সর্বশেষ আপডেট : ৯ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৪ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

কমলগঞ্জের সেই ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যার ভিডিও ভাইরাল

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন করতে চাওয়া ব্যবসায়ীকে কু’পিয়ে হ’ত্যার সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। নৃ’শংস সেই দৃশ্য আজ মঙ্গলবার বিকেল থেকে অনেকেই ফেসবুকে শেয়ার করছেন।

সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায়, ব্যবসায়ী নাজমুল সড়কের ধার দিয়ে হেঁটে তাঁর বাসার দিকে যাচ্ছেন। এ সময় বিপরীত দিক থেকে কালো রঙের একটি মাইক্রোবাস এসে থামে নাজমুলের সামনে। সঙ্গে সঙ্গে মাইক্রোবাস থেকে অ’স্ত্র হাতে এক হা’মলাকারী নেমে তাঁকে ধাওয়া করেন। তিনি উল্টো দিকে ফিরে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু কিছু দূর না যেতেই পড়ে যান। সঙ্গে সঙ্গে মাইক্রোবাস থেকে নামা হা’মলাকারীরা তাঁকে ঘিরে ধরে পায়ের দিকে কো’পাতে শুরু করেন। এ সময় মাইক্রোবাসটি দ্রুত মৌলভীবাজারের দিকে চলে যায়।

চার থেকে পাঁচজন কো’পানোয় অংশ নিলেও আশপাশ মিলে ১০ জন হা’মলাকারীকে সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা যায়। মাত্র ৩০ সেকেন্ডের মধ্যে তাঁকে কু’পিয়ে হা’মলাকারীরা ধীরে ধীরে পূর্ব দিকে ধলাই নদের প্রতিরক্ষা বাঁধের ওপর দিয়ে নিরাপদে চলে যান। সড়কে অচেতন হয়ে পড়ে থাকেন ব্যবসায়ী নাজমুল। আশপাশে স্থানীয় দু-একজন মানুষকে দেখা গেলেও, নাজমুলকে সাহায্য করতে কাউকে এগিয়ে আসতে দেখা যায়নি।

গত রোববার দুপুরে চৈত্রঘাটে নিজ বাড়ির কাছে নাজমুলের ওপর এই হা’মলার ঘটনা ঘটে। তাঁকে উ’দ্ধার করে প্রথমে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতাল ও পরে সিলেট উইমেনস মেডিকেল কলেজ হাসপাতা’লে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার সন্ধ্যার দিকে মা’রা যান নাজমুল। নাজমুল হাসান (৩৪) উপজে’লার রহিমপুর ইউনিয়নের চৈত্রঘাট ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি।

স্থানীয় লোকজন সূত্রে জানা যায়, ধলাই নদের বালুঘাট নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। এ নিয়ে গত দেড় মাসে এই দুই পক্ষের মধ্যে তিনবার র’ক্তক্ষয়ী সং’ঘর্ষ হয়েছে। কমলগঞ্জ থা’নায়ও মা’মলা হয়েছে। তা ছাড়া চৈত্রঘাট বাজারের দোকানঘর নিয়ে নি’হত নাজমুলের সঙ্গেও একটি পক্ষের বিরোধ চলছিল।

তবে স’ন্ত্রাসীদের দায়ের কোপে গুরুতরভাবে আ’হত হয়ে সিলেটে হাসপাতা’লে যাওয়ার সময় মুঠোফোনে লাইভে ব্যবসায়ী নাজমুল হা’মলাকারী চারজনের নাম প্রকাশ করেন। তিনি লাইভে বলেছিলেন, আসন্ন ইউপি নির্বাচনে তিনি রহিমপুর ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থী ছিলেন। তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন তফজ্জুল। এ নিয়ে তাঁর সঙ্গে বিরোধের জেরে তাঁকে প্রক’ল্পিতভাবে কো’পানো হয়েছে।

এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আ’ট’ক মাইক্রোবাসচালক আমির হোসেনকে (৪০) গ্রে’প্তার দেখানো হয়েছে। মা’মলা হওয়ার পর জুয়েল মিয়া (৩৭) নামের আরও একজনকে সোমবার রাতে গ্রে’প্তার করেছে পু’লিশ। মঙ্গলবার সকালে দুই আ’সামিকে মৌলভীবাজার আ’দালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
কমলগঞ্জ থা’নার পরিদর্শক (ত’দন্ত) সোহেল রানা বলেন, সিসিটিভি ফুটেজ দেখে হা’মলায় অংশ নেওয়া অন্য আ’সামিদের দ্রুত গ্রে’প্তারের চেষ্টা করা হচ্ছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: