সর্বশেষ আপডেট : ৪৬ মিনিট ৩৫ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ২৫ জুন ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

কানাডায় ঝড়ে ৮ জনের মৃত্যু, লাখো মানুষ বিদ্যুৎহীন

কানাডার সবচেয়ে জনবহুল দুই প্রদেশ অন্টারিও ও কিবেকে প্রবল বজ্রঝড়ে আট জনের মৃ’ত্যু হয়েছে, বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে পাঁচ লাখের বেশি গ্রাহক।

রয়টার্স জানায়, অন্টারিও ও কিবেক প্রদেশের ওপর দিয়ে শনিবার বিকালে দুই ঘণ্টার বেশি সময় ধরে বজ্রসহ ঝড় বয়ে যায়। টর্নেডোর মতো শক্তি নিয়ে আ’ঘাত হানা ওই ঝড়ের সময় বাতাসের গতি ছিল ঘণ্টায় ১৩২ কিলোমিটার।

ঝড়ের তা’ণ্ডবে গাছপালা ও বিদ্যুতের খুঁটি উপড়ে গেছে, অনেক বিদ্যুৎ-বিতরণ টাওয়ার উল্টে পড়েছে বলে জানিয়েছে বিদ্যুৎ বিতরণ কোম্পানি।

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বেশিরভাগ মৃ’ত্যুর হয়েছে গাছ বা গাছের ভা’রী ডালের নিচে চাপা পড়ে। বিদ্যুৎ সরবরাহ সচল করতে রোববারও ব্যাপক তৎপড়তা চালিয়েছে সংশ্লিষ্ট কোম্পানি।

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেছেন, দুর্গতদের জন্য জরুরি সহায়তার ব্যবস্থা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। এক টুইটে তিনি বলেন, “ক্ষতিগ্রস্ত প্রত্যেকের কথাই আম’রা বিবেচনায় রেখেছি এবং বিদ্যুৎ সরবরাহ চালু করতে যে কর্মীরা কাজ করছেন, তাদের বিষয়টিও ভাবনায় আছে।”

শক্তিশালী বজ্রঝড়ের বিষয়ে আগেই মোবাইল ফোনে সতর্কবার্তা জারি করেছিল এনভায়রনমেন্ট কানাডা।

অন্টারিওর সবচেয়ে বড় বিদ্যুৎ কোম্পানি হাইড্রো ওয়ান রোববার এক টুইটে জানায়, ঝড়ে উল্লেখযোগ্য পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে, তাদের কর্মীরা সেটা সামাল দেওয়ার চেষ্টা করে যাচ্ছেন।

রোববার পর্যন্ত ৩ লাখ ৬০ হাজার গ্রাহকের বিদ্যুৎ সংযোগ ফের চালু করা গেছে, আরও ২ লাখ ২৬ হাজার বিদ্যুৎহীন রয়েছে। সব গ্রাহকের বিদ্যুৎ সংযোগ সচল করতে কয়েক দিন সময় লাগতে পারে বলে জানিয়েছে হাইড্রো ওয়ান।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: