সর্বশেষ আপডেট : ৪ ঘন্টা আগে
রবিবার, ২৬ জুন ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

যু’ক্তরাষ্ট্র থেকে আনা প্রবাসীর লাগেজ কা’টা, মালামাল গায়েব!

যু’ক্তরাষ্ট্র প্রবাসী এক দম্পতির ফ্লাইটে আনা ট্রলি অ’ভিনব কায়দায় কে’টে মালামাল গায়েব করেছে চো’র চক্র। কাতার এয়ারওয়েজ থেকে এসএ পরিবহনের মাধ্যমে পাঠানো ট্রলির এমন অবস্থা দেখে অসহায় যু’ক্তরাষ্ট্র প্রবাসী নুর উদ্দিন। শুক্রবার (১৭ ডিসেম্বর) দুপুরে বিয়ানীবাজার এসএ পরিবহনের ব্রাঞ্চে তিনি এই অ’ভিযোগ করেন।

জানা যায়, বিয়ানীবাজারের নুর উদ্দিন খান ও রহিমা খানম দম্পতি গত ১৩ ডিসেম্বর আ’মেরিকা থেকে কাতার এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে বাংলাদেশে রওয়ানা দিয়ে দেশে আসেন ১৪ ডিসেম্বর। ফ্লাইট বিলম্বের তাদের সাথে থাকা লাগেজ পৌছায় নি সঠিক সময়ে তাদের কাছে।

ঢাকায় পৌছার পর কাতার এয়ারওয়েজ কর্তৃপক্ষ তাদের ঠিকানা রেখে দেয় নিকটস্থ ঠিকানায় লাগেজ পৌছে দিবে বলে। শুক্রবার (১৭ ডিসেম্বর) তাদের কাছে এস এ পরিবহন বিয়ানীবাজার ব্রাঞ্চ থেকে ফোন আসে একটি লাগেজ রিসিভ করার জন্য। দুপুরে যু’ক্তরাস্ট্র প্রবাসী নুর উদ্দিন খান তার ছে’লে শিক্ষক ও রাজনীতিবিদ আরবাব খানকে সাথে নিয়ে এস এ পরিবহন বিয়ানীবাজার ব্রাঞ্চে ট্রলি রিসিভ করতে আসেন।

লাগেজ হাতে পেয়ে দেখেন তারা তাদের ‘লাগেজের চেইন অ’ভিনব উপায়ে কে’টে প্রয়োজনীয় অনেক মালামাল গায়েব করা হয়েছে। ২৫ কেজি ওজনের লাগেজ থেকে ২ কেজি পরিমান মালামাল ব্যাগ কে’টে চু’রি করা হয়।

এব্যাপারে বিয়ানীবাজার এস এ পরিবহন কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বললে তারা বিষয়টির জন্য কাস্টমস কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করতে বলেন। কে, কোথায়, কী’ভাবে গায়েব করেছে মালামাল এমন প্রশ্ন তাদের যার উওর নেই এস এ পরিবহনের কাছে।

প্রবাসীর ছে’লে আরবাব খান বলেন, তিনি এ অবস্থা দেখে কাতার এয়ারওয়েজ কর্তৃপক্ষকে লিখিত বিস্তারিত জানিয়ে ক্ষতিপূরন চেয়ে অ’ভিযোগ জানিয়েছেন। তারা অ’ভিযোগের ব্যাপারে বিস্তারিত খতিয়ে দেখছে বলে আশ্বস্থ করেছে।

এদিকে, এস এ পরিবহনের রিসিভ লিস্টে লাগেজ কা’টার কোন তথ্য নেই। তাদের রিসিভ কপি অনুযায়ী ব্যাগে কোন সমস্যা নেই। তাতে স্বভাবতই স’ন্দেহের তীর উঠতেই পারে এস এ পরিবহনের কতৃপক্ষের দিকে। তবে সেই দায় কোনভাবেই এস এ পরিবহন নিজেদের ঘাড়ে নিতে চায় না। লাগেজ কা’টার কোন তথ্য তাদের রিসিভ কপিতে নেই এর কোন সঠিক ব্যাখ্যাও তারা দিতে পারে নি।

এস এ পরিবহনের বিয়ানীবাজার ব্রাঞ্চের সহকারি ম্যানেজার আতাউর রহমান জানান, বুকিং কাউন্টারে ব্যাগটি কা’টার ব্যাপারে তথ্য ছিলো না। এব্যাপারে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে, তারা বিষয়টি দেখছে বলে জানিয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: