সর্বশেষ আপডেট : ১৪ মিনিট ৫৮ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

ব্রেইন ওয়াশকারীদের চিহ্নিত করতে পারলে শান্তি পেতাম: জাফর ইকবাল

বরেণ্য শিক্ষাবিদ ও লেখক অধ্যাপক ড. মুহম্ম’দ জাফর ইকবাল হ’ত্যাচেষ্টা মা’মলার ঘোষিত হয়েছে মঙ্গলবার। এতে প্রধান আ’সামি ফয়জুল হাসানকে যাব’জ্জীবন ও ফয়জুলের বন্ধু মো. সোহাগ মিয়াকে ৪ বছরের কারাদ’ণ্ড দিয়েছেন আ’দালত।

তবে ফয়জুলের উপর রাগ নেই বলে জানিয়েছেন অধ্যাপক জাফর ইকবাল। বরং হা’মলাকারীর জন্য তার মায়া হয় বলেও জানিয়েছেন এই শিক্ষাবিদ।

মঙ্গলবার দুপুরে সিলেটের সন্ত্রাস বিরোধী ট্রাইব্যুনালের বিচারক নুরুল আমীন বিপ্লব এ রায় ঘোষণা করেন। তবে রায় ঘোষণা কালে আ’দালত চত্বরে ছিলেন না জাফর ইকবাল। তিনি বর্তমানে ঢাকায় অবস্থান করছেন।

রায়ের প্রতিক্রিয়ায় ঢাকা থেকে মোবাইল ফোনে জাফর ইকবাল বলেন, ফয়জুলের প্রতি আর কোন রাগ বা ক্ষোভ নেই। বরং তার প্রতি একধরণের মায়া ও করুণা আছে। কারণ তাকে দিনের পর দিন জে’লখানায় থাকতে হবে।

‘কিন্তু দেশে যেহেতু আইন আছেন, আইন অনুযায়ী তাকে তার কাজের শা’স্তি পেতে হয়েছে। তবে এ কারণে আমা’র কোন আনন্দ নেই।’

জাফর ইকবাল বলেন, তাকে (ফয়জুল) যারা এধরণের কাজে উদ্ভূদ্ধ করেছে, যারা বুঝিয়েছে আমাকে মা’রতে পারলে সে বেহেস্তে চলে যাবে- তাের উপর আমা’র রাগ। এই ব্রেইন ওয়াশকারীদের চিহ্নিত করতে পারলে আমা’র আনন্দ হতো। তাদের তৎপরতা বন্ধ করতে পারলে আমি শান্তি পেতাম।

মঙ্গলবার ঘোষিত রায়ে মা’মলার বাকি ৪ আ’সামি ফয়জুল হাসানের বাবা মা’ওলানা আতিকুর রহমান, মা মিনারা বেগম, মামা ফজলুল হক ও ভাই এনামুল হাসানকে খালাস প্রদান করেছেন আ’দালত।

রায়ের প্রতিক্রিয়ায় আ’সামি পক্ষের আইনজীবী মোতাহির আলী বলেন, রায়ে ৪ জন খালাস পেয়েছেন। এতে আম’রা সন্তুষ্ট। দুজনকে দ’ণ্ডিত করা হয়েছে। এ ব্যাপারে আ’সামিদের সাথে আলাপ করে আম’রা উচ্চ আ’দালতে যাবো।

মা’মলার বাদি শাহ’জালাল বিজ্ঞান ও প্রযু’ক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মো. ইশফাকুল হোসেন বলেন, রায়ের পূর্ণাঙ্গ কপি পাওয়ার পর আম’রা আইনজীবীদের সাথে কথা বলে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবো।

এই আ’দালতের বিশেষ সহকারী কৌশলী মমিনুর রহমান টিটু বলেন, রায়ে প্রাথমিকভাবে আম’রা সন্তুষ্ট। দ্রুততম সময়েই রায় হয়েছে। তারপরও পূর্ণাঙ্গ রায় পর্যালোচনা করে আম’রা পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবো।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের ৩ মা’র্চ বিকেলে শাহ’জালাল বিজ্ঞান ও প্রযু’ক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের মুক্তমঞ্চে একটি অনুষ্ঠান চলাকালে জাফর ইকবালের ওপর হা’মলা হয়। মাদ্রাসাছাত্র ফয়জুল হাসান ছু’রি দিয়ে জাফর ইকবালের মা’থা ও ঘাড়ে উপর্যপুরি আ’ঘাত করেন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছাত্র-শিক্ষকরা হা’মলাকারী ফয়জুলকে হাতেহাতে ধরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে হস্তান্তর করেন।

পরে জাফর ইকবালকে আ’হত অবস্থায় প্রথমে এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতা’লে নেয়া হয়। পরে সেখান থেকে পাঠানো হয় ঢাকায় সম্মিলিত সাম’রিক হাসপাতা’লে।

এই ঘটনায় শাবি রেজিস্ট্রার মুহাম্ম’দ ইশফাকুল হোসেন বাদী হয়ে সিলেটের জালালাবাদ থা’নায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনে মা’মলা করেন।

২০১৮ সালের ১৬ জুলাই ফয়জুলসহ ৬ জনের বি’রুদ্ধে আ’দালতে অ’ভিযোগপত্র দেন ত’দন্ত কর্মক’র্তা জালালাবাদ থা’নার তৎকালীন ওসি শফিকুল ইস’লাম।

ওই বছরের ৪ অক্টোবর আ’সামিদের বি’রুদ্ধে অ’ভিযোগ গঠনের মাধ্যমে বিচার শুরু হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: