সর্বশেষ আপডেট : ৪ ঘন্টা আগে
বুধবার, ১৭ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২ ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

যু’ক্তরাষ্ট্রের কেন্টাকিতে ব’ন্যায় ৮ জনের মৃ’ত্যু

আকস্মিক ব’ন্যায় যু’ক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ-পূর্ব অঙ্গরাজ্য কেন্টাকিতে অন্তত আটজনের মৃ’ত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার এসব মানুষের মৃ’ত্যুর খবর পাওয়া যায়। ব’ন্যাকবলিত এলাকায় চলছে উ’দ্ধার কাজ।

কেন্টাকির উত্তরে ওহিও নদী এবং পূর্বে অ্যাপালাচিয়ান পর্বতমালা রয়েছে। পাহাড়ি ঢল থেকে নেমে আসা ও বৃষ্টির পানিতে ব’ন্যা দেখা দেয় ওই অঞ্চলে। পূর্ব কেন্টাকিজুড়ে বহু ঘরবাড়ি, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানসহ নানা স্থাপনা ব’ন্যার পানিতে বি’ধ্বস্ত হয়ে পড়েছে। তলিয়ে গেছে রাস্তাঘাট।

পশ্চিম ভা’র্জিনিয়া এবং দক্ষিণ পশ্চিম ভা’র্জিনিয়ার অনেকাংশ এলাকায়ও ব’ন্যা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। ব’ন্যাকবলিত এলাকাগুলো থেকে আ’ট’কে পড়া লোকজনকে উ’দ্ধারের কাজে হেলিকপ্টার ও নৌকা ব্যবহার করা হচ্ছে। কোনো কোনো এলাকায় এখনো বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

কেন্টাকির গভর্নর অ্যান্ডি বেসিয়ার, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় টুইটার বার্তায় বলেছেন যে রাজ্যে ব’ন্যায় মৃ’তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে আটজনে। তিনি আগেই ধারণা করেছিলেন, এবারও ব’ন্যায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হওয়ার শ’ঙ্কা রয়েছে।

গভর্নরের তরফে ত্রাণ কার্যক্রমের ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলে জানা গেছে। বিপজ্জনক পরিস্থিতি এবং অব্যাহত বৃষ্টির কারণে বৃহস্পতিবার উ’দ্ধার তৎপরতা ব্যাহত হয় বলেও জানান তিনি।

পূর্ব কেনটাকি, পশ্চিম ভা’র্জিনিয়া ও দক্ষিণ পশ্চিম ভা’র্জিনিয়ার পার্বত্য অঞ্চল জুড়ে আকস্মিক ব’ন্যা ও ভূমিধসের খবর পাওয়া গেছে। গত কয়েকদিন ধরে বজ্রসহ বৃষ্টি অব্যাহত রয়েছে এসব অঞ্চলে ।এদিকে, শুক্রবার পর্যন্ত বৃষ্টি অব্যাহত থাকার পূর্বাভাস দিয়েছে দেশটির জাতীয় আবহাওয়া সার্ভিস বিভাগ।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: