সর্বশেষ আপডেট : ৪ ঘন্টা আগে
বৃহস্পতিবার, ৬ অক্টোবর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২১ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

পবিত্র শবে বরাতকে সামনে রেখে গরুর মাংসে আগুন

পবিত্র শবে বরাতকে সামনে রেখে গরুর মাংসসহ বেশ কিছু পণ্যের দাম বেড়ে গেছে। এক সপ্তাহ আগে গরুর মাংস স্থান ভেদে ৬০০ থেকে ৬৫০ টাকায় বিক্রি হলেও আজ (শুক্রবার) তা ৭০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া হালুয়া বানানোর আরেকটি অনুসঙ্গ গাজরসহ বিভিন্ন সবজির দামও বেড়েছে। বেড়েছে মুরগির দামও। তবে অ’পরিবর্তিত রয়েছে আটা, ময়দা, চিনি ও দুধের দাম।

শুক্রবার (১৮ মা’র্চ) রাজধানীর উত্তর বাড্ডার বিভিন্ন বাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

শবে বরাতের রাতে বাঙালি মু’সলিম’দের মধ্যে ভালো খাবার আয়োজনের রীতি রয়েছে। এদিন অনেকে রুটি হালুয়া, গরুর মাংসসহ সাধ্য অনুযায়ী ভালো ভালো রান্নাবান্না করে থাকেন। সেসব খাবার গরিবদের দেওয়া ছাড়াও পাড়া-প্রতিবেশীদের মধ্যে দেওয়ার প্রচলন রয়েছে। এজন্য এ রাত উপলক্ষে অনেকেই ভালো কিছু রান্না করেন। আর এই সুযোগটাই নিচ্ছেন অসাধু ব্যবসায়ীরা।

রাজধানীর বিভিন্ন কাঁচাবাজার ঘুরে দেখা গেছে, সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত গরুর মাংসের দোকানে ভিড়। উত্তর বাড্ডার কাঁচাবাজারের মাংস ব্যবসায়ী নুরু জাগো নিউজকে জানান, আজ গরুর মাংস ৭০০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে।

তবে দাম কেন বাড়ছে এর কোনো উত্তর দিতে পারেননি তিনি। বারবার জিজ্ঞেস করলেও ব্যস্ততা দেখিতে কোনো জবাব দেননি তিনি। বরং বির’ক্তি প্রকাশ করে বলেন, আপনি কি একমণ মাংস নেবেন?

সেখানে এক ক্রেতার সঙ্গে কথা হয়। বাড্ডার তেঁতুলতলার বাসিন্দা মো. রিপন মিয়া একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। মাংস না কিনেই ফিরে যাচ্ছেন তিনি। জাগো নিউজকে তিনি বলেন, ভেবেছিলাম শবে বরাতের রাতে চালের রুটির সঙ্গে মাংস খাবো। এটা বিশেষ করে বাচ্চাদের দাবি। কিন্তু বাজারে এসে দেখি মাংসের দাম বেড়ে গেছে। এতো দাম দিয়ে মাংস কেনা সম্ভব না।

রিপন মিয়া চলে গেলেও অনেকেই মাংস কিনছেন। বিক্রেতার যেন দমফেলার ফুরসত নেই। তবে অনেকে এক বা দুই কেজি মাংস কেনার জন্য এলেও কেউ কেউ আধাকেজিও কিনছেন।

অন্যদিকে গাজরের দামও দ্বিগুণ হয়ে গেছে। গত সপ্তাহে ২০ টাকা কেজি বিক্রি হলেও শুক্রবার তা ৪০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। গুলশান গুদারাঘাটের সবজি বিক্রেতা জনি এ বিষয়ে বলেন, এখন তাও কিনতে পারছেন। দুদিন পর ৬০ টাকা দরে কিনতে হবে।

এদিকে বাজারে খোলা চিনি ৮০ টাকা, আটা ৩৫ টাকা, সুজি ৮০ টাকা কেজি, ভা’রতীয় পেঁয়াজ প্রতি কেজি ৪০ টাকা, দেশি পেঁয়াজ ৫০ টাকা, ডিমের ডজন ১১০ টাকা করে বিক্রি হচ্ছে।

পা’কিস্তানি মুরগির দামও কেজিতে ২০ টাকা বেড়েছে। আগে ৩০০ টাকায় বিক্রি হলেও শুক্রবার ৩২০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। আর ব্রয়লার মুরগির দাম নেওয়া হচ্ছে ১৬৫ টাকা কেজি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: