সর্বশেষ আপডেট : ৬ ঘন্টা আগে
শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

মায়ের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়া হলো না বেলীর

বিয়ের পর থেকেই স্বামী আলতাফের সঙ্গে বনিবনা হচ্ছিল না আয়েশা সিদ্দিকার। এরই মধ্যে জন্ম নেয় ফুটফুটে একটি মে’য়ে সন্তান। যার নাম রাখেন বেলী।

এরপরও স্বামীর সঙ্গে আর থাকা হলো না আয়েশার। ফলে মে’য়েকে নিয়েই ছিল তার বসবাস।

কিছুদিন নারায়ণগঞ্জ জজকোর্টে আইনজীবী হিসেবেও কর্ম’রত ছিলেন আয়েশা। এরপর মে’য়েকে নিয়ে দেশের মায়া ছেড়ে সুদূর যু’ক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান। সেখানকার একটি স্কুলে ভর্তি করেন মে’য়েকে। বর্তমানে তার বয়স হয়েছিল ১৪।

গত ২০ দিন আগে মে’য়েকে নিয়ে দেশে ফিরেন আয়েশা। নারায়ণগঞ্জ শহরের জামতলা এলাকায় তার বড় বোনের বাসায় ওঠেন। কথা ছিল ২৩ ডিসেম্বর তারা আবার আ’মেরিকা চলে যাবেন। দেশে ফেরার সুযোগে মে’য়ে বেলী তার বাবা আলতাফের সঙ্গে যোগাযোগ করেন।

সেই সূত্র ধরে মে’য়েকে তার বড় বোন মাহমুদার কাছে রেখে যান। আর সেখান থেকে আলতাফ তার মে’য়েকে নিয়ে একটি বিয়ে অনুষ্ঠানের মধ্যে যাচ্ছিলেন। কিন্তু পথেই সব শেষ। ট্রাকের চাপায় সব স্বপ্ন ধূলিসাৎ হয়ে গেলো।

রিকশাযোগে যাওয়ার পথে শহরের চাষাঢ়ায় ইটবোঝাই ট্রাকচাপায় ঘটনাস্থলে মে’য়ে বেলী তার বাবা আলতাফ হোসেন মা’রা যান।

আলতাফ হোসেন সোনারগাঁ উপজে’লার সম্ভুপুরা গ্রামের আনোয়ার হোসেনের ছে’লে। নিজস্ব ফার্মেসিতে ওষুধ বিক্রি করতেন। আলতাফ হোসেন আর আয়েশা সিদ্দিকা একই এলাকার বাসিন্দা ছিলেন। কিন্তু বিচ্ছেদ হওয়ার পর থেকেই সেখানে আর যেতেন না আয়েশা সিদ্দিকা।

মাহমুদা বেগম বলেন, আলতাফ হোসেনের সঙ্গে বেলীর মা অ্যাডভোকেট আয়েশা সিদ্দিকার সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়ে যায়। বেলী তখন ছোট ছিল। তখন আয়েশা কিছুদিন নারায়ণগঞ্জ জজকোর্টে আইনজীবী হিসেবে কর্ম’রত ছিলে।

বেলী হওয়ার পর থেকেই মে’য়ে নিয়ে আ’মেরিকায় চলে যায় আয়েশা। সেখানের একটি স্কুলে পড়াশুনা করতো বেলী। বেলীর নানি গুরুতর অ’সুস্থ হওয়ায় ২০ দিন আগে তারা দেশে আসে।

তিনি আরও বলেন, ১৪ দিনের বেলীকে আমা’র কাছে রেখে কোর্টে যেতো ওর মা। বাবা মায়ের বিচ্ছেদ হওয়ার পরও বেলীর সঙ্গে তার বাবার ঠিকই যোগাযোগ ছিল। সে জন্যই তার বাবা বেলীকে নিয়ে বিয়ে অনুষ্ঠানে যাওয়ার জন্য নিতে এসেছিল। আমা’র নিজ হাতে সাজিয়ে দিয়েছিলাম বেলীকে। এখন আর কিছুই রইলো না। মে’য়েকে নিয়ে আ’মেরিকা আর ফেরা হলো না।

ফতুল্লা মডেল থা’নার উপ-পরিদর্শক (এসআই) জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আলতাফ হোসেনের প্রথম সংসারের মে’য়ে বেলী।

সে তার খালার সঙ্গে পঞ্চবটি এলাকায় বসবাস করে। পারিবারিক এক বিয়ের অনুষ্ঠানের উদ্দেশ্যে মে’য়েকে খালার বাসা থেকে নিয়ে রিকশায় সোনারগাঁয়ের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। তবে রিকশা চাষাঢ়ায় মোড় ঘুরাতে গেলে পেছন থেকে ইটবাহী একটি ট্রাক চাপা দেয়।

এতে ঘটনাস্থলে বাবা মে’য়ে মা’রা যায়। পরে স্থানীয়রা ট্রাক চালক হাবিবকে (৩৮) আ’ট’ক করে পু’লিশে হস্তান্তর করে। তবে রিকশা চালককে খুঁজে পাওয়া যায়নি।

ফতুল্লা থা’নার ভা’রপ্রাপ্ত কর্মক’র্তা (ওসি) রকিবুজ্জামান বলেন, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো মা’মলা হয়নি। মা’মলা হলে অ’ভিযু’ক্তদের বি’রুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Comments are closed.

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: