সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
বুধবার, ২৯ জুন ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৫ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

ওমর সানিকে গুলি করে দেব বললেন জায়েদ খান

চিত্রনায়ক ওমর সানীকে পিস্তল দিয়ে গুলি করার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে আরেক চিত্রনায়ক জায়েদ খানের বিরুদ্ধে। শুক্রবার (১০ জুন) রাজধানীর একটি কনভেনশন সেন্টারে খলনায়ক ডিপজলের ছেলের বিয়ের অনুষ্ঠানে সানীকে গুলি করার হুমকি দিয়েছেন বলে জায়েদ খানের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ উঠে। তবে এই ঘটনাকে মিথ্যা দাবি করেছেন তিনি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এই ঘটনার এক প্রত্যক্ষদর্শী গণমাধ্যমকে বলেন, যত দূর জানতে পেরেছি, মৌসুমীর সঙ্গে নাকি জায়েদ খান খারাপ আচরণ করেছে। এটা নিয়ে জায়েদের ওপর ওমর সানী ভীষণ বিরক্ত ছিল।

জায়েদ খানের খারাপ ব্যবহার করার কারণে ওমর সানী ডিপজলের কাছে বিচারও দিয়েছিল বলে শুনেছেন তিনি। ওই প্রত্যক্ষদর্শী আরও বলেন, ডিপজল বলেছিলেন, থাক, বাদ দাও। মারামারি করার দরকার নাই। সামনে জায়েদ আর মৌসুমীকে কোনো ডিস্টার্ব করবে না। মৌসুমীর কাছেও যাবে না।

কিন্তু ডিপজলের দেওয়া সমাধান ভালো লাগেনি একসময়ের অন্যতম জনপ্রিয় চিত্রনায়ক ওমর সানীর। তিনি মেনেও নেননি। তাই জায়েদ খানকে ডিপজলের ছেলের বিয়েতে পেয়েই চড় মেরে বসেন এবং বলেন তোরে (জায়েদ) না নিষেধ করছি, আমার বউরে (মৌসুমি) ডিস্টার্ব না করতে। কোনো ফাজলামি করবি না। অসম্মান করে কথা বলবি না।

সানীর চড় খাওয়া ও এমন সব কথা শুনে জায়েদ খান কোমর থেকে পিস্তল বের করে বলেন, গুলি করে দেব।

এই প্রসঙ্গে জায়েদ খান ঘটনাটিকে মিথ্যাচার বলে বিভিন্ন গণমাধ্যমকে জানান। তিনি বলেন, এটা মিথ্যা খবর। এমন কোনো ঘটনাই বিয়েতে ঘটেনি। আমি পিস্তল নিয়ে যাইনি। ওই এলাকায় পিস্তল নিয়ে যাওয়াও যায় না। আর ওমর সানীর চড় মারার তো প্রশ্নই আসে না। শিল্পী সমিতির সেক্রেটারি পদ নিয়ে আদালতে রায় আছে। এই রায়কে প্রভাবিত করতেই এটি ছড়ানো হচ্ছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: