সর্বশেষ আপডেট : ৩ ঘন্টা আগে
বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

কানাডার নির্বাচনে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত তিন প্রার্থী

আগামী ২ জুন কানাডার অন্টারিও প্রভিন্সিয়াল নির্বাচনকে সামনে রেখে পুরো প্রভিন্সের এখন ভোটের হাওয়া বইতে শুরু করেছে। অন্টারিয়ানদের জন্য এবারের নির্বাচনটিকে অ’ত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে দেখা হচ্ছে নানা কারণে। কিন্তু বাংলাদেশি কমিউনিটিতে এর আলাদা একটা গুরুত্ব তৈরি হয়েছে।

২০১৮ সালে এনডিপির মনোনয়ন নিয়ে ডলি বেগম নির্বাচিত হয়ে বাংলাদেশি কমিউনিটির জন্য একটি গৌরবোজ্জল রেকর্ড প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। স্কারবোরো সাউথওয়েষ্ট রাইডিং এ এবারও তিনি প্রার্থী।

ডলি বেগমের বাইরে আরো দুজন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত প্রার্থী এবার প্রধান দুটি রাজনৈতিক দলের মনোনয়ন নিয়ে নির্বাচনী ল’ড়াইয়ে শামিল হয়েছেন। ইটোবিকো- লেকশোর থেকে প্রার্থী হয়েছেন এনডিপি প্রার্থী ফারহিন আলিম আর ওকভিল নর্থ বারলিংটন থেকে লিবারেল পার্টির প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন কানিজ মৌলি।

কানাডার অন্টারিও’ এর প্রবাসী বাঙ্গালীদের মাঝে নির্বাচন নিয়ে ব্যাপক প্রস্তুতি ও প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে। ইতিমধ্যেই এনডিপি প্রার্থী ডলি বেগমের নির্বাচনী অফিস উদ্বোধনী দিনে কমিউনিটির প্রচুর সংখ্যক লোকের সমাগম ঘটেছে।

বিজয়ী হবার প্রত্যয় নিয়ে এনডিপি প্রার্থী ডলি বেগম গণমাধ্যমকে বলেন, গত চার বছর তিনি অন্টারিয়ানদের নানা ইস্যুতে পার্লামেন্টে সোচ্চার থেকেছেন। অ’ভিবাসীদের সমস্যা নিয়ে সরব থেকেছেন। তার চার বছরের কাজের মূল্যায়নে ভোটাররা এবারো তাকে বিজয়ী করবেন বলে আশা প্রকাশ করেন। ডলি বেগম বলেন, আমা’র নির্বাচনী এলাকার ভোটাররা মূলত অ’ভিবাসী। নিজে একজন অ’ভিবাসী পরিবারের সদস্য হিসেবে তার সমস্যা, তাদের চাওয়া আমি সবচেয়ে ভালো বুঝতে পারি।

ওকভিল নর্থ বারলিংটন থেকে লিবারেল পার্টির প্রার্থী কানিজ মৌলি গণমাধ্যমকে বলেন, অন্টারিওর মধ্যবিত্ত সমাজের জন্য সবচেয়ে প্রগতিশীল এবং অগ্রসর ভাবনার কর্মসূচি নিয়ে অন্টারিও লিবারেল পার্টি এবার নির্বাচন করছে। তিনি আশা করছেন, তাদের কর্মসূচির কারণেই জনগণ তাদের এবার ভোট দেবে।

বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সক্রিয় রাজনীতি করা কানিজ মৌলি বলেন, রাজনীতি এবং প্রশাসনিক পর্যায়ে প্রত্যক্ষ অ’ভিজ্ঞতা অর্জন করার পর তিনি নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন। নির্বাচনে তিনি বিজয়ী হবেন বলে আশা প্রকাশ করেন।

ইটোবিকো- লেকশোর থেকে এনডিপি প্রার্থী ফারহিন আলিম গণমাধ্যমকে বলেন, আমি একজন হাইস্কুল শিক্ষক, পেশাদারা রাজনীতিক নই। কিন্তু কোভিড মহামা’রীতে আমা’র ছাত্রছা’ত্রীদের যে দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে, তা দেখে আমি নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছি। নিজের বিজয়ের ব্যাপারে আশাবাদী ফারহিন আলিম বলেন, অ’ভিবাসী মধ্যবিত্ত নাগরিকদের সমস্যা নিয়ে আমি কাজ করতে চাই।

অন্টারিওর প্রভিন্সিয়াল নির্বাচনে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত প্রার্থীতা নিয়ে কানাডার নতুন দেশ পত্রিকার প্রধান সম্পাদক ও সাংবাদিক শওগাত আলী সাগর বলেন, প্রভিন্সিয়াল নির্বাচনে প্রধান রাজনৈদিক দলগুলো থেকে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত তিনজনের মনোনয়ন পাওয়া প্রবাসে বাংলাদেশি কমিউনটির জন্য অ’ত্যন্দ উৎসাহব্যঞ্জক এবং সম্মানের বিষয়।

তিনি মূলধারার রাজনীতিতে আরও বেশি বেশি অংশগ্রহণের উপর গুরুত্ব আরোপ করে বলেন, শুধু প্রার্থী নয়, ভবিষ্যতে আম’রা আরো বেশি বিজয়ী প্রবাসীদেরকে কানাডার মূলধারার রাজনীতিতে দেখতে চাই, যাতে বাংলাদেশ ও কানাডার মধ্যে একটি সুদৃঢ় সেতুবন্ধন তৈরি হয়।

উল্লেখ্য, কানাডার মূলধারার রাজনীতিতে প্রবাসী বাংলাদেশীদের অংশগ্রহণ বাংলাদশি কমিউনিটিকে সমৃদ্ধ করার পাশাপাশি আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে বাংলাদেশের ম’র্যাদাকেও বৃদ্ধি করবে। মাতৃভূমি বাংলাদেশের স্বার্থেই যোগ্য প্রবাসী বাঙালিদের অবস্থান সুসংহত ও সুদৃঢ করার কোনো বিকল্প নেই।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: