সর্বশেষ আপডেট : ৬ ঘন্টা আগে
শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

বাংলাদেশে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড কমেছে: যুক্তরাষ্ট্র

২০২০ সালে বাংলাদেশে স’ন্ত্রাসী কর্মকা’ণ্ড কমেছে বলে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে যু’ক্তরাষ্ট্রের স্টেট ডিপার্টমেন্ট। এতে বলা হয়েছে, গত বছর বাংলাদেশে তিনটি স’ন্ত্রাসী হা’মলার ঘটনা ঘটলেও এসব ঘটনায় কোনো প্রা’ণহানি হয়নি।

বৃহস্পতিবার ২০২০ সালের ‘কান্ট্রি রিপোর্টস অন টেররিজমে’ শীর্ষক এ প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়।

রেব এবং এর সাবেক ও বর্তমান সাত কর্মক’র্তার বি’রুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার পর ঢাকার অসন্তোষের পর যু’ক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী টেলিফোনালাপের পর এই ইতিবাচক খবর দিল যু’ক্তরাষ্ট্র।

গত ১১ ডিসেম্বর রেবের ‘গুরুতর মানবাধিকার লঙ্ঘনের’ অ’ভিযোগে র‍্যাবের সাবেক প্রধান, বর্তমান পু’লিশ মহাপরিদর্শক বেনজীর আহমেদসহ সাত কর্মক’র্তার ওপর যু’ক্তরাষ্ট্রের অর্থ ও পররাষ্ট্র দপ্তরের নিষেধাজ্ঞা নিয়ে আলোচনার মধ্যে এ প্রতিবদেন প্রকাশ পেল; যাতে বাংলাদেশে জ’ঙ্গিবাদী স’ন্ত্রাসী কার্যক্রম কমা’র ভালো খবর দেওয়া হয়েছে। রেবের কর্মক’র্তাদের উপর নিষেধাজ্ঞার খবরে অসন্তোষ প্রকাশ করা হয় বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে। ঢাকায় যু’ক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূতকে তলব করা হয়। এই পদক্ষেপকে ‘খুবই দুঃখজনক’ হিসেবে বর্ণনা করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আব্দুল মোমেন।

বুধবার মা’র্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেনের সঙ্গে ফোনালাপের সময়ও প্রসঙ্গটি তোলেন মোমেন। তিনি এ নিষেধাজ্ঞা দেশবাসী ‘গ্রহণ করেনি’ বলেও তাকে জানান। সমস্যা সমাধানে আলোচনায় ‘গুরুত্ব দিয়ে’ বাংলাদেশের বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নিতে ‘আগে জানানোর’ জন্য মা’র্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে আহ্বান জানান মোমেন। বৃহস্পতিবার এমন খবর প্রকাশের মধ্যে রাতে বাংলাদেশ নিয়ে ইতিবাচক তথ্য প্রকাশ পেল যু’ক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের এ প্রতিবেদনে।

প্রতিবেদনের বাংলাদেশ অংশে পু’লিশের বিশেষ দুই ইউনিট র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (রেব) ও কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রা’ইম ইউনিট (সিটিটিসিইউ) এর কার্যক্রমসহ সন্ত্রাসবাদ নিয়ন্ত্রণে বাংলাদেশের পদক্ষেপ তুলে ধ’রা হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, সিটিটিসিইউ ও রেব বিদেশের সঙ্গে যু’ক্ত জ’ঙ্গি বা স’ন্ত্রাসীদের (ফরেন টেরোরিস্ট ফাইটার- এফটিএফ) গ্রে’প্তার বা তাদের বিষয়ে অনুসন্ধনে আমূল সংস্কার ও পুর্নবাসন কর্মসূচির পাশাপাশি কমিউনিটি পু’লিশিং কার্যক্রম হাতে নিয়েছে।

এতে বলা হয়, বরাবরের মতো বাংলাদেশভিত্তিক স’ন্ত্রাসীদের সঙ্গে আই’এস কিংবা আল-কায়েদার মতো আন্তর্জাতিক স’ন্ত্রাসীদের যোগসূত্র নেই বলে দাবি করে আসছে সরকার। প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, ঢাকার একটি রেস্টুরেন্টে স’ন্ত্রাসী হা’মলার ঘটনায় ২০১৯ সালে বিশেষ ট্রাইব্যুনালে ৭ জনকে মৃ’ত্যুদ’ণ্ড দেয়া হয়। এটি এখন আপিল বিভাগে আছে।

২০১৬ সালে হলি আর্টিজান বেকারিতে চালানো ওই হা’মলায় এক আ’মেরিকান নাগরিকসহ ২০ জন নি’হত হন। হা’মলাকারীদের দাবি, তারা জ’ঙ্গি সংগঠন আই’এসের সঙ্গে সম্পৃক্ত।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের বিচার ব্যবস্থার দুর্বলতা, যা বৈশ্বিক মহামা’রিজনিত সংকটে আরও প্রকট আকার নিয়েছে, সন্ত্রাসবাদের মা’মলাগুলোয় দশকব্যাপী জট তৈরি করেছে। এসব মা’মলায় রায় প্রদানের হার ১৫ শতাংশ। সন্ত্রাসের বি’রুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি অব্যাহত রেখেছে বাংলাদেশ সরকার। জানুয়ারিতে কাউন্টার টেরিরিজম এজেন্সিকে আরও শক্তিশালী করতে বাংলাদেশ সরকার নতুন একটি ইউনিট গঠন করেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০০৯ সালের সন্ত্রাসবিরোধী আইন সংশোধন করা হয় ২০১২ ও ২০১৩ সালে। ওই আইন অ’প’রাধ বিচার ব্যবস্থায় পুরোদমে প্রয়োগ হতে থাকে ২০২০ সালেও। এই আইনের আওতায় সাতটি বিশেষ ট্রাইব্যুনালে বেশ কিছু মা’মলার বিচার শুরু হয়। এসব মা’মলার মধ্যে আছে ২০১৫ সালে ব্লগার ও বিজ্ঞানবিষয়ক লেখক অনন্ত বিজয় দাশ হ’ত্যা মা’মলা। এই হ’ত্যার দায় স্বীকার করে আল কায়েদাপন্থি জ’ঙ্গি সংগঠন আনসার আল-ইস’লাম।

নিজ সীমান্ত ও বন্দর নিয়ন্ত্রণে যু’ক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে কাজ করেছে বাংলাদেশ। আন্তর্জাতিক মহল ঢাকার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন। কে-৯ নামের একটি ইউনিট’কে যু’ক্তরাষ্ট্র প্রশিক্ষণ দিয়েছে। তারা বিমানবন্দরে নিরাপত্তা দিচ্ছে। যদিও সেখানে তাদের উপস্থিতি স্থায়ী নয়।

এতে বলা হয়েছে, ইন্টারপোলের সঙ্গে বাংলাদেশ সরকার নিয়মিত আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি শেয়ার করলেও, স’ন্ত্রাসী তালিকা দিতে পারেনি ঢাকা। চিহ্নিত কিংবা স’ন্দেহভাজন স’ন্ত্রাসী তালিকা করতে বাংলাদেশকে কারিগরি সহায়তা দিয়ে যাচ্ছে যু’ক্তরাষ্ট্র। জাতিসংঘের অধীনে মা’দক ও অ’প’রাধ দমনে আরও শক্তিশালী ভূমিকা রাখতে জাতীয় পর্যায়ে কর্মশালার আয়োজন করেছে বাংলাদেশ।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, বাংলাদেশ পু’লিশ স’ন্দেহভাজন জ’ঙ্গি আস্তানায় নিয়মিত অ’ভিযান চালিয়ে আসছে। যু’ক্তরাষ্ট্রে প্রশিক্ষিত ত’দন্তকারী দল বুদ্ধিমত্তার পরিচয় দিয়ে সিলেটের হযরত শাহ জালাল (র.) মাজারে হা’মলা ঠেকাতে সক্ষম হয়েছে। আইন শৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনী সিলেট থেকে নওগাঁ ও চট্টগ্রামে হা’মলায় জ’ড়িত ছয় জনকে গ্রে’প্তার করেছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Comments are closed.

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: