সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
সোমবার, ৩ অক্টোবর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৮ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

বাড়াবাড়ি করলে ‘মা গো’ বলার সময় পাবেন না: শামীম ওসমান

বিরোধীদের হুঁশিয়ার করে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান বলেছেন, বাড়াবাড়ি করলে ‘মা গো’ বলার সময় পাবেন না।

শুক্রবার (১৯ আগষ্ট) বিকেলে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার ডিআইটি মাঠে শোক দিবসের জনসভায় অংশ নিয়ে এ হুঁশিয়ারী উচ্চারণ করেন তিনি।

এতে ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাইফুল্লাহ বাদলসহ জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের শীর্ষ নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

শামীম ওসমান বলেন, যারা রাস্তা দখলের হুমকি দেয় তাদের বলতে চাই রাজপথ শেখ হাসিনার দখলেই থাকবে। আমাদের শরীরের রক্ত টগবগ করে।

উপস্থিত নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, মুক্তিযোদ্ধাদের দায়িত্ব শেষ। তারা যুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করে দিয়েছে। এখন যদি কেউ বলে ‘একাত্তরের হাতিয়ার গর্জে উঠুক আরেকবার’, আপনারা কি আঙুল চুষবেন? আমরা কি নারায়ণগঞ্জে বসে দেখব শুধু। আবারও বলব। গোলাম আজমকে বলেছি, পঙ্গু হয়েছি। আমাকে মারার চেষ্টা হচ্ছে। ষড়যন্ত্র ভেতরে বাইরে থেকে সবদিক থেকেই হচ্ছে।

শামীম ওসমান বলেন, এই সঙ্কটে তারা আঘাত করবে। ক্ষমতায় আসা তাদের মূল টার্গেট না। বাংলাদেশকে তারা ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করতে চায়। আজ যদি শেখ হাসিনার কিছু হয়- তিনি শুধু আওয়ামী লীগের সম্পদ নন, তিনি আগামী দিনের শিশুদের ভবিষ্যত। তাকে আঘাত করলে এ দেশ এমন জায়গায় যাবে যেখান থেকে আমরা আদৌ উঠে আসতে পারব কিনা জানি না।

তিনি বলেন, রাস্তায় শ্লোগান হয়- এমন বাজে ভাষা। এরা কোনো মায়ের পেটে জন্ম নিয়েছে জানি না। আমরাও তো খালেদা জিয়ার সমালোচনা করি। তারা এই মহিলাকে (শেখ হাসিনা) বাজে ভাষায় গালিগালাজ করছে৷ ঢাকায় তারা চ্যালেঞ্জ করছে রাজপথ দখলে নেবে।

নারায়ণগঞ্জে আওয়ামী লীগের জন্ম উল্লেখ করে শামীম ওসমান বলেন, আমার নেত্রীকে গালি দেবে আমরা কি চুপ করে বসে থাকতে পারি? আমাদের শক্তির উৎস হল জনগণ। আমরা জনগণকে নিয়ে চলতে চাই।

তিনি আরও বলেন, আমার হৃদয়ে রক্তক্ষরণ আছে। আমাদের মনে কষ্ট আছে। আমাদেরও তো প্রতিবাদের রাইট আছে। আমার মাকে কেউ গালি দিলে আমরা প্রতিবাদ করব না? প্রতিবাদের ভাষা সংযত রাখতে হবে। তারা বলে ‘শামীম ওসমানের দুই গালে জুতা মারো তালে তালে’। আমার গায়ে লাগে না। তারা আমার গুনাহ কিনছে। কিন্তু আপনার মাকে নিয়ে বললে আপনি ছাড়বেন?

একুশে আগস্টের গ্রেনেড হামলার প্রসঙ্গ টেনে আওয়ামী লীগের এই এমপি বলেন, একটা গ্রেনেড ট্রাকে পড়লে আজ বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার হতো না। মুক্তিযুদ্ধের স্লোগান দিলে বলত সন্ত্রাসী। এখনও অনেকে লাফায়। আমাদের ৪৯ জন মানুষ মরেছে। ধৈর্যের একটা সীমা আছে। লেভেল ক্রস করবেন না। আমি নেত্রীর কথা শুনি তাই নারায়ণগঞ্জ ঠান্ডা আছে। এবার কিন্তু জাতির পিতার কন্যার কথা শুনবো না। খেলেন যত খুশি। শয়তান কখনও জিতে না। কিছু ক্ষয় হবে কিছু ডালপালা ভাঙবে। কিছু শামীম ওসমানের লাশ পরবে। তারপরেও ২০২৪ সালে ইনশাআল্লাহ শেখ হাসিনাই প্রধানমন্ত্রী হবে। বাড়াবাড়ি করবেন না। মা গো বলার সময় পাবেন না।

লন্ডনে বসবাসরত বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে ইঙ্গিত করে শামীম ওসমান বলেন, যে নেতা মায়ের জন্য আসেন না, আপনি দেশের মানুষের জন্য কি আসবেন? বলেন ডাক্তার লাগবে। তার (তারেক রহমান) স্ত্রী তো ভালো ডাক্তার। আসতেন শাশুড়ির সেবা করার জন্য। নাতনীরা আসত। আমার কষ্ট লাগে বেগম খালেদা জিয়ার জন্য। বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার পরবর্তীতে উপযুক্ত কেউ হলে সেটা তার কাজের মেয়ে ফাতেমা। তাকে নিয়ে এসে (ক্ষমতায়) বসান।

তিনি বলেন, এবার হজে যাওয়ার পরে আরাফাতের ময়দানে ঠিক করেছি সন্ত্রাস-চাঁদাবাজমুক্ত সমাজ গড়তে চাই। অক্টোবর মাসে আমরা সমাজের ভালো মানুষদের নিয়ে আগের দিনের মতো পঞ্চায়েত করব। আমি নিজে চুপচাপ গিয়ে দেখব তারা ভালো না খারাপ। একটা সমাজ আমি গড়ে তুলতে চাই। আমরা বিএনপি, জাতীয় পার্টি, চরমোনাই, হেফাজতের ভাইদেরও পাশে চাই। আওয়ামী লীগ যারা করে সবাই তো ভালো লোক না। তাদের (বিএনপি, জাপা, চরমোনাই) মধ্যেও অনেক ভালো লোক আছে।

নারায়ণগঞ্জ শহরে অনেক কালো টাকা ঢুকেছে দাবি করে শামীম ওসমান বলেন, বিএনপির মাঝারি সারির নেতাদের মেরে ফেলা হতে পারে। তাদের মেরে আমাদের ওপর দায় চাপানোর চেষ্টা হতে পারে। কয়েকদিন আগে অধ্যাপক মামুনের (জেলা বিএনপির সদস্য সচিব) ওপর হামলা করা হয়েছে। একটুর জন্যা বেঁচে গেছে। এই এলাকার একজন লোক যার হাতে আমাদের বহু লোক মারা গেছে, তার ছেলের নাম এসেছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: