতিনিধি দলের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক আলোচনা এবং দুই দেশের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের মধ্যে সই হওয়া সাতটি সমঝোতা স্মা’রক বিনিময় প্রত্যক্ষ করার পর জারি করা এক বিবৃতিতে তিনি এ আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

বিবৃতিতে তিনি উল্লেখ করেন, ‘গত এক দশকে উভ’য় দেশই বেশ কয়েকটি ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি অর্জন করেছে। দুটি দেশ বন্ধুত্ব ও সহযোগিতার চেতনায় অনেক অমীমাংসীত ইস্যু সমাধান করেছে। এবং আম’রা অবিলম্বে তিস্তা পানিবণ্টন চুক্তি দ্রুত সই করাসহ সব অমীমাংসীত ইস্যুর সমাধান আশা করছি।’

দুই দেশের মধ্যে কুশিয়ারা নদীর পানিবন্টন নিয়ে সমঝোতা স্মা’রক সইয়ের কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘তিস্তার পানিবণ্টন চুক্তিসহ ৫৪টি অ’ভিন্ন নদ-নদীর পানি বণ্টনের মতো সব সমস্যার সমাধান করা হবে।’ শেখ হাসিনা বলেন, ‘তিনি ও তার ভা’রতীয় সমকক্ষ নরেন্দ্র মোদি আরেক দফা ফলপ্রসূ আলোচনা শেষ করেছেন এবং এর ফলাফল উভ’য় দেশের জনগণের জন্য কল্যাণ বয়ে আনবে।’

তিনি বলেন, ‘আম’রা ঘনিষ্ঠ বন্ধুত্ব ও সহযোগিতার মনোভাব নিয়ে বৈঠক করেছি। আগামী দিনগুলোতে আমাদের স’ম্পর্ককে এগিয়ে নিতে আম’রা দ্বি-পাক্ষিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট ব্যাপক বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছি। আলোচনার সময় তারা অঙ্গীকার বাস্তবায়নের সম্ভাব্য উপায় স’ম্পর্কে এবং পারস্পরিক কল্যাণের লক্ষ্যে একে অ’পরের অগ্রাধিকারগুলোকে গুরুত্ব দেওয়ার প্রয়োজনীয়তার উপর জো’র দিয়েছেন।’

বঙ্গবন্ধুকন্যা বলেন, ‘সংযোগ, ব্যবসা-বাণিজ্য, বিনিয়োগ, পানি সম্পদ ব্যবস্থাপনা, নিরাপত্তা, সীমানা এবং লাইন অব ক্রেডিট স’ম্পর্কে আম’রা আলোচনা করেছি।’ তিনি উল্লেখ করেন যে, ‘গত ৫০ বছরে একটি শক্তিশালী অংশীদারিত্ব তৈরি করে উভ’য় দেশ পারস্পরিক স্বার্থে ক্রমবর্ধমান ব্যাপক বিষয়ে কাজ করছে।’

তিনি বলেন, ‘আমি এবং প্রধানমন্ত্রী মোদি আমাদের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি বজায় রাখতে এবং আমাদের দুই দেশে ও এ অঞ্চলে শান্তি, নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখার জন্য সহযোগিতামূলক প্রচেষ্টা চালিয়ে যেতে সম্মত হয়েছি। বাংলাদেশ ও ভা’রত যদি অংশীদার হিসেবে একসঙ্গে কাজ করতে পারে, তাহলে এটি শুধু দেশগুলোর জন্যই নয়, বরং সমগ্র অঞ্চলে শান্তি ও সমৃদ্ধি বয়ে আনবে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘৫৪টি অ’ভিন্ন নদী এবং চার হাজার কিলোমিটার সীমান্তবেষ্টিত বাংলাদেশ ও ভা’রত দুই দেশের জনগোষ্ঠীর সম্মিলিত কল্যাণে বদ্ধপরিকর।’ তিনি বলেন, ‘১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মহান মুক্তিযু’দ্ধে শহিদ বা গুরুতর আ’হত ভা’রতের প্রতিরক্ষা বাহিনীর সৈনিক/কর্মক’র্তাদের সরাসরি বংশধরদের ‘মুজিব বৃত্তি’ দেওয়া হবে।’ বিবৃতিতে তিনি বাংলাদেশের মুক্তিযু’দ্ধে ভা’রত সরকার ও জনগণের অমূল্য সম’র্থনের জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘স্বাধীনতা লাভের পর থেকে, বাংলাদেশ-ভা’রত স’ম্পর্ক অ’ভিন্ন ইতিহাস ও সংস্কৃতি, পারস্পরিক আস্থা ও শ্রদ্ধা, দীর্ঘস্থায়ী বন্ধুত্ব এবং অব্যাহত সহযোগিতায় জো’রদার হয়েছে।’ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ সময় নরেন্দ্র মোদির দূরদর্শী নেতৃত্বের প্রশংসা করেন, যা প্রতিবেশি দেশগুলোর মধ্যে দ্বিপাক্ষিক স’ম্পর্কের ক্ষেত্রে অধিকতর গতি সঞ্চার করে চলেছে।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ভা’রতের স্বাধীনতার ৭৫তম বছর উপলক্ষে বছরব্যাপী উদযাপন ‘আজাদি কা অমৃ’ত মহোৎসব’র সফল সমাপ্তির জন্য ভা’রত সরকার এবং দেশটির জনগণকে অ’ভিনন্দন জানান। খবর: বাসস

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: