সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৪ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

পালিয়ে যাওয়া ৩ বাংলাদেশিকে খুঁজছে ব্রুনাই পু’লিশ, লোমহর্ষক তথ্য দিলেন রাষ্ট্রদূত

নিয়োগক’র্তার কাছ থেকে পালিয়ে যাওয়া ৩ বাংলাদেশি শ্রমিককে খুঁজছে ব্রুনাই পু’লিশ। দেশটির প্রতিষ্ঠিত সংবাদ মাধ্যম বোর্নিও বুলেটিনের রিপোর্টে এমনটাই দাবি করা হয়েছে। কিন্তু কোন প্রেক্ষাপটে তারা পালাতে বাধ্য হয়েছে সে স’ম্পর্কে সেই রিপোর্টে একটি শব্দও লেখা হয়নি। রিপোর্টার রোকেয়া মাহমুদ তার প্রতিবেদনে লিখেন- নি’খোঁজ ৩ বাংলাদেশিকে হন্য হয়ে খুঁজছে রয়্যাল ব্রুনাই পু’লিশ ফোর্স। তিন পুরুষ বাংলাদেশী শ্রমিককে খুঁজে বের করতে জনসাধারণের সহায়তাও চেয়েছে পু’লিশ।

পলাতক শ্রমিকরা হলেন: মোঃ সুজন মিয়া (২৮) পাসপোর্ট নম্বর বিএম ৮২৬২৯০৯; সুবুজ আলী, পাসপোর্ট নম্বর বিপি০৩১০২৮৩ এবং মোহাম্ম’দ আকতার হোসেন (২৯) পাসপোর্ট নম্বর- বিডব্লিউ০০৮৩৯৪৪। কেউ তাদের সন্ধান পেলে লিমাউ মানিস থা’নায় কিংবা কাছাকাছি পু’লিশ স্টেশনে জানাতে অনুরোধ করেছে ব্রুনাই পু’লিশ। তবে ওই সব বাংলাদেশির পালিয়ে যেতে বাধ্য হওয়া স’ম্পর্কে লোমহর্ষক তথ্য দিয়েছেন বন্দর সেরিবেগওয়ানে নিযু’ক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত নাহিদা রহমান সুমনা। তিনি বলেন, কেবল বাংলাদেশিরা পালায় না, অন্য দেশের শ্রমিকরাও পালায়।

কারণ তারা প্রতিশ্রুত বেতন পায় না। ঢাকা থেকে নেয়ার সময় যে বেতনের অঙ্গীকার করা হয়, বাস্তবে তার চেয়ে অনেক কম বেতন দেয়া হয়। ২০-২১ ব্রুনাই ডলারের বেশি পায় না তারা।
রাষ্ট্রদূত নাহিদা রহমান সুমনা

তা থেকে ফুড ও ডরমেটরি রেন্ট কে’টে নেয়া হয়। ফলে দিন শেষে শ্রমিকদের হাতে ৪-৫ ডলারের বেশি থাকে না। তাছাড়া ঘিঞ্জি পরিবেশে থাকা ডরমিটরিগুলোতে শ্রমিকদের থাকতে হয় চরম অস্বস্তিতে গাদাগাদি করে থাকতে হয়। করো’নার সেকেন্ডওয়েভ শুরুর মূহুর্তে দেশটির পররাষ্ট্র ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ কর্তক’র্তাদের সঙ্গে দূতাবাসের (ত্রিপক্ষীয়) এ নিয়ে একটি বৈঠক হয়েছে জানিয়ে রাষ্ট্রদূত মিজ রহমান বলেন, সেখানে সরকারী কর্মক’র্তারা ডরমিটরির অস্বাস্থ্যকর পরিবেশের বিষয়টি স্বীকার করেছেন।

তখন দূতাবাসের তরফে তাদের একটি অনুরোধ করা হয়েছে, তাহলো কোন শ্রমিক পালিয়ে গেলে পত্রিকায় দেয়ার আগে যেনো দূতাবাসকে জানানো হয়। কিন্তু সেটা হচ্ছে না, পু’লিশ পত্রিকাতে দিতেই স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করে। রাষ্ট্রদূত বলেন, শ্রমিকদের ন্যায্য বেতন এবং স্বাস্থ্যকর ডরমিটরিই একমাত্র চাওয়া। এটা হলেও ৯৫ ভাগ সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: