সর্বশেষ আপডেট : ২৩ মিনিট ৫ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

মৌলভীবাজারে সড়ক থেকে সরিয়ে দেওয়া হলো বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুরের নাম

বীরশ্রেষ্ঠ সিপাহী হামিদুর রহমান স্ম’রণে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে ধলই চা বাগানে স্মৃ’তিসৌধের সড়কের প্রবেশ পথে স্থাপিত নাম ফলক ভেঙে ফেলা হয়েছে। নতুন ফলক স্থাপন করে পরিবর্তন করা হয়েছে সড়কের নাম। আর বীরশ্রেষ্ঠ সিপাহী হামিদুর রহমানের ফলকটি নতুন ফলকের নিচে ফেলে রাখা হয়েছে। এতে এলাকাবাসীর মধ্যে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে।

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) বলছে, সড়কের তালিকায় বীরশ্রেষ্ঠ সিপাহী হামিদুর রহমানের নাম নেই। তাই তালিকা অনুযায়ী আরেক বীর মুক্তিযোদ্ধার নামে সড়কের নামকরণ করা হয়েছে। সিপাহী হামিদুর রহমান ১৯৭১ সালের ২ ফেব্রুয়ারি ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টে যোগ দেন। মুক্তিযু’দ্ধ শুরু হলে ধলইয়ে পা’কিস্তানিরা ক্যাম্প তৈরি করে।

ওই বছরের ২৮ অক্টোবর রাতে ধলইয়ের যু’দ্ধে অসীম সাহসিকতা দেখিয়ে শত্রুর গু’লিতে মা’রা যান তিনি। সহযোদ্ধারা হামিদুর রহমানের ম’রদেহ সীমান্তের ওপারে নিয়ে ভা’রতের আমবাসা গ্রামের একটি ম’সজিদের পাশে সমাধিস্থ করেন। এই মহান বীরের প্রতি সম্মান জানিয়ে শ্রীমঙ্গল থেকে প্রায় ২২ কিলোমিটার দূরে ধলই চা বাগানে একটি স্মৃ’তিসৌধ নির্মাণ করা হয়।

সেই স্মৃ’তিসৌধের সড়করে নামকরণ করা হয় বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান সড়ক। কিন্তু নামফলকটি ভেঙে নতুনভাবে সংস্কার করা হয়। তাতে না দেওয়া হয় ভানুগাছ জিসি ভায়া ইস’লামপুর-মাধবপুর সড়ক।

২০১৮ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি এর উদ্বোধন করেন সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা ড. মো. আব্দুস শহীদ।এলাকার কয়েকজন বাসিন্দা বলেন, এ জায়গায় বীরশ্রেষ্ঠ সিপাহী হামিদুর রহমান মুক্তিযু’দ্ধে অংশ নিয়ে শহীদ হয়েছিলেন আম’রা জানতেও পারতাম না এ স্মৃ’তিসৌধ নির্মাণ না হলে। আম’রা শুধু বিভিন্ন দিবস এলেই মুক্তিযু’দ্ধে শহীদদের সম্মান করি। কিন্তু বাস্তবে এভাবে দীর্ঘদিন একজন বীরশ্রেষ্ঠের নামফলক ভেঙে পড়ে থাকলেও কেউ বিষয়টি দেখছেন না। এটি খুবই দুঃখজনক।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েকজন বলেন, যাদের ত্যাগের বিনিময়ে আম’রা স্বাধীনতা পেলাম আজ তাদের স্মৃ’তি ভু’য়া মুক্তিযোদ্ধার জন্য গড়াগড়ি খাচ্ছে। নতুন প্রজন্ম জানে না বীরশ্রেষ্ঠ সিপাহী হামিদুর রহমানের আত্মত্যাগের ইতিহাস। তাকে কমলগঞ্জে দেওয়া হয়নি যথার্থ সম্মান। তার নামে করা রাস্তার ফলকটি নতুন নামকরণের নিচে পড়ে থাকা দেখে ক’ষ্ট হচ্ছে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য শি’ব নারায়ণ শীল বলেন, স্মৃ’তিসৌধে আসার রাস্তার নাম হামিদুর রহমান সড়ক বলেই আম’রা সবাই জানি। কী’ কারণে এ নাম পরিবর্তন করা হয়েছে তা জানি না। এ রাস্তার নাম বদল করায় দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে আসা পর্যট’কদের অ’সুবিধা হয়। তৃণমূলের একজন জনপ্রতিনিধির কথা কেবা শুনে। অনেক চেষ্টা করেও নামফলকের সংস্কার করতে পারি নাই।

এ বিষয়ে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের কমলগঞ্জ উপজে’লা প্রকৌশলী মো. জাহেদুল ইস’লাম জানান, এটা একটি গ্রামীণ সড়ক। প্রতিটি সড়কের নামের তালিকা আছে। আমা’র আগের তিন জন সাবেক উপজে’লা প্রকৌশলীর সঙ্গে কথা বলে জেনেছি হামিদুর রহমান সড়ক বলে কোনো নাম নেই আমাদের তালিকায়। লোকমুখে শুনেছি এটা হামিদুর রহমান সড়ক। তাই আম’রা আমাদের তালিকা অনুযায়ী এ রাস্তার নামকরণ করেছি। সাবেক অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমানে পরিকল্পনায় একটি নামফলক লাগানো হয়েছিল। আমি স্থানীয় বীর মুক্তি যোদ্ধাদের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করেছি। তারা যদি হামিদুর রহমানের নামে সড়কের নামকরণ দাবি করেন তাহলে বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলাপ করে ব্যবস্থা নেওয়া যেতে পারে।

কমলগঞ্জ পৌরসভা’র চেয়ারম্যান মো. জুয়েল আহমেদ বলেন, এলজিইডির নিয়ন্ত্রণাধীন এ সড়কের নাম বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান সড়ক। মাত্র এক কিলোমিটার পৌরসভা’র অংশে পড়েছে। তাই বিষয়টা আমা’র জানা ছিল না। কী’ কারণে এ রাস্তার নাম পরিবর্তন করা হলো তা খতিয়ে দেখে প্রশাসনের সহযোগিতায় যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের উদ্যোগ নেবো।

কমলগঞ্জ উপজে’লা নির্বাহী কর্মক’র্তা ও কমলগঞ্জ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের প্রশাসক আশেকুর রহমান বলেন, নামফলক ভাঙার বিষয়টি নিয়ে উপজে’লা প্রকৌশলীর সঙ্গে কথা বললে তিনি জানিয়েছেন অফিসিয়ালভাবে সেটা বদলানো হয়েছে জে’লা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান জানান, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য- প্রতি বছর ২৮ অক্টোবর এলে হামিদুর রহমানের মৃ’ত্যুবার্ষিকী’ উপলক্ষে কমলগঞ্জ উপজে’লা প্রশাসন, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড, বিজিবি ব্যাটেলিয়ন কমান্ড তাঁর স্মৃ’তিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানান।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 40
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    40
    Shares

Comments are closed.

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: