সর্বশেষ আপডেট : ৩ ঘন্টা আগে
রবিবার, ২৬ জুন ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

আত্মসমর্পণে নারাজ, মৃত্যুকে বেছে নিল ১৩ ইউক্রেনীয় সেনা

ইউক্রেনে রাশিয়ার সর্বাত্মক হা’মলা গড়িয়েছে দ্বিতীয় দিনে। পূর্ব ইউরোপের এই দেশটি জুড়ে চলছে রাশিয়ার সাম’রিক বাহিনীর ভ’য়াবহ হা’মলা। এর মধ্যে বীরত্বের কারণে ইউক্রেনের ১৩ সে’নাসদস্য ভাসছেন ম’রণোত্তর প্রশংসায়। আত্মসম’র্পণ করতে অস্বীকৃতি জানানোয় রাশিয়ার বো’মা হা’মলায় তারা নি’হত হন।

শুক্রবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি। এছাড়া হা’মলার দ্বিতীয় দিনেও ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে দফায় দফায় বি’স্ফোরণ হয়েছে। একটি রুশ বিমান বি’ধ্বস্ত হওয়ার খবরের পাশাপাশি দেশটির একটি শহরে ব্যাপক গো’লাগু’লির ভিডিও সামনে এসেছে।

বিবিসি জানিয়েছে, কৃষ্ণ সাগরের ছোট্ট দ্বীপ স্নেক আইল্যান্ডে দায়িত্বপালন করছিলেন ইউক্রেনের ১৩ জন সে’নাসদস্য। বৃহস্পতিবার রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ইউক্রেনে সাম’রিক অ’ভিযানের ঘোষণা দেওয়ার পর স্নেক আইল্যান্ড অবরোধ করে রাশিয়ার একটি যু’দ্ধ জাহাজ।

পরে রুশ সে’নারা ইউক্রেনের সে’নাদের আত্মসম’র্পণের আহ্বান জানায়। কিন্তু ইউক্রেনের ওই ১৩ জন সে’না আত্মসম’র্পণ করতে অস্বীকৃতি জানান। এরপরই সেখানে বো’মা হা’মলা চালায় রুশ সাম’রিক বাহিনী এবং ১৩ ইউক্রেনীয় সে’না নি’হত হন।

এদিকে বো’মা হা’মলায় নি’হত হওয়ার আগে যু’দ্ধ জাহাজে অবস্থানরত রুশ সে’নাসদস্যদের সঙ্গে ইউক্রেনের সে’নাদের শেষ মুহূর্তের কথপোকথনের একটি অডিওক্লিপ টুইটার, টিকট’কসহ অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্মগুলোতে ভাই’রাল হয়েছে।

সেখানে রুশ যু’দ্ধ জাহাজ থেকে ইউক্রেনের সে’নাদের উদ্দেশে বলতে শোনা যায়, ‘আমি আপনাকে আপনার অ’স্ত্রসহ আত্মসম’র্পণের পরাম’র্শ দিচ্ছি, না হলে আমি গু’লি চালাব। আপনি কি আমা’র কথা শুনতে পেয়েছেন?’ জবাবে ইউক্রেনের সে’নারা আত্মসম’র্পণ করতে অস্বীকৃতি জানান এবং একপর্যায়ে রাশিয়ার বো’মা হা’মলায় তারা সবাই নি’হত হন।

এদিকে সে’নাদের এই বীরত্বের ভূয়সী প্রসংসা করেছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জে’লেনস্কি। এছাড়া বীর এই সে’নাদের ম’রণোত্তর পুরস্কার দেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

জে’লেনস্কি বলেন, ‘ন্সেক আইল্যান্ডে তারা শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত ল’ড়াই করে গেছেন। আত্মসম’র্পণ না করে তারা সবাই বীরত্বের সঙ্গে মৃ’ত্যুকে বরণ করেছেন। হিরো অব ইউক্রেন (ইউক্রেনের বীর) হিসেবে তাদের সবাইকে ম’রণোত্তর পুরস্কার দেওয়া হবে। দেশের জন্য জীবন উৎসর্গ করায় চিরস্থায়ী এই পুরস্কার পাবেন তারা।’

এদিকে ইউক্রেনের সাম’রিক বাহিনী একটি ভিডিও প্রকাশ করে বলেছে, দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় শহর সুমির রাস্তায় রাশিয়ান হা’মলাকারীদের সঙ্গে যোদ্ধাদের লড়াই চলছে। সুমি শহরে দুই লাখ ৬০ হাজার মানুষ বসবাস করে।

শহরের স্থানীয় প্রশাসনের প্রধান দিমিত্র জাইভৎস্কি বলেছেন, রাশিয়ান সৈন্যদের বিশাল একটি বহর শহরটিকে পেছনে ফেলে পশ্চিমে রাজধানী কিয়েভের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: