সর্বশেষ আপডেট : ১৮ মিনিট ৪৬ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ১ অক্টোবর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৬ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

নিখোঁজের ১৯ বছর পর মেয়েকে পেলেন মা

অন্য দিনের মতো রাজধানীর মিন্টো রোডের ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পু’লিশের কার্যালয়ে চলছিল গোয়েন্দা কার্যক্রম। গোয়েন্দা কর্মক’র্তাদের কাছে দিনটি অন্যান্য সাধারণ দিনের মতো হলেও ১৯ বছর ধরে একজন সন্তান হারা মায়ের কাছে ও মা হারা সন্তানের দিনটি ছিল বিশেষ দিন।

সিনেমা’র গল্পকেও হার মানিয়েছে ঘটনাটি। গল্পকেই যেন বাস্তবে রূপ দিয়েছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পু’লিশ (ডিবি)। ঢাকা মেট্রোপলিটন পু’লিশের অ’তিরিক্ত কমিশনার ও ডিবি প্রধান মোহাম্ম’দ হারুন অর রশীদের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় ১৯ বছর পর এক মা ফিরে পেয়েছেন তার মে’য়েকে। দীর্ঘদিন পর মাকে পেয়ে আপ্লুত হয়ে পড়েন মে’য়ে লাকী’। আর হা’রানো মে’য়েকে ফিরে পেয়ে ডিবির প্রতি কৃতজ্ঞ মা মোছা. হামিদা খাতুন।

লাকী’র মা হা’রানো মে’য়েকে খুঁজে পেতে ডিবিতে আবেদন করেন। আবেদনের সঙ্গে ২০০৩ সালে হারিয়ে যাওয়ার পর অষ্টগ্রাম থা’নায় করা জিডি ও চেয়ারম্যান কাছে করা নিখোঁজ আবেদন সংযু’ক্ত করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে ডিবি-প্রধান অ’তিরিক্ত পু’লিশ কমিশনার মোহাম্ম’দ হারুন অর রশীদের নির্দেশনা ও প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে ডিবি-সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রা’ইম ডিভিশন তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ এবং বিশ্লেষণ করে খাগড়াছড়ি জে’লার মহালছড়ি উপজে’লায় তার অবস্থান নিশ্চিত হয়। পরে তাকে উ’দ্ধার করে ডিবি কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে তার মায়ের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

লাকী’ হারিয়ে যাওয়ার ঘটনা স’ম্পর্কে জানা যায়, লাকী’র খালা ফিরোজা ঢাকার একটি গার্মেন্টস কারখানায় চাকরি করতেন। দিনে খালা তার কর্মস্থলে থাকতেন। বাসায় খালার অনুপস্থিতে আট বছর বয়সী লাকী’ খেলাধুলা করার জন্য বাইরে যেতেন। কৌতুহলবশত সদরঘাট এলাকায় লঞ্চে উঠে সে। একপর্যায়ে লঞ্চটি তার গন্তব্যস্থল খুলনার উদ্দেশে রওনা দেয়। তাই লঞ্চ থেকে নামা’র সুযোগ হয় না লাকী’র। এভাবেই হারিয়ে যায় সে।

ঢাকা থেকে লঞ্চটি খুলনার বড় বাজার ঘাটে ভিড়লে লাকী’ কী’ করবে বুঝতে পারছিল না। একপর্যায়ে লঞ্চের সিকিউরিটি গার্ডকে জানায়, সে হারিয়ে গিয়েছে। পরে লঞ্চ ঘাটের সিকিউরিটি গার্ড তাকে তার বাসায় নিয়ে যায়। লাকী’কে ইউনিসেফ স্কুলে ভর্তি করান। স্কুলে পড়াশোনার পাশাপাশি সিকিউরিটি গার্ড তাকে দিয়ে বিভিন্ন বাসায় কাজ করাতেন। এভাবে ২ বছর অ’তিক্রম হয়। ঠিকমতো কাজ করতে না পারায় গৃহকত্রীর নি’র্যা’তন সইতে হয় ছোট্ট লাকী’কে। পরে কাউকে না জানিয়ে লাকী’ নিজেই শিহাব নামে এক লোকের বাসায় কাজ নেয়। লাকী’কে না পেয়ে সিকিউরিটি গার্ড খোঁজাখুঁজি করেন। একপর্যায়ে লাকী’র সন্ধান পান ওই সিকিউরিটি গার্ড।

শিহাবের বাসায় হাজির হয়ে সিকিউরিটি গার্ড লাকী’কে নিজের মে’য়ে বলে দাবি করেন। পাশাপাশি তার বাসায় নেওয়ার চেষ্টা করেন। এদিকে শিহাব লাকী’র কাছে জানতে পারেন যে, সিকিউরিটি গার্ড লাকী’র আসল বাবা না। তাই শিহাব পু’লিশি সহায়তায় লাকী’কে নিজ জিম্মায় নিয়ে তার বাসায় পাঁচ বছর রাখেন। সেখান থেকে লাকী’ তার হা’রানো বাবা-মাকে ফেরত পাওয়ার চেষ্টা করেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শুক্রবার (২ সেপ্টেম্বর) ডিবি প্রধান মোহাম্ম’দ হারুন অর রশীদ জাগো নিউজকে বলেন, লাকী’র মায়ের অ’ভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তাকে খুঁজে বের করতে সর্বোচ্চ চেষ্টা চালায় ডিবির সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রা’ইম ডিভিশন। সবশেষে চেষ্টা সফল হয়। মহালছড়ি থা’না পু’লিশের সহায়তায় তাকে উ’দ্ধার করে সব ধরনের আইন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে এরই মধ্যে মায়ের কাছে বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে।

লাকী’র মা হামিদা বেগম বলেন, মে’য়েকে যে ফিরে পাব তা কল্পনাও করতে পারিনি। আজ আমি ভীষণ খুশি। ডিবির প্রতি অশেষ কৃতজ্ঞতা। আর যেন কোনো মা এভাবে তার সন্তানকে না হারায়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: