সর্বশেষ আপডেট : ১১ ঘন্টা আগে
শুক্রবার, ২০ মে ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

‘বাচ্চার চিকিৎসার টাকা জোগাড় করতে স্বামীসহ কক্সবাজার এসেছি’

‘কোথাও কোনো উপায় না পেয়ে অ’সুস্থ বাচ্চার চিকিৎসার টাকা জোগাড় করতে স্বামীসহ কক্সবাজার এসেছি। এখানে গত তিন মাস ধরে অবস্থান করছি। আমা’র আট মাস বয়সী বাচ্চার হার্টে ছিদ্র।

তার চিকিৎসায় ১০ লাখ টাকা প্রয়োজন। টাকা জোগাড়ে যখন যেখানে ডাক পেয়েছি গিয়েছি। তার চিকিৎসার জন্যই এ কাজ বাধ্য হয়ে করছি। এ সময়ে স’ন্ত্রাসীদের খপ্পরে পড়ি।

বাধ্য হয়ে ১০ হাজার টাকা চাঁদাও দিয়েছি। পরে আবার চাঁদা চাইলে স্বামীর সঙ্গে স’ন্ত্রাসীদের বাগবিতণ্ডা হয়। এর সূত্র ধরে তুলে নিয়ে ধ’র্ষণ করে তারা।’

কক্সবাজারে আসে গণধ’র্ষণের শিকার সেই নারী ‘পর্যট’ক’ আ’দালতে দেয়া জবানব’ন্দিতে এমটাই দাবী করেন। সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট হামীমুন তানজিনের আ’দালতে জবানব’ন্দিতে এসব বলেন ওই নারী।

আ’দালতে দেয়া ওই নারীর জবানব’ন্দির বিষয়টি স্বীকার করে কক্সবাজার টুরিস্ট পু’লিশের এসপি মো: জিল্লুর রহমান বলেন, ‘আম’রা ঘটনার গভীরে যাওয়ার চেষ্টা করছি। কারো অসম্মতিতে মিলন করা মানে তাকে ধ’র্ষণ করা হয়েছে।

ওই নারী যদি তার সন্তান বাঁ’চানোর জন্য অসামাজিক কার্যকলাপের সাথে জ’ড়িত হন এটি তার ব্যক্তিগত এবং পারিপার্শ্বিক বিষয়। সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে তিনি দাবি করেছেন তাকে ধ’র্ষণ করা হয়েছে। এখন আম’রা সব বিষয় মা’থায় রেখে মা’মলা’টি ত’দন্ত করছি। একই সাথে স’ন্ত্রাসীদের গ্রে’প্তারের জন্য অ’ভিযান অব্যাহত রাখা হয়েছে।’

আশিক তালিকাভুক্ত স’ন্ত্রাসী, ১৬ মা’মলার আ’সামি, মা’দকসেবক ও মা’দক ব্যবসায়ী একজন মানুষের (আশিকের) সাথে বাইরের আরেকজন নারীর পরিচয় থাকা স’ন্দেহ’জনক বলে উল্লেখ করেন তিনি।

এর আগে তিনি স্বামী-সন্তানকে জি’ম্মি ও হ’ত্যার ভ’য় দেখিয়ে তাকে দুবার ধ’র্ষণ হয়েছে বলে অ’ভিযোগ করেন। অন্যদিকে পু’লিশ বলছে, ধ’র্ষণের শিকার ওই নারী পতিতাবৃত্তির অ’ভিযোগে কক্সবাজার সদর মডেল থা’নার হাতে আ’ট’ক হয়েছিলেন কয়েকমাস আগে।

কক্সবাজার শহরের হোটেল-মোটেল জোনের লাইট হাউজ এলাকায় আবাসিক কটেজ থেকে অসামাজিক কার্যকলাপে জড়িত থাকার অ’ভিযোগে ওই নারীসহ ৫২ জনকে আ’ট’ক করা হয়েছিল।

পু’লিশের দাবি, প্রাথমিক ত’দন্তে ওই নারীর সাথে আ’সামি আশিকুল ইস’লাম আশিকের পূর্ব-পরিচয় ছিল বলে নিশ্চিত হয়েছেন। শুক্রবার রাতে ওই নারী আ’দালতে ২২ ধারায় এ সংক্রান্ত জবানব’ন্দি দিয়েছেন বলে জানিয়েছে পু’লিশ।

চাঞ্চল্যকর এ ধ’র্ষণের ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে কক্সবাজার সদর থা’নায় চারজনের বি’রুদ্ধে মা’মলা করেন ওই নারীর স্বামী।মা’মলার আ’সামিরা হলেন; আশিকুল ইস’লাম এবং তার তিন সহযোগী আবদুল জব্বার ওরফে ইস্রাফিল হুদা ওরফে জয়, মেহেদী হাসান ওরফে বাবু ও রিয়াজ উদ্দিন ছোটন।

র‍্যাবের দাবি, রাজধানী ঢাকার যাত্রাবাড়ী থেকে স্বামী-সন্তানসহ কক্সবাজার বেড়াতে আসা এক নারী হোটেলে তিন যুবকের হাতে ধ’র্ষণের শিকার হন।

বুধবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে শহরের সুগন্ধা পয়েন্ট সৈকত থেকে স্বামী-সন্তানকে জি’ম্মি করে হ’ত্যার ভ’য় দেখিয়ে ওই নারীকে অ’পহ’রণের পর হোটেলে নিয়ে গিয়ে ধ’র্ষণ করা হয়। রাত ২টার দিকে রেবের একটি দল হোটেল-মোটেল জোনের জিয়া গেস্ট ইন নামের একটি হোটেল থেকে ওই নারীকে উ’দ্ধার করে।

ঘটনার ব্যাপারে গত বৃহস্পতিবার রাতে ওই নারীর স্বামী মামুন মিয়া বাদী হয়ে কক্সবাজার সদর থা’নায় সাতজনের বি’রুদ্ধে একটি ধ’র্ষণ মা’মলা রুজু করেন।মা’মলার আ’সামিরা হলেন- কক্সবাজার শহরের বাহারছড়া এলাকার আবদুল করিমের ছে’লে আরিফুল ইস’লাম আশিক, মোহাম্ম’দ শফির ছে’লে আব্দুল জব্বার জয়, বাবু ও রিয়াজউদ্দিন ছোটনসহ অ’জ্ঞাতনামা আরো তিনজন। এরমধ্যে হোটেল ম্যানেজার রিয়াজউদ্দিন ছোটন গ্রে’প্তারের পর এখন কারাগারে রয়েছেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: