সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
বুধবার, ২৯ জুন ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৫ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

বাংলাদেশ থেকে পান যাবে ব্রিটেনে, ফুড স্ট্যান্ডার্ড এজেন্সির সাথে কৃষিমন্ত্রীর বৈঠক

বাংলাদেশ থেকে যু’ক্তরাজ্যে পান রফতানির নিষেধাজ্ঞা উঠছে। ইংল্যান্ড, ওয়েলস ও স্কটল্যান্ডের পার্লামেন্টে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার ব্যাপারে বিল পাশ বিবেচনাধীন রয়েছে বলে যু’ক্তরাজ্যের ফুড স্ট্যান্ডার্ড এজেন্সি জানিয়েছে।

সোমবার যু’ক্তরাজ্যের লন্ডনে দেশটির ফুড স্ট্যান্ডার্ড এজেন্সি ও সে দেশের সরকারি গবেষণাগারের বিশেষজ্ঞদের (এফএসএ) সাথে লন্ডন সফররত কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাকের মধ্যে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে তারা এ কথা জানান। সম্প্রতি বাংলাদেশ থেকে ইউরোপে পান রপ্তানির নিষেধাজ্ঞা উঠে গেলেও যু’ক্তরাজ্য তা এখনও বহাল রয়েছে। তবে উত্তর আয়ারল্যান্ডে পান রফতানিতে নিষেধাজ্ঞা নেই। বৈঠকে যু’ক্তরাজ্যসহ ইউরোপের বাজারে কৃষিপণ্যের রফতানি বৃদ্ধির জন্য দেশে আধুনিক টেস্টিং ল্যাব স্থাপন, উন্নয়ন এবং কৃষিপণ্য রোগজীবাণুমুক্ত ও নিরাপদ বিষয়ে আন্তর্জাতিকভাবে গ্রহণযোগ্য সনদ (ফাইটোস্যানিটারি) প্রদানের বিষয়ে সহযোগিতার জন্য যু’ক্তরাজ্যের ফুড স্ট্যান্ডার্ড এজেন্সির সঙ্গে সমঝোতা স্মা’রক সাক্ষরের বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে ইউকের ফুড স্ট্যান্ডার্ড এজেন্সির চিফ সাইন্টেফিক অ্যাডভাইজার অধ্যাপক রবিন মে, ডেপুটি গভর্নমেন্ট কেমিস্ট সেলভা’রানি এলাহি, হেড অব ইইউ অ্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল স্ট্র্যাটেজি লিজ স্ট্রেটন, এফএসএর সাইন্টেফিক স্যাম্পলিং ও ল্যাবরেটরি পলিসি লিডার ডেভিড ফ্রাঙ্কলিং উপস্থিত ছিলেন। ফুড স্ট্যান্ডার্ড এজেন্সি ও সরকারি গবেষণাগারের বিশেষজ্ঞরা এ সময় সেদেশের ল্যাব স্থাপন, পরিচালনা, টেস্টিং মানদ’ণ্ড, রেগুলেটরি চাহিদা প্রভৃতি বিষয়ে উপস্থাপনা করেন।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে আম’রা বিশ্বমানের আধুনিক ল্যাব স্থাপন ও গ্রহণযোগ্য সার্টিফিকেশন দেয়ার জন্য কাজ করছি। এক্ষেত্রে যু’ক্তরাজ্যের যে সক্ষমতা রয়েছে, তা আম’রা কাজে লাগাতে চাই। আম’রা যু’ক্তরাজ্যের কারিগরি সহযোগিতা কা’মনা করি। আমাদের নিজস্ব অর্থেই এসব কার্যক্রম পরিচালিত হবে।

এ সময় ইউকে প্রতিনিধিদল ল্যাব সিস্টেম উন্নয়নে অনুদান পাওয়া যেতে পারে বলে জানান। তারা বলেন, ইউকে এআইডির চলমান ফান্ডিং সহায়তায় এ বিষয়টিকে অন্তর্ভুক্ত করা যায় কিনা, এটিও তারা খতিয়ে দেখবেন। এছাড়া, বাংলাদেশ ও ইউকের মধ্যে ট্রেড অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট এগ্রিমেন্টের বিষয়ে যে আলোচনা হচ্ছে- তার মধ্যে ল্যাব ও ফাইটোস্যানিটারি বিষয়গুলো অন্তর্ভুক্ত করার উদ্যোগ নেওয়া হবে বলে লন্ডনে নিযু’ক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার সাইদা মুনা তাসনিম জানান।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: