সর্বশেষ আপডেট : ৪ ঘন্টা আগে
সোমবার, ৮ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

স্টুডেন্ট ভিসা নিয়ে যুক্তরাজ্যকে যে অনুরোধ করলেন মোমেন

বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া এক লাখ রোহিঙ্গাকে যু’ক্তরাজ্যে পুনর্বাসনের অনুরোধ জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। এ ছাড়া স্টুডেন্ট ও বিজনেস ভিসা নিয়েও যু’ক্তরাজ্যকে অনুরোধ করেছেন তিনি।

গত রোববার রুয়ান্ডার কিগালিতে একটি দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে তিনি ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী এলিজাবেথ ট্রাসকে এ অনুরোধ জানান ড. মোমেন। কমনওয়েলথের অনুষ্ঠান চলাকালে দুই দেশের নেতা আলাদা করে এ বৈঠক করেন। এই বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন যু’ক্তরাজ্যে নিযু’ক্ত বাংলাদেশের হাই কমিশনার সায়দা মুনা তাসনিম।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন স্টুডেন্ট ও বিজনেস ভিসা দেওয়ার কার্যক্রম আবারও ঢাকা থেকে পরিচালনা অনুরোধ জানান। এতে প্রতি বছর ৭ থেকে ৮ হাজার শিক্ষার্থী উচ্চ শিক্ষার জন্য যু’ক্তরাজ্যে যেতে পারবে বলে তিনি জানান।

বৈঠকে মোমেন বলেন, যু’ক্তরাজ্য সারা বিশ্বে ন্যায়বিচার ও মানবাধিকার রক্ষার দিক দিয়ে নেতৃস্থানীয় অবস্থানে রয়েছে। দেশটি যদি ১ লাখ রোহিঙ্গা শরণার্থীকে পুনর্বাসন করে, তাহলে তারা আরও উন্নত জীবন পাবে এবং বাংলাদেশেরও অন্যায্য ভা’র লাঘব হবে।

উত্তরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ট্রাস রোহিঙ্গাদের মহানুভবতার সঙ্গে আশ্রয় দেওয়ার জন্য বাংলাদেশের প্রশংসা করেন এবং বলেন, ‘যু’ক্তরাজ্য এ বিষয়টি বিবেচনা করতে পারে, তবে রোহিঙ্গা সঙ্কটের সবচেয়ে ভালো সমাধান হবে তাদের নিজেদের দেশ মিয়ানমা’রে নিরাপদে ও টেকসই প্রক্রিয়ায় ফিরে যাওয়ার ব্যবস্থা করা।’
বাংলাদেশে আ’ট’কে পড়া রোহিঙ্গাদের দুর্দশার কথা ট্রাসের কাছে বিস্তারিত জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন। একইসঙ্গে তিনি তাদেরকে নিজেদের দেশে নিরাপদে ও টেকসই উপায়ে ফিরিয়ে নেওয়ার বিষয়ে মিয়ানমা’রের সরকারের উদাসীনতার কথাও উল্লেখ করেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন বাংলাদেশ থেকে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য মিয়ানমা’রের ওপর চাপ সৃষ্টি করার জন্য যু’ক্তরাজ্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি জানান, বাংলাদেশের পক্ষে ১১ লাখ জো’রপূর্বক বাস্তুচ্যুত হওয়া মিয়ানমা’রের নাগরিকদের ভা’র বহন করা আর সম্ভব হচ্ছেন না।

এলিজাবেথ ট্রাস আশ্বস্ত করেন, যু’ক্তরাজ্য আসিয়ান ও জি৭ জোটের মিত্রদেশগুলোর সঙ্গে মিলে মিয়ানমা’রের ওপর এ বিষয়ে চাপ প্রয়োগ করবে।
বৈঠকে দুই দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যু’দ্ধের পর থেকে যু’ক্তরাজ্য ও বাংলাদেশের মধ্যের ঐতিহাসিক ও উপযোগী স’ম্পর্কের কথা স্ম’রণ করেন। তারা বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০তম বার্ষিকী’ উদযাপনের জন্য বেশ কিছু উদ্যোগের কথা জানান।

বাংলাদেশ ও যু’ক্তরাজ্যের কূটনৈতিক স’ম্পর্কের ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে দুই দেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের যৌথ উদ্যোগে ২ দেশের রাজধানীতে বৈশ্বিক নারী শিক্ষা সম্মেলন, জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে নেতাদের সংলাপ ও রোহিঙ্গা সম্মেলন আয়োজনের বিষয়ে একমত হন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী যু’ক্তরাজ্যের করবিহীন জিএসপি সুবিধার মেয়াদকে ২০২৯ সাল পর্যন্ত বাড়ানোর অনুরোধ করেন। তিনি, মহামা’রি পরবর্তী পরিস্থিতিতে বাংলাদেশি তৈরি পোশাক শিল্পের বিভিন্ন ক্ষয়ক্ষতির বিস্তারিত তুলে ধরেন।পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন খুব শিগগির বাংলাদেশ সফরে আসার জন্য এলিজাবেথ ট্রাসকে আমন্ত্রণ জানান।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: