সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
সোমবার, ২৭ জুন ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

দুবাইয়ে স্বর্ণের দোকানে স্ত্রী-সন্তানসহ মুশফিক

ব্যর্থ বিশ্বকাপ অ’ভিযান শেষে বাংলাদেশ দলের একাংশ দেশে ফিরেছে গত শুক্রবার। তবে এবারের ফেরাতে রাখঢাকের ছিল না কিছুই। যতটা গণমাধ্যমের ক্যামেরা আর সমালোচকদের এড়িয়ে মুখ লুকিয়ে বিমানবন্দর ছাড়েন ক্রিকেটাররা।

তবে ক্রিকেটারদের ওই বহরে ছিলেন না ওপেনার লিটন দাস, অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ, মুশফিকুর রহিম ও পেসার তাসকিন আহমেদ।

এ চারজন তাদের পরিবারের সঙ্গে দুবাইয়ে কয়েক দিন ছুটি কা’টাচ্ছেন। পা’কিস্তান সিরিজের অনুশীলনের আগেই দেশে ফিরবেন তারা।

দুবাইয়ে ছুটি বেশ ভালোই উপভোগ করছেন জাতীয় দলের অন্যতম তারকা মুশফিকুর রহিম। স্ত্রী’-সন্তানসহ সোমবার রাতে স্বর্ণের বাজারে দেখা গেল পঞ্চপাণ্ডবের অন্যতম সদস্যকে।

সংযু’ক্ত আরব আমিরাতের বাণিজ্যিক রাজধানী দেরা দুবাইকে ল্যান্ড অব গোল্ড বা সোনার দেশ বলে পরিচিত। দুবাইয়ে এসে এই এলাকায় গিয়ে স্বর্ণের দোকানগুলো ঘুরে যাননি এমন পর্যট’ক মেলা মুশকিল।

আর সবার মতো মুশফিকও স্ত্রী’ জান্নাতুল কেফায়াত মন্ডি ও ছে’লে মায়ানসহ ঘুরে গেলেন বাহারি ডিজাইনের সোনার গহনায় মোড়ানো চোখ ধাঁধানো সব দোকানে।

যা সাংবাদিকদের চোখ এড়ায়নি। দুবাইয়ে স্থানীয় সময় সোমবার রাত ৮টায় স্ত্রী’ ও সন্তানকে নিয়ে দেরা দুবাইয়ে গেলেন মুশফিক। দুবাইয়ের নামকরা স্বর্ণের দোকান গোল্ড সোক মা’র্কে’টের মালাবার গোল্ড এন্ড ডায়মন্ডস দোকান থেকে কেনাকা’টা সারেন তিনি।

এ সময় দেশের এক গণমাধ্যমের সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে এ তারকা বলেন, ‘হ্যা আমি মুশফিক। আলহাম’দুলিল্লাহ ভালো আছি।’

এরপর মাস্ক খুলে সাংবাদিকের সঙ্গে ছবিও তুলেন মুশফিক। এ সময় ছে’লে শাহরুজ রহীম মায়ানকে কোলে তুলে সেলফি তুলেন মুশফিক।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: